ঢাকা, শুক্রবার, ১০ আশ্বিন ১৪২৭, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৬ সফর ১৪৪২

রাজনীতি

জনসংহতি সমিতির কেন্দ্রীয় সভাপতি তাতিন্দ্র চাকমা মারা গেছেন

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১২৩৪ ঘণ্টা, আগস্ট ১৩, ২০২০
জনসংহতি সমিতির কেন্দ্রীয় সভাপতি তাতিন্দ্র চাকমা মারা গেছেন

খাগড়াছড়ি: পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির (এমএন লারমা গ্রুপ) কেন্দ্রীয় সভাপতি তাতিন্দ্র লাল চাকমা ওরফে মেজর পেলে (৭২) মারা গেছেন।

বৃহস্পতিবার (১৩ আগস্ট) সকাল সাড়ে ৯টায় চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

তিনি দীর্ঘদিন ধরে বার্ধক্যজনিত রোগে ভুগছিলেন। তার মৃত্যুতে নেতাকর্মীদের মধ্যে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। মৃত্যুকালে তিনি দুই ছেলে, এক মেয়ে ও স্ত্রীসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

গত ৩ আগস্ট অসুস্থ হলে তাকে প্রথমে খাগড়াছড়ি সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে গত ৮ আগস্ট তাকে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।

এর আগে গত ৯ জুন বার্ধক্যজনিত কারণে মারা যান দলটির অপর শীর্ষনেতা সুধাসিন্ধু খীসা।

সাবেক এ গেরিলা নেতা অবিভক্ত পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা সদস্য ছিলেন। দুই দশকেরও বেশি সময় ধরে সশস্ত্র আন্দোলনে নেতৃত্বদানকারীদের মধ্যে অন্যতম তিনি। তাতিন্দ্র লাল চাকমা ওরফে মেজর পেলে পার্বত্য চট্টগ্রাম শান্তিচুক্তি স্বাক্ষরের আগ পর্যন্ত সন্তু লালমার নেতৃত্বাধীন জনসংহতি সমিতির সশস্ত্র শাখা ‘শান্তিবাহিনীর’ সহকারী ফিল্ড কমান্ডারের দায়িত্ব ছাড়াও চুক্তির পরে প্রকাশ্য রাজনীতিতে প্রভাবশালী ভূমিকা পালন করেন।

পার্বত্য চট্টগ্রাম চুক্তি সই হওয়ার পর জনসংহতি সমিতি মূলধারার রাজনীতিতে আবির্ভূত হলেও পরবর্তী সময়ে দলে মতবিরোধ দেখা দেয়। এর জেরে সন্তু লারমার নেতৃত্ব থেকে বেরিয়ে ২০০৯ সালে জনসংহতি সমিতির আরেকটি অংশ সৃষ্টি হয়। সেটির আহ্বায়ক কমিটির সদস্য সচিব ছিলেন।

সর্বশেষ গত ১৮ ফেব্রুয়ারি জনসংহতি সমিতির জাতীয় সম্মেলনে কেন্দ্রীয় সভাপতি নির্বাচিত হয়েছিলেন।

এদিকে, জনসংহতি সমিতির (এমএন লারমা) একাধিক সূত্রের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, কেন্দ্রীয় সভাপতি তাতিন্দ্র লাল চাকমার মৃত্যুর ঘটনায় সাংগঠনিক সিদ্ধান্ত অনুযায়ী আপাতত সংগঠনটির কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি সুভাষ কান্তি চাকমা ওরফে পরিচয় ভারপ্রাপ্ত সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন।

পার্টিও কেন্দ্রীয় তথ্য ও প্রচার সম্পাদক সুধাকর ত্রিপুরা বলেন, পার্টির প্রাথমিক সিদ্ধান্ত অনুযায়ী বিকেলে পারিবারিভাবে খাগড়াড়ির দীঘিনালায় দাহক্রিয়া সম্পন্ন করা হবে।

বাংলাদেশ সময়: ১২২২ ঘণ্টা, আগস্ট ১৩, ২০২০
এডি/ওএইচ/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa