ঢাকা, মঙ্গলবার, ১০ কার্তিক ১৪২৮, ২৬ অক্টোবর ২০২১, ১৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

চট্টগ্রাম প্রতিদিন

সেই ১০ কন্টেইনারে ‍২২০ টন প্লাস্টিক দানা

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮২৬ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৯, ২০১৪
সেই ১০ কন্টেইনারে ‍২২০ টন প্লাস্টিক দানা

চট্টগ্রাম: জাল কাগজপত্র দাখিল করে খালাস নেয়ার চেষ্টাকালে আটক ১০ কন্টেইনারে ২২০ টন প্লাস্টিক দানা পাওয়া গেছে। তাইওয়ান থেকে আমদানি করা এসব পণ্যের বর্তমান বাজার মূল্য সাড়ে ৩ কোটি টাকা।



বুধবার চট্টগ্রাম বন্দরের সিসিটি ইয়ার্ডে কায়িক পরীক্ষা শেষে এ বিষয়ে নিশ্চিত হয়েছেন শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তরের ‍কর্মকর্তারা।

তবে চালানটি কারা নিয়ে এসেছেন এ বিষয়ে কোন তথ্য না পেলেও মামলা দায়ের করা হবে বলে জানিয়েছেন শুল্ক গোয়েন্দা কর্মকর্তারা।

শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তরের চট্টগ্রাম কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক নাহিদ নওশাদ মুকুল বাংলানিউজকে জানান, ঢাকার ‘ফয়েজউদ্দিন এন্ড কোম্পানী লিমিটেড’ নামে প্রতিষ্ঠানটি ১০টি কন্টেইনারে ২২০ টন রেজিন (প্লাস্টিক দানা) আমদানির ঘোষণা দেয়।  

তাইওয়ান থেকে আমদানি করা এসব পণ্য গত বছরের ১৫ ডিসেম্বর শিপম্যান্ট করা হয়। চালানটি চট্টগ্রাম বন্দরে পৌঁছলে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে খালাস প্রক্রিয়া স্থগিত করে চালানটি আটক করা হয়।

তিনি বলেন, জাল কাগজপত্র দাখিল করে আমদানি পণ্য খালাস নেয়ার চেষ্টা করায় চালানটি আটক করা হয়। বুধবার বিকেলে চালানটির কায়িক পরীক্ষা শেষে জালিয়াতির বিষয়টি প্রমাণিত হয়।

মুকুল বলেন,‘চালানটি খালাসের দায়িত্বে কোন সিএন্ডএফ এজেন্ট নেই। পণ্য খালাস নিতে বন্দরে যেসব কাগজপত্র দাখিল করা হয়েছে তার সব কিছুই জাল। ‘  

ফয়েজউদ্দিন এন্ড কোম্পানী লিমিটেড‘র পক্ষ থেকে চালানটি খালাস নেয়ার প্রক্রিয়া করা হলেও আটকের পর তারা অস্বীকার করছে জানিয়ে তিনি বলেন, ‘চালানটি তাদের নয় দাবি করে প্রতিষ্ঠানটি বলছে আমাদের নাম ব্যবহার করে কেউ এটা করতে পারে। ’

সহকারী পরিচালক বলেন, জালিয়াতির ঘটনায় মামলা দায়ের করা হবে। এরপর বিষয়টি তদন্তের জন্য কাস্টমস কর্তৃপক্ষকে জানানো হবে।

তিনি বলেন, কোন ধরণের কাগজপত্র ছাড়া চালানটি বিভাবে বন্দরে এলো, এর সঙ্গে কারা জড়িত এ বিষয়ে তদন্ত করবে শুল্ক গোয়েন্দা বিভাগ।

বাংলাদেশ সময়: ১৮২৬ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৯, ২০১৪

* ভূঁয়া দলিলে আনা ১০ কন্টেইনার পণ্য আটক

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa