ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৪ মাঘ ১৪২৯, ০৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১৫ রজব ১৪৪৪

আইন ও আদালত

বিশৃঙ্খলা সৃষ্টিকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা চান অ্যাটর্নি জেনারেল

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯৪২ ঘণ্টা, এপ্রিল ৪, ২০২১
বিশৃঙ্খলা সৃষ্টিকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা চান অ্যাটর্নি জেনারেল

ঢাকা: জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে ভারতের প্রধানমন্ত্রীর সফরের সময় হেফাজতে ইসলামের বিশৃঙ্খলার বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার কথা বলেছেন রাষ্ট্রের সর্বোচ্চ আইন কর্মকর্তা সিনিয়র অ্যাডভোকেট এ এম আমিন উদ্দিন।

রোববার (৪ এপ্রিল) সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতিতে একটি স্মারকগ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের প্রশ্নে এ মন্তব্য করেন অ্যাটর্নি জেনারেল।


 
জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবর্ষ উপলক্ষে স্মারকগ্রন্থ ‘ইতিহাসের মহানায়ক’ প্রকাশ করে সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতি।

এ সময় এক প্রশ্নে এ এম আমিন উদ্দিন বলেন, ‘আমাদের দুর্ভাগ্য হচ্ছে আজকে একটা গোষ্ঠী মসজিদকে ব্যবহার করে দেশে একটা বিশৃঙ্খল অবস্থার সৃষ্টি করছে। এটা কি আমরা সমর্থন করতে পারি? আইনের শাসন তো সবাইকে প্রতিষ্ঠা করতে হবে। যারা মসজিদকে ব্যবহার করে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করতে চায়, তাদের আমরা কি বলবো?

একজন বিদেশি অতিথি (ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী) এর আগেও ২০১৫ সালে বাংলাদেশে এসেছিলেন। কিন্তু তখন তারা চুপ ছিলেন। অথচ এবার তিনি (নরেন্দ্র মোদী) বাংলাদেশে আসায় তাদের (আন্দোলনকারীদের) ঘুম ভেঙেছে। তাই ওই ঘটনাকে কেন্দ্র করে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় যে কাজটি হয়েছে, তা কি আমরা সমর্থন করতে পারি?
 
‘তাহলে আইনের শাসনটা কীভাবে আসবে? এখন তাদের বিরুদ্ধে যদি কঠোর ব্যবস্থা না নেওয়া হয়, দেশ থেকে তো আইনটাই চলে যাবে। তারা দেশের অস্তিত্ব অস্বীকার করছে। ’
 
আরেক প্রশ্নে অ্যাটর্নি জেনারেল বলেন, লকডাউনের সময় হয়তো অনেকে আসতে পারবেন না যানবাহনে বিধিনিষেধ থাকার কারণে। যে উদ্দেশ্যে লকডাউন সেটা হলো বাসায় থাকা। তাই বাসার মধ্যে থেকে যেন কোর্ট করা যায় অর্থাৎ ভার্চ্যুয়ালি ব্যবস্থা করা হয় তাহলে সবাই উপকৃত হবে।

‘ইতিহাসের মহানায়ক’ স্মারকগ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন করে সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি এ এম আমিন উদ্দিন বলেন, জাতির জনকের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন হিসেবে তাকে আরও বেশি করে জানার প্রয়াসে এ স্মারকগ্রন্থ প্রকাশিত হয়েছে। বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির ইতিহাসে সবচেয়ে সমৃদ্ধ গ্রন্থ এটি।

অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন সমিতির সহ-সম্পাদক ইমতিয়াজ ফারুক।

এ সময় বক্তব্য দেন, সহসভাপতি মনিরুজ্জামান, সহ-সম্পাদক মোহাম্মদ বাকির উদ্দিন ভূঁইয়া, সদস্য হুমায়ুন কবির প্রমুখ।

বাংলাদেশ সময়: ১৯৩৫ ঘণ্টা, এপ্রিল ০৪, ২০২১
ইএস/ওএইচ/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa