ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৬ ফাল্গুন ১৪৩০, ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৮ শাবান ১৪৪৫

ভারত

ভারতের রাজ্যসভায় পশ্চিমবঙ্গের ৫ প্রার্থী চূড়ান্ত

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১০৪৬ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ১২, ২০২৪
ভারতের রাজ্যসভায় পশ্চিমবঙ্গের  ৫ প্রার্থী চূড়ান্ত

কলকাতা: ভারতের রাজ্যসভার ১৫ রাজ্যের ৫৬টি রাজ্যসভার মেয়াদ শেষ হতে চলেছে চলতি বছরের এপ্রিল মাসে। তারমধ্যে রয়েছে পশ্চিমবঙ্গের ৫ আসন।

ওই পাঁচ আসনের মধ্যে চারটি তৃণমূলের এবং একটি বিজেপির। চার আসনে তৃণমূলের প্রার্থীরা হলেন নাদিমুল হক, বণঁগার মতুয়া বাড়ির বউ মমতাবালা ঠাকুর, সুস্মিতা দেব এবং জনপ্রিয় সাংবাদিক সাগরিকা ঘোষ। এদের মধ্যে সাগরিকা ঘোষকে নিয়েই সবচেয়ে কৌতূহল তৈরি হয়েছে।

সাংবাদিক সাগরিকা ঘোষ, দিল্লিতে সংবাদপত্র ও টেলিভিশনে বহুদিন ধরে সাংবাদিকতা করছেন। তাছাড়া একটি ন্যাশনাল নিউজ চ্যানেলের প্রেজেন্টারও ছিলেন। এছাড়া সাবেক দুই প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধী ও অটলবিহারী বাজপেয়ীর জীবন নিয়ে দুটি বই লিখেছিলেন সাগরিকা। একটির নাম ইন্দিরা: ইন্ডিয়াস মোস্ট পাওয়ারফুল প্রাইম মিনিস্টার, অন্যটি হল ‘অটল বিহারী বাজপেয়ী’।

অন্যদিকে নাদিমুল হকও সংবাদ জগতের সঙ্গে যুক্ত। কলকাতার একটি দৈনিক সংবাদপত্রের সম্পাদক পদে রয়েছেন তিনি। বর্তমান রাজ্যসভার সাংসদ রয়েছেন নাদিমুল। মমতার বালা ঠাকুর একজন মতুয়া সম্প্রদায়ের নেত্রী। তাই আসন্ন লোকসভার নির্বাচনে মতুয়া ভোটের কথা মাথায় রেখেই মমতা বালাকে রাজ্যসভায় মনোনয়ন দেওয়ার কথা ঘোষণা করলেন তৃণমূল নেত্রী। এছাড়া ২০২১ সালে কংগ্রেস ছেড়ে তৃণমূলে যোগদান করেন সুস্মিতা দেব।

রোববার(১১ ফেব্রুয়ারি) রাজ্যসভা ভোটের প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। রাজ্যসভায় তৃণমূলের টিকিটে বর্তমান সাংসদরা হলেন নাদিমুল হক, শুভাশিস চক্রবর্তী, শান্তনু সেন ও আবির বিশ্বাস। নাদিমুল ছাড়া বাকী নতুন তিনজনকে প্রার্থী করেছেন মমতা।

অপরদিকে, বিজেপির একটি আসনের জন্য অমিত শাহ-জেপি নাড্ডারা বেছে নিয়েছেন শমীক ভট্টাচার্যকে। শমীক বহুদিনের বিজেপি কর্মী ও নেতা। একজন সুবক্তা। বর্তমানে তিনি পশ্চিমবঙ্গ বিজেপির প্রধান মুখপাত্র।

উল্লেখ্য, ভারতের রাজ্যসভার হিসেব অনুয়ায়ী, প্রতি ৪৫ জন বিধায়ক সমান একজন রাজ্যসভার সাংসদ। ২৯৪ আসনে পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভা ভোটের ফল অনুযায়ী, তৃণমূলের জয়ী বিধায়কের সংখ্যা ২১৭ জন। বিজেপির ৭৭ জন। যদিও পরবর্তীতে বিজেপি ছেড়ে কয়েকজন তৃণমূলে যোগ দিয়েছেন। ফলে সেই অঙ্ক অনুযায়ী, রাজ্যসভায় তৃণমূলের ৪টি আসন এবং বিজেপির একটি আসন। রাজ্যসভার নিয়ম অনুযায়ী, মনোনীত প্রার্থীদের ভোট দেয় সংশ্লিষ্ট রাজ্যের জয়ী বিধায়করা। ফলে যারা মনোনয়ন পেয়েছেন তাদের জয় পাওয়া শুধু সময়ের অপেক্ষা। এই আসনগুলিতে ভোট নেওয়া হবে আগামী ২৭ ফেব্রুয়ারি।

বাংলাদেশ সময়: ১০৪৫ ঘণ্টা, ১২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
ভিএস/এমএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।