[x]
[x]
ঢাকা, মঙ্গলবার, ১০ আশ্বিন ১৪২৫, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮
bangla news

চীনে বন্যায় ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-০৭-১৪ ১:২২:২৮ এএম
বন্যা কবলিত একালা থেকে মানুষকে উদ্ধার করছে ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা। ছবি: সংগৃহীত

বন্যা কবলিত একালা থেকে মানুষকে উদ্ধার করছে ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা। ছবি: সংগৃহীত

চীনে টানা বৃষ্টিপাতের ফলে সৃষ্ট বন্যায় ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। এতে বেশ সেতু ভেঙে গেছে, সড়ক ও রেলযোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। কয়েক হাজার মানুষকে নিরাপদ আশ্রয়ে সরিয়ে নিয়েছে উদ্ধারকর্মীরা। 

শনিবার (১৪ জুলাই) দেশটিতে আরও প্রবলবর্ষণ হতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া কর্তৃপক্ষ। এছাড়া দক্ষিণ পশ্চিমাঞ্চলের সিচুয়ান প্রদেশে বন্যা ও ভূমিধসের আশঙ্কাও রয়েছে। 

চীনে প্রত্যেক বছর এসময় ভারী বৃষ্টিপাত ও বন্যায় অনেক মানুষের প্রাণহানি হয়। তবে এ বছরে এখনপর্যন্ত ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ তুলনামূলকভাবে কম। 

দেশটির জাতীয় আবহাওয়া সংস্থা বলছে, শনিবার বেশ কিছু অঞ্চলে বৃষ্টিপাতের পরিমাণ ঘণ্টায় ৮০ মিলিমিটার ছাড়িয়ে যেতে পারে। এছাড়াও তারা উত্তর-পূর্বাঞ্চলে বন্যা সতর্কতাও দিয়েছে এবং কর্তৃপক্ষকে সজাগ থাকার নির্দেশ দিয়েছে আবহাওয়া সংস্থা। 

জিয়াংশু ও সাংহাই-এর উপকূল দিয়ে চলে যাওয়া ছায়া চিয়াং নদীর পানির উচ্চতা বেড়েছে। ফলে এ নদীর অনেক উপনদীতে বন্যা দেখা দিয়েছে।

রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা সিনহুয়া শুক্রবার সংবাদ প্রকাশ করে, সিচুয়ান প্রদেশের ১০টির বেশি মহাসড়ক বন্যার কারণে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। এছাড়া প্রদেশের মিন নদীর একটি ব্রিজ ভেঙে পড়েছে। 

জরুরি ব্যবস্থাপনা মন্ত্রণালয় বলছে, প্রদেশটিতে বন্যায় ৩৫৮ মিলিয়ন মার্কিন ডলার সমমূল্যের ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। এছাড়াও পাশ্ববর্তী শহর ছুংছিং শহর থেকে ৮০ হাজারের বেশি মানুষকে নিরাপদ আশ্রয়ে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে।  

বাংলাদেশ সময়: ১১১৯ ঘণ্টা, জুলাই ১৪, ২০১৮
এএইচ/এনএইচটি 

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa