ঢাকা, শনিবার, ৮ মাঘ ১৪২৮, ২২ জানুয়ারি ২০২২, ১৮ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

জাতীয়

১০জন শ্রেষ্ঠ স্বেচ্ছাসেবককে সম্মাননা দিল রেড ক্রিসেন্ট

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১২২০ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৬, ২০২১
১০জন শ্রেষ্ঠ স্বেচ্ছাসেবককে সম্মাননা দিল রেড ক্রিসেন্ট ...

কক্সবাজার: কক্সবাজারে আন্তর্জাতিক স্বেচ্ছাসেবক দিবসে ১০জন শ্রেষ্ঠ স্বেচ্ছাসেবককে সম্মাননা দিয়েছে বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি, কক্সবাজার ইউনিট।

রোববার (৫ ডিসেম্বর) বিকেলে ইউনিট ভবনে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

 

স্বেচ্ছাসেবকদের কাজকে আনুষ্ঠানিকভাবে স্বীকৃতি দেওয়ার জন্য প্রতি বছর ৫ ডিসেম্বর সারা বিশ্বে দিবসটি পালন করা হয়।  

এ বছর দিবসটির প্রতিপাদ্য ছিল ‘আমাদের সাধারণ ভবিষ্যতের জন্য এখনই স্বেচ্ছাসেবক’। সবাই মিলে একত্রে এই পৃথিবীকে আরও উন্নত এবং আরও শান্তিপূর্ণ জায়গা হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করার জন্য স্বেচ্ছাসেবকদের প্রতিশ্রুতি ও চেষ্টা সবসময় অব্যাহত থাকবে।

অনুষ্ঠানে দিবসের গুরুত্বের ওপর অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন ইউনিটের ভাইস-চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট আয়াছুর রহমান।  

এর আগে সকাল ৯টায় কক্সবাজার রেড ক্রিসেন্ট ইউনিটের সামনে আনুষ্ঠানিকভাবে জাতীয় ও রেড ক্রিসেন্ট পতাকা উত্তোলনের মধ্যদিয়ে দিবসের কর্মসূচির শুভ সূচনা হয়। পতাকা উত্তোলন করেন যথাক্রমে ইউনিটের ভাইস-চেয়ারম্যান অ্যাড. আয়াছুর রহমান ও ইউনিট সেক্রেটারি জনাব খোরশেদ আলম।  

সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান লে. কর্নেল (অব.) ফোরকান আহম্মদ, অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সোসাইটির পরিচালক এবং পিএমও প্রকল্পের হেড অব অফিস এম এ হালিম।  

এছাড়াও আইসিআরসি, আইএফআরসি এবং বিভিন্ন ন্যাশনাল পার্টনার সোসাইটির প্রতিনিধিসহ অত্র ইউনিটের সাবেক যুব প্রধানগণ উপস্থিত ছিলেন।  

সভায় বক্তারা রেড ক্রস ও রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির বিশ্বব্যাপী স্বেচ্ছাসেবকদের মাধ্যমে পরিচালিত কাজের ভূয়সি প্রশংসা করেন। প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন, বর্তমান সময়ে কক্সবাজার রেড ক্রিসেন্ট ইউনিটের স্বেচ্ছাসেবকদের মানবসেবামূলক কাজ সবার দৃষ্টি কাড়তে সক্ষম হয়েছে।  

আন্তর্জাতিক স্বেচ্ছাসেবক দিবসের অনুষ্ঠানে কক্সবাজার ইউনিটের ১০জন যুব স্বেচ্ছাসেবককে তাদের কাজের স্বীকৃতি হিসেবে শ্রেষ্ঠ স্বেচ্ছাসেবকের সম্মাননা দেওয়া হয়।

উল্লেখিত অনুষ্ঠানগুলোতে ইউনিট কার্যনিবার্হী কমিটির সদস্য জাহাঙ্গীর আলম, প্রফেসর আবদুর রহিম, সোসাইটির উপ-পরিচালক ও এমআরআরও প্রকল্পের ইনচার্জ আফসার উদ্দিন সিদ্দিকি, সোসাইটির সহকারী পরিচালক ও ইউনিট কর্মকর্তা আজরু উদ্দিন সাফ্দার, এমআরআরও প্রকল্পের প্রোগ্রাম ম্যানেজার কেরামত উল্যা, ইউনিটের যুব প্রধান আসিফ রায়হান কাফিসহ প্রায় দুই শতাধিক যুব স্বেচ্ছাসেবক উপস্থিত ছিলেন।

বাংলাদেশ সময়: ১২১৮ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ০৬, ২০২১
এসবি/আরএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa