ঢাকা, শুক্রবার, ৫ আশ্বিন ১৪২৬, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯
bangla news

তিন বিচারপতিকে বিচারকাজ থেকে বিরত রাখার সিদ্ধান্ত

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৮-২২ ৫:০৮:৫৬ পিএম
সুপ্রিম কোর্ট/ফাইল ফটো

সুপ্রিম কোর্ট/ফাইল ফটো

ঢাকা: রাষ্ট্রপতির সঙ্গে পরামর্শক্রমে প্রাথমিক অনুসন্ধানের পরিপ্রেক্ষিতে সুপ্রিম কোর্টের হাইকোর্ট বিভাগের তিন বিচারপতিকে বিচারকাজ থেকে বিরত রাখার সিদ্ধান্তের কথা জানানো হয়েছে। পরে সেই তিন বিচারপতি ছুটির আবেদন করেন।

বৃহস্পতিবার (২২ আগস্ট) এ তথ্য জানান হাইকোর্ট বিভাগের স্পেশাল অফিসার মোহাম্মদ সাইফুর রহমান।

নিজ কার্যালয়ে সুপ্রিম কোর্টের এ কর্মকর্তা  বলেন, তিনজন বিচারপতির বিরুদ্ধে প্রাথমিক অনুসন্ধানের পরিপ্রেক্ষিতে রাষ্ট্রপতির সঙ্গে পরামর্শক্রমে তাদের বিচারকাজ থেকে বিরত রাখার সিদ্ধান্তের কথা অবহিত করা হয় এবং পরবর্তীতে তারা ছুটির প্রার্থনা করেন।
 
বৃহস্পতিবার সুপ্রিম কোর্টের প্রকাশিত কজ লিস্টেও (কার্যতালিকায়) নির্ধারিত বেঞ্চে তাদের নাম ছিল না।

পরে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম বলেন, প্রধান বিচারপতি তিন বিচারপতির ব্যাপারে যে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন এটা রাষ্ট্রপতির সঙ্গে আলাপ আলোচনা করেই সিদ্ধান্তটা নিয়েছেন। আমাদের আইনজীবী যারা ছিলেন তারা সবাই চান আমাদের আদালতটা সমস্ত বিতর্কের ঊর্ধ্বে থাকুক। কারণ কারো সম্বন্ধে যেন কোনো কথা না ওঠে। অনেক আগে থেকেই বলা হচ্ছিল যে সুপ্রিম কোর্টের ভাবমূর্তি ঠিক রাখার জন্য যাতে বিচার বিভাগকে কলুষমুক্ত রাখার জন্য যে সমস্ত পদক্ষেপ নেওয়ার কথা অনেক আগে থেকেই কিন্তু বারের অধিকাংশ সদস্য দাবি জানিয়ে আসছিল। এখন প্রধান বিচারপতি এ ব্যাপারে কিভাবে কী তদন্ত করবেন অনুসন্ধান কিভাবে হবে তা ওনারাই ঠিক করবেন। রাষ্ট্রপতির সম্মতি নিয়েই তিনি এ পদক্ষেপ নিয়েছেন।

তিন বিচারপতির বিরুদ্ধে কি অভিযোগ উঠেছে এমন প্রশ্নে তিনি বলেন, অভিযোগ সেটা অনুসন্ধানের পরেই জানা যাবে। কি অভিযোগ তা জনসম্মুখে প্রকাশ করাটা আমি মনে করি বিচার বিভাগের জন্য শুভ হবে না। আর এটা সম্পূর্ণভাবে রাষ্ট্রপতি ও প্রধান বিচারপতির ব্যাপার এবং সেভাবেই দেখতে হবে।

তিন বিচারপতির নাম জানতে চাইলে তিনি বলেন, এটা আপনারা সবাই জানেন। কাদের আজ বেঞ্চ দেওয়া হয়নি। কাজেই এটা আমি আর উচ্চারণ করতে চাই না।

অনুসন্ধানটা কে করছেন জানতে চাইলে মাহবুবে আলম বলেন, এটা প্রধান বিচারপতি এবং রাষ্ট্রপতি ঠিক করবেন।

সুপ্রিম জুডিশিয়াল কাউন্সিলের মাধ্যমে হচ্ছে কিনা জানতে চাইলে অ্যাটর্নি জেনারেল বলেন, সেটাও প্রধান বিচারপতি এবং রাষ্ট্রপতিই ঠিক করবেন। বিচার বিভাগের ভাবমূর্তি সমন্নুত রাখার জন্য কি পদক্ষেপ নেবেন তা ওনারাই ঠিক করবেন।

এ নিয়ে প্রধান বিচারপতির সাথে আপনার কথা হয়েছে কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, প্রধান বিচারপতি আমাকে জানিয়েছেন তিনি এ সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। রাষ্ট্রপতির তাতে সম্মতি আছে এবং রাষ্ট্রপতির সঙ্গে আলাপ আলোচনা করেই এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

পরবর্তী পদক্ষেপের বিষয়ে অ্যাটর্নি জেনারেল বলেন, সেটা অভিযোগ কি, এ সম্বন্ধে অনুসন্ধান করে কি পদক্ষেপ নেওয়া দরকার তা রাষ্ট্রপতি আশা করি সিদ্ধান্ত নেবেন।

সূত্রমতে এ তিন বিচারপতি হলেন, বিচারপতি সালমা মাসুদ চৌধুরী, বিচারপতি কাজী রেজা-উল হক ও বিচারপতি এ কে এম জহিরুল হক।

বাংলাদেশ সময়: ১৭০৫ ঘণ্টা, আগস্ট ২২, ২০১৯/আপডেট: ১৯৪৯ ঘণ্টা
ইএস/এমএ/এএ

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-08-22 17:08:56