ঢাকা, রবিবার, ২২ মাঘ ১৪২৯, ০৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১৩ রজব ১৪৪৪

আন্তর্জাতিক

কর্মীর মরদেহ ফিরিয়ে দেওয়ার দাবিতে ত্রিপুরায় ডিজি অফিস ঘেরাও 

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬০০ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১, ২০২২
কর্মীর মরদেহ ফিরিয়ে দেওয়ার দাবিতে ত্রিপুরায় ডিজি অফিস ঘেরাও 

আগরতলা (ত্রিপুরা): পুলিশের মহাপরিদর্শকের (ডিজি) অফিস ঘেরাও করে বিক্ষোভ করেছে ভারতের ত্রিপুরা রাজ্যের প্রধান বিরোধী দল সিপিআইএমের নেতাকর্মীরা।  

রাজনৈতিক সংঘর্ষে নিহত হওয়া তাদের দলীয় কর্মী শহিদ মিয়ার মরদেহ ফিরিয়ে দেওয়ার দাবিতে বৃহস্পতিবার (১ ডিসেম্বর) এই বিক্ষোভ হয়।

বিক্ষোভে  নেতাকর্মীরা পুলিশের বিরুদ্ধে স্লোগান দেন। পুলিশ ক্ষমতাসীন দল বিজেপির হয়ে কাজ করছে বলে অভিযোগ করেন তারা।  

পরে শহিদ মিয়ার মরদেহ ফিরে পাওয়ার আশ্বাস পেযলে বিক্ষোভ প্রত্যাহার করে নেন সিপিআইএমের নেতারা।

বুধবার(৩০ নভেম্বর) সিপাহীজলা জেলার চরিলাম এলাকায় বিজেপি এবং বিরোধী সিপিআইএম দলের কর্মী সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।  

এই সংঘর্ষে উভয়দলের বেশ কিছু কর্মী-সমর্থক আহত হন। এদের মধ্যে সিপিআইএম দলের কর্মী শহিদ মিয়া গুরুতর আহত হন। তার অবস্থা আশঙ্কাজনক হলে উন্নত চিকিৎসার্থে স্থানীয় হাসপাতাল থেকে আগরতলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে আসা হয় ।  

চিকিৎসাধীন অবস্থায় হাসপাতালে রাতে মৃত্যু হয় শহিদের।  

শহিদ মিয়ার পরিবারের সদস্যদের অভিযোগ, মরদেহ আনতে গেলে হাসপাতালে ছিনিয়ে নেয় পুলিশ। বাধা দিতে গেলে তাদের লাঠিচার্জ করে আহত করা হয়।  

এই ঘটনার খবর পেয়ে সিপিআইএম দলের ত্রিপুরা রাজ্য কমিটির সম্পাদক জিতেন চৌধুরী, সাবেক মন্ত্রী পবিত্র করসহ দলের নেতাকর্মীরা রাজধানী আগরতলার আখাউড়া রোড এলাকার পুলিশ মহাপরিদর্শকের অফিসের সামনে বিক্ষোভ প্রদর্শন করেন।  

তাদের দাবি, শহিদের মরদেহ পরিবারের হাতে দ্রুত ফিরিয়ে দিতে হবে, যাতে ধর্মীয় রীতি মেনে মৃতের শেষকৃত্য সম্পন্ন করতে পারেন স্বজনরা।

সিপিআইএমের  রাজ্য সম্পাদক জিতেন চৌধুরী অভিযোগ করে বলেন, চরিলামের ঘটনাটি সংঘটিত হয়েছে ত্রিপুরা রাজ্যের উপমুখ্যমন্ত্রী এবং স্থানীয় বিধায়ক যীষ্ণু দেব বর্মনের নির্দেশে। এই ঘটনার জন্য তীব্র নিন্দা জানাই।  

বাংলাদেশ সময়: ১৬০০ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১, ২০২২
এসসিএন/এসএএইচ
 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa