ঢাকা, মঙ্গলবার, ২২ ফাল্গুন ১৪৩০, ০৫ মার্চ ২০২৪, ২৩ শাবান ১৪৪৫

স্বাস্থ্য

ডেঙ্গু: মৃত্যু তিন, হাসপাতালে ৯৭১

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮৩৫ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৬, ২০২৩
ডেঙ্গু: মৃত্যু তিন, হাসপাতালে ৯৭১

ঢাকা: গত ২৪ ঘণ্টায় ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে আরও তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। এদিন ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে সারা দেশে আরও ৯৭১ জন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন।

রোববার (২৬ নভেম্বর) স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার ও কন্ট্রোলরুম থেকে পাঠানো ডেঙ্গুবিষয়ক এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

এতে বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় সারা দেশে ৯৭১ জন ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। এরমধ্যে, ঢাকাতে ২১৭ জন এবং ঢাকার বাইরে ৭৫৪ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় সারা দেশে মোট এক হাজার ২৯৭ জন ডেঙ্গুরোগী হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র পেয়েছেন। এরমধ্যে, ঢাকায় বিভিন্ন হাসপাতাল থেকে ২৪৫ জন এবং ঢাকার বাইরের বিভিন্ন হাসপাতালে থেকে এক হাজার ৫২ জন।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। এরমধ্যে, এক জন ঢাকাতে এবং দুই জন ঢাকার বাইরে মারা যান।

এ বছর ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে মোট এক হাজার ৫৯৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। এরমধ্যে, ঢাকাতে ৯২৬ জন এবং ঢাকার বাইরে ৬৭২ জন।

চলতি বছরের ২৬ নভেম্বর পর্যন্ত মোট ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়েছে তিন লাখ আট হাজার ১৬৭ জন। এরমধ্যে, ঢাকাতে এক লাখ সাত হাজার ৭৯ জন ও ঢাকার বাইরে দুই লাখ এক হাজার ৮৮ জন ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়েছেন।

চলতি বছরে এ পর্যন্ত মোট তিন লাখ দুই হাজার ৯৭৪ জন ডেঙ্গুরোগী হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র পেয়েছেন। এরমধ্যে, ঢাকার বিভিন্ন হাসপাতাল থেকে এক লাখ পাঁচ হাজার ১৩৬ জন এবং ঢাকার বাইরে বিভিন্ন হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র পেয়েছেন এক লাখ ৯৭ হাজার ৮৩৮ জন।

বর্তমানে সারা দেশে মোট তিন হাজার ৫৯৫ জন ডেঙ্গুরোগী হাসপাতালে ভর্তি আছেন। ঢাকায় এক হাজার ১৭ জন এবং ছাড়পত্র পেয়েছেন দুই হাজার ৫৭৮ জন।

এতে আরও বলা হয়, চলতি বছরে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র পাওয়ার হার শতকরা ৯৮ শতাংশ। হাসপাতালে ভর্তি থাকার হার এক শতাংশ এবং মৃত্যুর হার শূন্য দশমিক পাঁচ শতাংশ।

গত বছরের ১ জানুয়ারি থেকে ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি রোগীর সংখ্যা সর্বমোট ৬২ হাজার ৩৮২ জন এবং ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে মোট ২৮১ জন মারা যান।

বাংলাদেশ সময়: ১৮৩৫ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৬, ২০২৩
আরকেআর/এসআইএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।