ঢাকা, সোমবার, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৩ মে ২০২২, ২১ শাওয়াল ১৪৪৩

জাতীয়

নির্মাণ শ্রমিকদের দক্ষতা বাড়াতে কিং ব্র্যান্ড সিমেন্টের ‘রাজসভা’

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১৫৩ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৪, ২০২২
নির্মাণ শ্রমিকদের দক্ষতা বাড়াতে কিং ব্র্যান্ড সিমেন্টের ‘রাজসভা’ কিং ব্র্যান্ড সিমেন্টের ‘রাজসভা’। ছবি: জি এম মুজিবুর

ঢাকা: দেশের নির্মাণ শ্রমিকদের দক্ষতা ও সচেতনতা বাড়াতে ‘রাজসভা’ শীর্ষক এক কর্মশালার আয়োজন করেছে শীর্ষস্থানীয় শিল্পগোষ্ঠী বসুন্ধরা গ্রুপের প্রতিষ্ঠান কিং ব্র্যান্ড সিমেন্ট। কর্মশালায় নিরাপদে বাড়ি নির্মাণে বিভিন্ন দিক-নির্দেশনা দেওয়া হয়।

সোমবার (২৪ জানুয়ারি) রাজধানীর পুরান ঢাকার বংশালে আরমানিটোলা কণা পার্টি সেন্টারে কিং ব্র্যান্ড সিমেন্ট আয়োজিত এ কর্মশালায় নির্মাণ শ্রমিক, ডিলার, রিটেইলারসহ প্রায় শতাধিক মানুষ অংশ নেন।

কর্মশালায় স্থাপনা নির্মাণ কৌশল ও নির্মাণ সংক্রান্ত বিভিন্ন পরামর্শ উপস্থাপন করেন বিশেষ অতিথি ঢাকা ন্যাশনাল মেডিক্যাল কলেজের প্রকৌশল বিভাগের প্রধান প্রকৌশলী মো. ফাইকুজ্জামাস রাসেল।

তিনি বলেন, নির্মাণ শ্রমিকদের জন্য বড় বড় স্থাপনা করতে পারছি। নির্মাণ কাজ করতে সংশ্লিষ্ট শ্রমিকদের কাজ, নির্মাণসামগ্রী সম্পর্কে ধারণা থাকা প্রয়োজন। নির্মাণ কাজে ভালো সিমেন্ট গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। ভালো সিমেন্ট দিয়ে কাজ করলে স্থাপনা দীর্ঘস্থায়ী হয়। তাই নির্মাণ কাজে ভালো সিমেন্ট নির্বাচন করা গুরুত্বপূর্ণ। বসুন্ধরা গ্রুপের কিং ব্র্যান্ড সিমেন্ট মানে ও গুণে সেরা। এছাড়া গুণগত মান বজায় রেখে দেশের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনাগুলোতে কিং ব্র্যান্ড সিমেন্টের অবদানের প্রশংসা করেন তিনি।  

কর্মশালায় নির্মাণের বিভিন্ন কৌশল নিয়ে প্রেজেন্টেশন উপস্থাপন করেন প্রকৌশলী সুখদেব হাওলাদার।  

তিনি বলেন, ১৯৯২ সালে দেশে বেসরকারি খাতে প্রথম বাজারে আসে বসুন্ধরা গ্রুপের কিং ব্র্যান্ড সিমেন্ট। সবচেয়ে ভালো টেকনোলজি দিয়ে তৈরি হয় বসুন্ধরা গ্রুপের কিং ব্র্যান্ড সিমেন্ট। তার উপস্থাপনায় কীভাবে নিরাপদে নির্মাণ কাজ করা যায় সে বিষয়ে বিভিন্ন দিক-নির্দেশনা এবং নির্মাণ সংক্রান্ত প্রয়োজনীয় পরামর্শ দেন।  

এ সময় রড বাঁধা, বালু, খোয়া, সিমেন্ট, হেলমেট, হ্যান্ডগ্লাভস, গামবুটের ব্যবহার বিধি বিষয়ে প্রজেক্টরের মাধ্যমে দেখানো হয়। একই সঙ্গে মানসম্মত রড চেনার উপায়ও দেখানো হয় প্রেজেন্টেশনে।

কিং ব্র্যান্ড সিমেন্টের এজিএম (সেলস) মোহাম্মদ আলী খান বলেন, নির্মাণ কাজের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হলো সিমেন্ট। আর সেই সিমেন্ট ভোক্তা পর্যায়ে পৌঁছাতে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে নির্মাণ শ্রমিক বা রাজমিস্ত্রী। কিং ব্র্যান্ড সিমেন্ট বসুন্ধরা গ্রুপের সিমেন্ট। এ গ্রুপের প্রতিটি পণ্য দেশের শীর্ষস্থানীয়। সিমেন্টও একটি শীর্ষস্থানীয় পণ্য। আর এটা সম্ভব হয়েছে রাজমিস্ত্রীদের আন্তরিক চেষ্টায়। এজন্য বসুন্ধরা গ্রুপ কর্মক্ষেত্রে দুর্ঘটনার স্বীকার ক্ষতিগ্রস্ত শ্রমিকদের পাশে দাঁড়াতে চায়।

অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণকারী রাজমিস্ত্রীরা কিং ব্র্যান্ড সিমেন্ট ব্যবহার করে তাদের কাজের বাস্তব অভিজ্ঞতা ও তাদের নির্ভরতার কথা উল্লেখ বলেন, কিং ব্র্যান্ড সিমেন্ট সবচেয়ে ভালো সিমেন্ট। এ সিমেন্ট সহজে পানিতে মিশে যায়। এ সিমেন্ট মানে ও গুণে ভালো। গত ২০ থেকে ২৫ বছর ধরে কাজ করছি। এ সিমেন্ট ব্যবহারের ফলে কোনো অভিযোগ আসেনি। এ সিমেন্ট মানুষের আস্থা অর্জন করতে সক্ষম হয়েছে।

প্রসঙ্গত, বর্তমানে দেশের বিভিন্ন প্রকল্প যেমন: সপ্তম বাংলাদেশ-চীন মৈত্রী সেতু, রামপাল বিদ্যুৎকেন্দ্র, বসুন্ধরা সিটি কমপ্লেক্স, রূপসা সেতু, গঙ্গাচড়া শেখ হাসিনা সেতু, বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়, বেকুটিয়া ব্রিজ প্রকল্পের মতো বড় প্রকল্পে ব্যবহৃত হচ্ছে কিং ব্র্যান্ড সিমেন্ট।

কর্মশালায় উপস্থিত ছিলেন বংশাল এলাকার অন্যতম ব্যবসায়ী মেসার্স ভাই ভাই এন্টারপ্রাইজ এর কর্ণধার জসীম উদ্দীন এবং খান ট্রেডার্সের প্রোপাইটার মো. মনির হোসেন।

তারা উপস্থিত সব রাজমিস্ত্রীদের সঙ্গে আন্তরিক শুভেচ্ছা বিনিময় করেন ও কিং ব্র্যান্ড সিমেন্টের সঙ্গে তার দীর্ঘ দিনের ব্যবসার অভিজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন বসুন্ধরা গ্রুপের সিনিয়র এক্সিকিউটিভ ব্র্যান্ড মো. সিহাব উদ্দীন, কিং ব্র্যান্ড সিমেন্টের টেকনিক্যাল সাপোর্টের এক্সিকিউটিভ ইঞ্জিনিয়ার শাহানশাহ প্রমুখ।

বাংলাদেশ সময়: ২১৫৩ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৪, ২০২২
জিসিজি/আরআইএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa