ঢাকা, শনিবার, ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ১৮ মে ২০২৪, ০৯ জিলকদ ১৪৪৫

নির্বাচন ও ইসি

রামগতিতে দুই চেয়ারম্যান প্রার্থীকে শোকজ

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৮৫১ ঘণ্টা, এপ্রিল ২১, ২০২৪
রামগতিতে দুই চেয়ারম্যান প্রার্থীকে শোকজ

লক্ষ্মীপুর: লক্ষ্মীপুরের রামগতি উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে প্রতীক বরাদ্দ পাওয়ার আগেই পোস্টার ছাপানোয় দুই চেয়ারম্যান প্রার্থীকে কারণ দর্শানো নোটিশ দেওয়া হয়েছে।  

সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা ও উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মাহবুব রোমান চৌধুরী শনিবার (২০ এপ্রিল) চেয়ারম্যান প্রার্থী আবদুল ওয়াহেদ ও শরাফ উদ্দিন আজাদ সোহেলকে পৃথক নোটিশ দেন।

 

নোটিশে আগামী তিনদিনের মধ্যে তাদের কাছ থেকে ব্যাখ্যা চাওয়া হয়। চিঠিটি নির্বাচন কমিশন সচিবালয়সহ ৫টি দপ্তরে দেওয়া হয়েছে।  

প্রার্থী আবদুল ওয়াহেদ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান এবং শরাফ উদ্দিন আজাদ সাবেক বিএনপি নেতা ও বর্তমান চেয়ারম্যান।  

জানা গেছে, নির্বাচনে প্রার্থী হতে আবদুল ওয়াহেদ দোয়াত-কলম এবং শরাফ উদ্দিন আজাদ কাপ-পিরিচ প্রতীক বরাদ্দ চেয়েছেন।

কারণ দর্শানো চিঠিতে উল্লেখ করা হয়, মনোনয়নপত্র বাছাই অনুষ্ঠানে প্রার্থীতা বৈধ ঘোষণার পাশাপাশি আগামী ২৩ এপ্রিল নির্বাচনী প্রতীক বরাদ্দের তারিখ উল্লেখ করে আপনাকে পত্র দেওয়া হয়। কিন্তু প্রতীক বরাদ্দের আগেই আপনি প্রতীকসহ পোস্টার ছাপিয়েছেন। যা উপজেলা নির্বাচন বিধিমালা, ২০২৩ এর বিধি ২২ এবং উপজেলা পরিষদ (নির্বাচন আচরণ) বিধিমালা, ২০১৬ এর বিধি ৫ (১) ও ৫ (২) এর লঙ্ঘন। এমতাবস্থায় কেন আপনার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য নির্বাচন কমিশনে লেখা হবে না তা আগামী তিনদিনের মধ্যে ব্যাখ্যা প্রদানের জন্য নির্দেশ দেওয়া হলো।

প্রার্থী আবদুল ওয়াহেদ বলেন, আমার পছন্দের প্রতীক দোয়াত-কলম। নির্বাচনে আমি ওই প্রতীক চেয়েছি। কেউ হয়ত ওই প্রতীকে আগাম পোস্টার তৈরি করেছে। যা আমি অবগত ছিলাম না।  

একই কথা জানিয়ে শরাফ উদ্দিন আজাদ বলেন, প্রতীক এখনো পাইনি। তাই প্রতীক দিয়ে পোস্টার চাপানোর প্রশ্নই আসে না। কেউ হয়ত কাজটি করেছে। বিষয়টা আমি জানতাম না।  

সহকারী রিটানিং কর্মকর্তা ও উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মাহবুব রোমান জানান, প্রতীক বরাদ্দ পাওয়ার আগেই কোনোভাবেই প্রার্থীরা প্রতীকসহ পোস্টার ছাপাতে পারেন না। কিন্তু এ দুই প্রার্থী নির্বাচনী আচরণবিধি অমান্য করে প্রতীক দিয়ে পোস্টার ছাপিয়েছেন। তাই কারণ দর্শানো নোটিশ দেওয়া হয়েছে।  

উল্লেখ্য, উপজেলা পরিষদের প্রথম ধাপের নির্বাচন আগামী ৮ মে অনুষ্ঠিত হবে। তফসিল অনুযায়ী ২২ এপ্রিল প্রার্থীতা প্রত্যাহারের শেষ দিন এবং ২৩ এপ্রিল প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া হবে। রামগতি উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ৫ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন।  

বাংলাদেশ সময়: ০৮৪২ ঘণ্টা, এপ্রিল ২১, ২০২৪
আরএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।