bangla news

কাশ্মীরে ইন্টারনেট বন্ধের বিষয়টি রিভিউয়ের নির্দেশ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২০-০১-১০ ১১:৪৪:১৬ এএম
জম্মু-কাশ্মীর। ছবি: সংগৃহীত

জম্মু-কাশ্মীর। ছবি: সংগৃহীত

ইন্টারনেট ব্যবহার করার অধিকারও বাক স্বাধীনতার আওতায় পড়ে বলে ভারতের জম্মু-কাশ্মীরে ইন্টারনেট সেবা বন্ধ করাসহ আরোপিত নিয়ন্ত্রণমূলক ব্যবস্থাগুলো রিভিউ করার নির্দেশ দিয়েছেন সুপ্রিম কোর্ট। এক সপ্তাহের মধ্যে জম্মু-কাশ্মীর প্রশাসনকে এ রিভিউ সম্পন্ন করতে হবে।

শুক্রবার (১০ জানুয়ারি) আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম এ তথ্য জানায়।

খবরে বলা হয়, জুম্মু-কাশ্মীরে ইন্টারনেট বন্ধের বিরুদ্ধে করা পিটিশনগুলোর পর ভারতীয় সুপ্রিম কোর্ট অবিলম্বে এ বিষয়টি রিভিউ করার নির্দেশ দিয়েছেন। কারণ ইন্টারনেট বন্ধের বিষয়টি দীর্ঘদিন ধরে চলতে পারে না।

কোর্ট বলেন, স্বাধীনভাবে চলাফেরা, ইন্টারনেট ও মৌলিক স্বাধীনতা রোধ করে ক্ষমতার অবাধ প্রয়োগের চর্চা চলতে পারে না। সব নিয়ন্ত্রণমূলক ব্যবস্থা জনগণকে জানাতে হবে যেন আইনগতভাবে তা চ্যালেঞ্জ করা যায়।

বিচারপতি এনভি রামানা বলেন, ১৯ ধারা অনুযায়ী, ইন্টারনেট ব্যবহার স্বাধীনভাবে মত প্রকাশের আওতাধীন। তিনি বলেন, এ অঞ্চলের জনগণের নিরাপত্তা ও স্বাধীনতার মধ্যে সমন্বয় আনা নিয়েই আমাদের মূল উদ্বেগ। জনগণের অধিকার নিশ্চিত করাই আমাদের লক্ষ্য।

এছাড়া, ১৪৪ ধারা জারির মাধ্যমে জন সমাবেশ নিষিদ্ধ করার বিষয়েও সমালোচনা করেন কোর্ট। তিন সদস্য বিশিষ্ট এ বেঞ্চে আরও রয়েছেন বিচারপতি আর সুভাষ রেড্ডি ও বিচারপতি বি আর গাভাই।

২০১৯ সালের ৫ আগস্ট ভারতীয় সংবিধানের ৩৭০ ধারা বাতিলের মাধ্যমে জম্মু-কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা প্রত্যাহার করে মোদী সরকার। এছাড়া, ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীর ভেঙে জম্মু-কাশ্মীর ও লাদাখ আলাদা দু’টি অঞ্চলে ভাগ করা হয়েছে। এর জেরে কাশ্মীরজুড়ে বিক্ষোভের আশঙ্কায় ইন্টারনেট সেবা বন্ধ করে দেওয়া হয়।

>> ১৪৫ দিন পর ইন্টারনেট চালু হলো লাদাখে

বাংলাদেশ সময়: ১১৪৩ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১০, ২০২০
এফএম

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   ভারত কাশ্মীর
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2020-01-10 11:44:16