ঢাকা, শনিবার, ৫ ভাদ্র ১৪২৯, ২০ আগস্ট ২০২২, ২১ মহররম ১৪৪৪

ভারত

পিকে হালদারদের ১৫ দিনের জেসি, দ্রুত দেওয়া হচ্ছে চার্জশিট

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৪০৮ ঘণ্টা, জুলাই ৫, ২০২২
পিকে হালদারদের ১৫ দিনের জেসি, দ্রুত দেওয়া হচ্ছে চার্জশিট

কলকাতা: বাংলাদেশি পিকে হালদার ও তার সহযোগীদের আবারও ১৫ দিনের জুডিশিয়াল কাস্টডির (জেসি) রায় দিল কলকাতার নগর দায়রা আদালত। পাশাপাশি একইভাবে জেলে গিয়ে ইডি যাতে তাদের জেরা করতে পারে, সেই অনুমতিতেও মঙ্গলবার (৫ জুলাই) সম্মতি দিয়েছেন বিচারক জীবন কুমার সাধু।

অর্থাৎ পিকে হালদারদের আবার ২০ জুলাই আদালতে হাজিরা দিতে হবে। পাশাপাশি এদিন পিকের সহযোগীদের জামিন খারিজ করে দেন বিচারক।

পাশাপাশি জানা গেছে, আগামী দিন পিকে হালদার ও তার সহযোগীদের বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশিট পেশ করা হবে। অর্থাৎ এতদিনে তদন্তে যা উঠে এসেছে তা সমস্ত তথ্য সম্পূর্ণরূপে আদালতে পেশ করা হবে।

এ বিষয়ে ইডির আইনজীবী অরিজিৎ চক্রবর্তী বলেন, হালদারদের ১৫ দিনের জন্য জেসি হয়েছে। তদন্তের কাজ খুব দ্রুত এগোচ্ছে। আগামী ২০ জুলাই তাদের বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশিট পেশ করা হবে। এর পাশাপাশি তিনি বলেন, তদন্তে পশ্চিমবঙ্গের কিছু প্রভাবশালী ব্যক্তির নাম উঠে এসেছে। সেই নামগুলোও চার্জশিটে দেওয়া হচ্ছে।

তবে বাংলাদেশের কোনও প্রভাবশালীর নাম উঠে এসেছে কিনা, উত্তরে ইডির আইনজীবী বলেন, 'এই মামলায় তা প্রকাশ পাচ্ছে না। ' অপর এক প্রশ্নের উত্তরে ইডির আইনজীবী বলেন, 'বাংলাদেশ থেকে সরকারিভাবে ইডির সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়নি। ফলে আগামীতে পিকে হালদার বাংলাদেশে নিয়ে যাওয়া হবে কিনা, তা ইডি বলতে পারবে না। ’

হালদারদের বিরুদ্ধে দুটি মামলা দেওয়া হয়েছে। প্রথমটি অবৈধ অর্থপাচার আইন, দ্বিতীয়টি দুর্নীতি প্রতিরোধ আইন। তবে ইডি সূত্রই জানা যাচ্ছে, আগামী ২০ জুলাই এই মামলার রায় ঘোষণা হয়ে গেলে, আবার নতুন করে একটি মামলা করতে পারে ইডি বা ভারতীয় কেন্দ্রীয় গোয়েন্দ বাহিনীর অন্য কোনও সংস্থা। তাতে আসছে বাংলাদেশের প্রভাবশালীদের নাম।

এদিন স্থানীয় সময় সকাল ১১টা সময় কলকাতার ব্যাঙ্কশাল কোর্টে নিয়ে আসা হয়। এরপর বেলা ১২টার দিকে ব্যাঙ্কশাল কোর্টের অন্তর্গত নগর আদালতের সিবিআই তিন নম্বর কক্ষে হালদারদের বিচার ব্যবস্থা শুরু হয়। তবে উল্লেখযোগ্য বিষয় হলো এদিন আসামিপক্ষের কোনো আইনজীবী উপস্থিত ছিলেন না। ফলে আগামী ২০ জুলাই হালদারদের বিপক্ষে আদালতে ইডি চার্জশিট পেশ করলে তা কিন্তু খুবই গুরুত্বপূর্ণ হতে চলেছে। কারণ ওইদিন পিকেদের বিরুদ্ধে বিচারক পূর্ণ রায় দিতে পারেন এবং পশ্চিমবঙ্গের প্রভাবশালীদের নাম সামনে আসতে পারে।

বাংলাদেশের কোটি কোটি টাকা আত্মসাৎ করা পিকে হালদার এবং তার পাঁচ সহযোগীকে গত ১৪ মে পশ্চিমবঙ্গের উত্তর ২৪পরগনার অশোকনগর থেকে গ্রেফতার করে ইডি। এরপর ১৪ দিন ইডির রিমান্ডে থাকার পর, গত ২৭মে আদালতের রায় অনুযায়ী, বিচার বিভাগীয় তদন্তের কারণে ১১ দিনের জুডিশিয়াল কাস্টডি (জেসি) হয় পিকেদের। ঠিক একইভাবে ৭ জুন আদালতে তোলা হলে তাদের বিরুদ্ধে ১৪ দিনের জেসি হয়। গত মঙ্গলবার (২১জুন) আদালতের রায় অনুযায়ী আর ১৪ দিনের জেসি হয়। এরপর এদিন অর্থাৎ মঙ্গলবার (৫ জুলাই) আদালতে রায় অনুযায়ী, আগামী ২০ জুলাই হালদারদের হাজিরা দিতে হবে আদালতে।

বাংলাদেশ সময়: ১৪০৭ ঘণ্টা, জুলাই ০৫, ২০২২
ভিএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa