bangla news

আবৃত্তি সমন্বয় পরিষদের ত্রয়োদশ বার্ষিক কাউন্সিল

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-১০-২৬ ৩:৩৬:৩৭ পিএম
বাংলাদেশ আবৃত্তি সমন্বয় পরিষদের ত্রয়োদশ জাতীয় বার্ষিক কাউন্সিল, ছবি: বাংলানিউজ

বাংলাদেশ আবৃত্তি সমন্বয় পরিষদের ত্রয়োদশ জাতীয় বার্ষিক কাউন্সিল, ছবি: বাংলানিউজ

ঢাকা: বাংলাদেশ আবৃত্তি সমন্বয় পরিষদের ত্রয়োদশ জাতীয় বার্ষিক কাউন্সিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। দিনব্যাপী এ কাউন্সিলে এবারে সারাদেশের সদস্যভুক্ত ২৮০ সংগঠনের তিনজন করে প্রতিনিধি অংশ নিয়েছে।

শনিবার (২৬ অক্টোবর) সকাল ১০টা থেকে রাজধানীর বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় নাট্যশালায় এ অধিবেশন শুরু হয়।

কাউন্সিলের শুরুতে শোক প্রস্তাব, সাধারণ সম্পাদকের প্রতিবেদন, সদস্যপদ নিয়ে আলোচনা, অর্থ সম্পাদকের প্রতিবেদন, সাধারণ সম্পাদক ও অর্থ সম্পাদকের প্রতিবেদনের ওপর আলোচনা, সদস্য সংগঠনের বার্ষিক প্রতিবেদন পেশ, গঠনতন্ত্র সংশোধনী নিয়ে আলোচনা, নতুন কমিটি গঠন ও ভবিষ্যৎ কর্মসূচির পরিকল্পনা উপস্থাপন করা হয়।

অধিবেশনে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশিষ্ট আবৃত্তি শিল্পী মীর বরকত, হাসান আরিফ এবং আশরাফুল আলমসহ বিশিষ্ট আবৃত্তি শিল্পীরা। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন বাংলাদেশ আবৃত্তি সমন্বয় পরিষদের সাধারণ সম্পাদক আহকাম উল্লাহ।

সভায় অতিথিরা বলেন, দেশপ্রেম এবং নৈতিকতায় বাংলাদেশের আবৃত্তিকাররা কখনও আপস করেনি। এর সঙ্গে এখন যোগ হয়েছে মানবতা। কু-প্রবৃত্তিকে বাদ দিয়ে, আবৃত্তি এবং কথার মাধ্যমে সবাইকে সুন্দরের দিকে টেনে আনতে হবে। আমরা এখন আবৃত্তির পেছনে সময়টা ঠিকমতো দিতে পারি না, সঠিকভাবে তার ব্যবহার করতে পারিনা। সময়কে আরও সঠিকভাবে কাজে লাগাতে হবে।

অতিথিরা বলেন, শিল্পীদের এক দীর্ঘ ইতিহাস আছে, সেটিকে সম্মান দিয়ে তাদের সম্মান জানানো আমাদেরই দায়িত্ব। বাংলাদেশের আবৃত্তির এখন একটি চমৎকার অবয়ব আছে। আবৃত্তি শিল্প একটি আদর্শিক জায়গা। আবৃত্তি নিয়ে অনেকেই মন্তব্য করেন বা বিতর্ক করেন যে এটা শিল্প কি না! এটা যে শিল্প, এ নিয়ে কোনো বিতর্ক নেই। তেমনি আবৃত্তিকারকরাও আবৃত্তি শিল্পী। কেননা কবিতা নিঃশব্দে পড়ার বস্তু নয়, কণ্ঠস্বরে তার রূপ প্রকাশ পায়।

কাউন্সিল সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ আবৃত্তি সমন্বয় পরিষদের সভাপতি আসাদুজ্জামান নূর। সভায় তিনি দেশের বিভিন্ন স্থানের আবৃত্তিশিল্পী ও সংগঠকদের সঙ্গে বর্তমান ও ভবিষ্যত কর্মকাণ্ড নিয়ে আলোচনা করেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৫২৫ ঘণ্টা, অক্টোবর ২৬, ২০১৯
এইচএমএস/ওএইচ/

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-10-26 15:36:37