ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৯ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৩ আগস্ট ২০২০, ২২ জিলহজ ১৪৪১

আন্তর্জাতিক

২০৩৬ পর্যন্ত রাশিয়ার ক্ষমতায় থাকা পাকাপোক্ত করলেন পুতিন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৩১২ ঘণ্টা, জুলাই ৪, ২০২০
২০৩৬ পর্যন্ত রাশিয়ার ক্ষমতায় থাকা পাকাপোক্ত করলেন পুতিন

সংবিধানে বদল এনে ২০৩৬ সাল পর্যন্ত রাশিয়ার ক্ষমতায় থাকার ব্যবস্থা পাকাপোক্ত করেছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। ২০২৪ সালে তার চলতি শাসনামল শেষ হবে। এরপরও ৬ বছর মেয়াদকালে আরও দুইবার, অর্থাৎ ২০৩৬ সাল পর্যন্ত প্রেসিডেন্ট পদে বহাল থাকবেন তিনি।  

শনিবার (৪ জুলাই) থেকে এটি কার্যকর হবে বলে সরকারি এক প্রজ্ঞাপনে জানানো হয়েছে। শুক্রবার (৩ জুলাই) ওই প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়।

আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম রয়টার্সের এক প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা যায়।  

খবরে বলা হয়, সপ্তাহব্যাপী চলা গণভোটে ৭৮ শতাংশ মানুষ সংবিধানের ওই সংশোধনীর পক্ষে মত দেন। এটিকে পুতিনের এক বিশাল বিজয় হিসেবে দেখা হচ্ছে। যদিও সমালোচকরা বলছেন, ওই গণভোট অবৈধ ছিল। এতে প্রচুর কারচুপি করা হয়। মানুষজনকে বাধ্যও করা হয় এ সংশোধনীর পক্ষে ভোট দিতে।  

এদিকে বিশাল এই বিজয়ে রুশবাসীকে অভিনন্দন জানিয়ে পুতিন বলেছেন, রুশবাসী অন্তর থেকে অনুভব করেছেন যে, সংবিধানের যেই সংশোধনীর প্রস্তবা তোলা হয়েছে তা দরকার এবং দেশের জন্য প্রয়োজন। এই গণভোট রাষ্ট্রের দরকারি বিষয়ে মানুষের ঐক্যকেই তুলে ধরেছে।   

চলতি বছরের জানুয়ারিতে পুতিন সংবিধানের ওই বদলের প্রস্তাব তোলেন। সে সময় তিনি গণভোটের কোথাও বলেন, যদিও রুশ পার্লামেন্টে ও আদালতে তার প্রস্তাব অনুমোদিত হওয়ায় আইনত গণভোটের আয়োজন না করলেও চলতো।  

সংশোধনীর আগের সংবিধান অনুসারে এই মেয়াদকালের পর আর ক্ষমতায় থাকতে পারতেন না ভ্লাদিমির পুতিন। তাই এ গণভোটের মাধ্যমে ওই সংবিধানে বদল আনা হলো।   

বাংলাদেশ সময়: ১৩১২ ঘণ্টা, জুলাই ০৪, ২০২০ 
এইচজে

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa