ঢাকা, সোমবার, ৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮, ১৭ মে ২০২১, ০৪ শাওয়াল ১৪৪২

আন্তর্জাতিক

দশ হাজারের বেশি মানুষকে গ্রেপ্তার করেছে হংকং পুলিশ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৪৫৫ ঘণ্টা, এপ্রিল ১৩, ২০২১
দশ হাজারের বেশি মানুষকে গ্রেপ্তার করেছে হংকং পুলিশ

হংকং পুলিশ গত ২০ মাসে সরকার বিরোধী বিক্ষোভের ঘটনায় ১০,২০০ জনেরও বেশি লোককে গ্রেপ্তার করেছে। বেইজিং সমর্থিত কর্তৃপক্ষ ভিন্নমত দমনের যে অভিযান শুরু করেছে, এটা তারই অংশ।

 

সাউথ চায়না মর্নিং পোস্টের খবর অনুযায়ী, ৬০০ জনেরও বেশি মানুষ ইতিমধ্যে দোষী সাব্যস্ত হয়েছেন। সেসময় সামাজিক অস্থিরতায় জড়িত থাকার সন্দেহে ২৬ জন সরকারি কর্মচারীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল বা তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হয়েছিল।

বৃহস্পতিবার বিচার বিভাগ, সিভিল সার্ভিস ব্যুরো এবং সাংবিধানিক ও মূল ভূখণ্ড বিষয়ক ব্যুরো আইন প্রণেতাদের কাছে প্রকাশিত কাগজপত্রে এই পরিসংখ্যান প্রকাশ করেছে।

গ্রেপ্তার হওয়া ১০,২৪২ জনের মধ্যে ২,৫২১ জন দাঙ্গার অভিযোগে অভিযুক্ত। বাকিদের বিরুদ্ধে বেআইনী সমাবেশ, অগ্নিসংযোগ, জাতীয় পতাকা অপবিত্র করা, আক্রমণাত্মক অস্ত্র রাখা, একজন পুলিশ কর্মকর্তাকে লাঞ্ছিত করা এবং এক্সপ্রেসওয়েতে গাড়ি থামানোর মতো অপরাধের অভিযোগ আনা হয়েছে।

বিচার বিভাগ জানায়, যে ২,৫২১ জন গ্রেপ্তার হয়েছে বা বিচারিক কার্যক্রম চলছে, তাদের মধ্যে ৮৮৩ জনকে আইনগত পরিণতি ভোগ করতে হবে- যার মধ্যে ৬১৪ জন দোষী সাব্যস্ত হয়েছে, ২৬১ জন জেলে এবং চারজনকে আদালত অবমাননার দায়ে দেওয়ানি প্রক্রিয়ায় শাস্তি দেওয়া হয়েছে।

আরও ৫০ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রত্যাহার করা হয়েছে এবং বিচারের পর আরও ১৮৬ জনকে খালাস দেওয়া হয়েছে, আর বাকিদের বিচারিক কার্যক্রম চলছে।

সিভিল সার্ভিস ব্যুরো অনুসারে, শহরের ১,৭০,০০০ এরও বেশি সরকারি কর্মচারীর মধ্যে ২৬ জনের বিরুদ্ধে তদন্ত করা হচ্ছে বা তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হয়েছে।  

২০১৯ সালের জুন মাসে প্রত্যর্পণ বিল নিয়ে বিক্ষোভ শুরু হয়। বিলটি হংকংয়ে চীনা প্রভাব বৃদ্ধির উদাহরণ হিসাবে বিবেচিত হয়েছিল।

২০১৯ সালের জুন মাসে প্রত্যাহার করা প্রত্যর্পণ বিলের ফলে কয়েক মাসের বিক্ষোভে হংকং কেঁপে ওঠে।

ওই বিল প্রত্যাহার করা হলেও বেইজিংকে গত জুনে হংকংয়ের ওপর একটি জাতীয় নিরাপত্তা আইন আরোপ করেছে। বিশ্বের বিভিন্ন দেশ এবং অধিকার কর্মীরা এই আইনের নিন্দা করেছে। সূত্র: এএনআই

বাংলাদেশ সময়: ১৪৫৩ ঘণ্টা, এপ্রিল ১৩, ২০২১
নিউজ ডেস্ক 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa