bangla news

এবার যুক্তরাষ্ট্রের ওপর চীনের নিষেধাজ্ঞা 

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-১২-০২ ১০:০৮:০৪ পিএম
মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প (বায়ে), চীনা প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং (ডানে)। ছবি- সংগৃহীত 

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প (বায়ে), চীনা প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং (ডানে)। ছবি- সংগৃহীত 

চীনের আপত্তি সত্ত্বেও হংকং বিক্ষোভের সমর্থনে যুক্তরাষ্ট্রের বিল পাসের প্রতিক্রিয়ায় এবারে নিউইয়র্কভিত্তিক মানবাধিকার সংস্থাগুলোর ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে বেইজিং। পাশাপাশি মার্কিন যুদ্ধজাহাজের হংকং পরিদর্শন বিষয়ক অনুরোধও নাকচ করেছে দেশটি। 

সোমবার (২ ডিসেম্বর) এক সংবাদ সম্মেলনে চীনা পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র হুয়া চানিয়িং এসব কথা বলেন। আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম থেকে এ তথ্য জানা যায়।  

হুয়া চানিয়িং বলেন, চীনের প্রবল আপত্তিসত্ত্বেও মার্কিন কর্তৃপক্ষ তথাকথিত ‘হংকং মানবাধিকার ও গণতন্ত্র অ্যাক্ট’ পাস করেছে, এটি চীনের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে ‘নাক গলানো’ ও আন্তর্জাতিক আইনের ঘোরতর লঙ্ঘন। 

‘যুক্তরাষ্ট্রের এই অযৌক্তিক পদক্ষেপের প্রতিক্রিয়ায় আমরা হংকং পরিদর্শনে মার্কিন সামরিক জাহাজের আবেদন স্থগিত করেছি। একইসঙ্গে ‘হিউমান রাইটস ওয়াচ’, ‘ন্যাশন্যাল এনডোমেন্ট ফর ডেমোক্রেসি’, ‘ইন্টারন্যাশনাল রিপাবলিকান ইন্সটিটিউট’, ‘ফ্রিডম হাউজ’সহ বেশকিছু মার্কিন বেসরকারি সংস্থার ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছি।’    

চীনা এ কূটনীতিক আরও বলেন, আমরা যুক্তরাষ্ট্রকে আহ্বান জানাই নিজেদের ভুল শুধরে নিতে ও আমাদের অভ্যন্তরীণ ব্যাপারে হস্তক্ষেপ না করতে। হংকংয়ের স্থিতিশীলতা ও সমৃদ্ধি রক্ষাসহ দেশের সার্বভৌমত্ব, নিরাপত্তা ও উন্নয়নের স্বার্থে যে পদক্ষেপই নেওয়া দরকার চীন সরকার সেসব পদক্ষেপই গ্রহণ করবে।  

হংকংয়ে দীর্ঘদিন ধরে চীনবিরোধী বিক্ষোভ চলছে। গত  বুধবার (২৭ নভেম্বর) ওই বিক্ষোভকারীদের সমর্থনে ‘দ্য হিউম্যান রাইটস অ্যান্ড ডেমোক্র্যাসি অ্যাক্ট’সহ মোট দুটি বিল পাস করে যুক্তরাষ্ট্র। এ নিয়ে বেইজিং-ওয়াশিংটনের মধ্যে নতুন করে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়েছে। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এমন সময়ে বিল দুটিতে সই করলেন যখন বিশ্বের প্রধান অর্থনৈতিক শক্তির এ দুই দেশের মধ্যে চলমান বাণিজ্য যুদ্ধ নিরসনে নতুন করে একটি চুক্তি হতে যাচ্ছিল।

বাংলাদেশ সময়: ২২০৭ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ০২, ২০১৯ 
এইচজে 

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   যুক্তরাষ্ট্র চীন
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-12-02 22:08:04