ঢাকা, রবিবার, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ০৫ ডিসেম্বর ২০২১, ০০ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৩

শিক্ষা

ইউআইটিএসের উপাচার্য হলেন অধ্যাপক মুহাম্মদ সামাদ

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৪৪৪ ঘণ্টা, জুলাই ৭, ২০১২
ইউআইটিএসের উপাচার্য হলেন অধ্যাপক মুহাম্মদ সামাদ

ঢাকা: ইউনিভার্সিটি অব ইনফরমেশন টেকনোলজি অ্যান্ড সায়েন্সেসের (ইউআইটিএস) উপাচার্য হিসেবে নিয়োগ পেলেন অধ্যাপক ডক্টর মুহাম্মদ সামাদ।

রাষ্ট্রপতি ও বিশ্ববিদ্যালয়ের আচার্য মোঃ জিল্লুর রহমান চার বছরের জন্য তাকে এ নিয়োগ প্রদান করেছেন।

ই‌উআইচিএসে যোগদানের আগে অধ্যাপক মুহাম্মদ সামাদ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজকর্ম ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের পরিচালকের দায়িত্ব পালন করেন।

অতিথি অধ্যাপক হিসেবে মুহাম্মদ সামাদ দু’বার যুক্তরাষ্ট্রের ইউনোনা বিশ্ববিদ্যালয়ে পাঠদান করেন। ২০০৯ সালে সমাজকর্ম শিক্ষার গুরুত্বপূর্ণ সংস্থা ওয়াশিংটনস্থ সিএসডব্লিউ পরিচালিত ‘ক্যাথেরিন ক্যান্ডাল ইনস্টিটিউট অব ইন্টারন্যাশনাল স্যোসাল ওয়ার্ক এডুকেশন’ এর ফেলো হিসেবে বাংলাদেশ ও যুক্তরাষ্ট্রের সমাজকর্ম বিষয়ে উচ্চশিক্ষার ওপর তুলনামুলক গবেষণা করেন।

রাজনীতি, উন্নয়ন ও সাহিত্যের ওপর লেখা অধ্যাপক মুহাম্মদ সামাদের লেখা এবং সম্পাদিত  বইয়ের সংখ্যা ১০টি।   যুক্তরাষ্ট্রের প্রকাশনা প্রতিষ্ঠান পাবলিশ আমেরিকা থেকে তার গবেষণা গ্রন্থ ‘ইনভিজিবল পিপল: পোভার্টি অ্যান্ড রিজিলিয়েন্সি ইন ঢাকা স্লামস্’ প্রকাশিত হয়েছে।   দীর্ঘ শিক্ষকতা ও গবেষণা জীবনে ভারত, চীন, জাপান, দক্ষিণ কোরিয়া, ইন্দোনেশিয়া ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রসহ বহু দেশে প্রকাশিত হয়েছে তার গবেষণা নিবন্ধ।

অধ্যাপক মুহাম্মদ সামাদ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেট সদস্য, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় ও ইউনিভার্সিটি অব ডেভেলপমেন্ট অল্টারনেটিভের সিন্ডিকেট সদস্য পদেও দায়িত্ব পালন করেন।

শিক্ষকতা ও গবেষণার পাশাপাশি মুহাম্মদ সামাদ সাহিত্যচর্চায়ও ব্যাপৃত রেখেছেন নিজেকে। তার উল্লেখযোগ্য কাব্যগ্রন্থ আমার দু’চোখ জলে ভরে যায়, আজ শরতের আকাশে পূর্ণিমা, একজন রাজনৈতিক নেতার মেনিফেস্টো ইত্যাদি। কাব্যক্ষেত্রে অবদানের জন্য তিনি সৈয়দ মুজতবা আলী সাহিত্য পুরস্কার, কবি সুকান্ত সাহিত্য পুরস্কার, কবি জসীম উদদীন সাহিত্য পুরস্কার, ত্রিভূজ সাহিত্য পুরস্কার, কবি বিষ্ণু দে পুরস্কারসহ অসংখ্য সম্মাননা লাভ করেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৪৪০ ঘণ্টা, জুলাই ০৭, ২০১২
এআই/ সম্পাদনা: অশোকেশ রায়,  অ্যাসিসট্যান্ট আউটপুট এডিটর

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa