ঢাকা, সোমবার, ২০ আষাঢ় ১৪২৯, ০৪ জুলাই ২০২২, ০৪ জিলহজ ১৪৪৩

আন্তর্জাতিক

ভ্লাদিমির পুতিনের ব্লাড ক্যানসার!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১১২১ ঘণ্টা, মে ১৬, ২০২২
ভ্লাদিমির পুতিনের ব্লাড ক্যানসার! ভ্লাদিমির পুতিন

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন গুরুতর অসুস্থ বলে দাবি করেছেন ব্রিটেনের সাবেক এক গুপ্তচর। কিন্তু তিনি আসলে কোন রোগে ভুগছেন তা পরিষ্কার নয়।

তবে, লৌহ মানব হিসেবে পরিচিত পুতিন ব্লাড ক্যানসারে আক্রান্ত বলে ধারণা করছেন তার এক ঘনিষ্ঠ।

স্কাই নিউজের এক প্রতিবেদনের বরাত দিয়ে এ তথ্য জানিয়েছে ভারতীয় সম্প্রচার মাধ্যম এনডিটিভি অনলাইন। এতে বলা হয়, স্কাই নিউজকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে সাবেক ব্রিটিশ গুপ্তচর ক্রিস্টোফার স্টিল বলেন, পুতিন অসুস্থ। কিন্তু তিনি আদতে কোন রোগে আক্রান্ত, তা নিরাময়যোগ্য নাকি স্থায়ী কোনো কিছুই পরিষ্কার নয়।

রাশিয়া ও অন্যান্য সূত্র থেকে পুতিনের অসুস্থতার ব্যাপারে জানতে পেরেছেন বলে সাক্ষাৎকারে উল্লেখ করেন ক্রিস্টোফার। তিনি বলেন, আমরা শুনেছি পুতিন গুরুতর অসুস্থ। রাশিয়ান নেতার সঙ্গে ঘনিষ্ঠ একজন ধনকুবের জানিয়েছেন, রুশ প্রধান ব্লাড ক্যান্সারে আক্রান্ত।

এ ছাড়া এক রেকর্ডিংয়ে ওই রুশ অলিগার্চকে একজন পশ্চিমা ব্যবসায়ীর সঙ্গে পুতিনের স্বাস্থ্য নিয়ে আলোচনা করতে শোনা গেছে।

দুজনের আলোচনা থেকে শোনা যায়, ব্লাড ক্যান্সারের কারণে রুশ নেতার সার্জারি হয়েছে। ইউক্রেনে যুদ্ধ শুরুর আগে এ সার্জারি করা হয়। অসুস্থতার কারণে পুতিন মারা যাবেন বলেও ধারণা করছেন ওই ব্যক্তি।

পুতিনকে পাগল উল্লেখ করে পশ্চিমা ব্যবসায়ীকে তিনি আরও জানান, রাশিয়া-ইউক্রেনসহ অনেক দেশের অর্থনীতি ধ্বংস করেছেন পুতিন। তার মাথায় সমস্যা, একজন পাগল মানুষ পৃথিবীকে উল্টে দিতে পারে বলেও তিনি মন্তব্য করেন।

মার্কিন সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের ওপর তথ্যপঞ্জি লিখে আলোচনায় এসেছিলেন ক্রিস্টোফার স্টিলে। এ ছাড়া তার ২০১৬ সালের মার্কিন নির্বাচনী প্রচারে রাশিয়ান হস্তক্ষেপের অভিযোগ ব্যাপক সাড়া ফেলে।

পুতিনের অসুস্থতার বিষয়টি মূলত আলোচনায় আসে ইউক্রেনে যুদ্ধ শুরু হওয়ার পর। জল্পনা আরও বাড়ে গত সপ্তাহে দেশটির বিজয় দিবসসহ বিভিন্ন আয়োজনে। এসব অনুষ্ঠানে পুতিনের ‘দুর্বল’ উপস্থিতি আলোচনার জন্ম দেয়।  

মস্কোর রেড স্কয়ারে একটি অনুষ্ঠানে যোগ দিয়েছিলেন প্রেসিডেন্ট পুতিন। তাকে একটি চেয়ারে বসে থাকতে দেখা যায় যেখানে তার পা সবুজ কাপড়ে ঢাকা ছিল। এ সময় পুতিনকে বিমর্ষ দেখা গিয়েছে। এ থেকে ধারণা করা হয়, তিনি অসুস্থ। এ ছাড়া সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোয় ছড়িয়ে পড়া কিছু ছবিও বলে দিচ্ছে অসুস্থতার মধ্য দিয়ে যাচ্ছেন পুতিন।

রাশিয়ান অনুসন্ধানী গণমাধ্যম দ্য প্রজেক্টের প্রতিবেদনে বলা হয়, গুজব আছে, ক্যানসার ছাড়াও ৭০ বছর বয়সী পুতিনের পারকিনসন-সহ অন্যান্য গুরুতর রোগ রয়েছে। তিনি নিজের স্বাস্থ্যের ব্যাপারে এতটাই উদ্বিগ্ন যে অপ্রচলিত এবং আদিম থেরাপিও নিয়েছেন। হরিণের শিংয়ের রক্তেও তিনি গোসল করেছেন।

পুতিনের ক্যানসারে আক্রান্ত ও তার সম্ভাব্য অস্ত্রপচার নিয়ে এর আগেও প্রতিবেদন প্রকাশ করেছিল মার্কিন সংবাদমাধ্যম নিউইয়র্ক পোস্ট। এতে উল্লেখ করা হয়, অস্ত্রপচার চলাকালীন পুতিন সাময়িকভাবে রাশিয়ার নিরাপত্তা পরিষদের সচিব নিকোলাই প্যাটরুশেভের কাছে ক্ষমতা হস্তান্তর করতে পারেন।

পশ্চিমাবিশ্বের গণমাধ্যমে ভ্লাদিমির পুতিনের অসুস্থতা নিয়ে সংবাদ প্রকাশ হলেও রাশিয়া এখন পর্যন্ত এ ব্যাপারে কোনো মন্তব্য করেনি।

সূত্র: এনডিটিভি

বাংলাদেশ সময়: ১১২৫, মে ১৬, ২০২২
এমজে

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa