ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৪ আশ্বিন ১৪২৯, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০২ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

শিল্প-সাহিত্য

জাতীয় জাদুঘরে বয়নচিত্র প্রদর্শনী ও কর্মশালা

ফিচার রিপোর্টার | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৩০৭ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১৯, ২০১৭
জাতীয় জাদুঘরে বয়নচিত্র প্রদর্শনী ও কর্মশালা বয়নচিত্র প্রদর্শনী ও কর্মশালার উদ্বোধনী দিনে শিল্প সমালোচকরা/ছবি: বাংলানিউজ

ঢাকা: শতরঞ্জি এদেশের ৫শ বছরেরও পুরনো ঐতিহ্য। এটি এমন একটি মাধ্যম যাতে কাজ করতে দরকার প্রচুর সাবধানতা ও দক্ষতা। রংপুর অঞ্চলের শতরঞ্জি আমাদের শিল্পের একটি অন্যতম নিদর্শন।

মঙ্গলবার (১৯ ডিসেম্বর) বিকেলে বাংলাদেশ জাতীয় জাদুঘরে বয়নচিত্র প্রদর্শনী ও কর্মশালা উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এ কথা বলে শিল্পী অধ্যাপক আলাউদ্দিন আহমেদ। এ সময় তিনি শিল্পের  মাধ্যমটিকে টিকিয়ে রাখার জন্য জাদুঘরের এ প্রচেষ্টাকে সাধুবাদ জানান।

বাংলাদেশ জাতীয় জাদুঘর ও ট্যাপেস্ট্রি অ্যান্ড পেইন্টিং স্টুডিওর যৌথ উদ্যোগে এ প্রদর্শনী ও কর্মশালার আয়োজন করা হয়। জাদুঘরের নলিনীকান্ত ভট্টশালী প্রদর্শনী গ্যালারিতে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশিষ্ট চিত্র সমালোচক ও লেখক অধ্যাপক নজরুল ইসলাম।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে অধ্যাপক নজরুল ইসলাম বলেন, বয়নচিত্রে শিল্পী মাধ্যম স্থানান্তর করেছেন অত্যন্ত নিপুণতার সাথে। বয়নচিত্র এদেশে প্রথম প্রজন্মের নন্দিত শিল্পী রশিদ চৌধুরীর হাত ধরে পরিচিতি লাভ করেছে। কারুশিল্পকে চারুশিল্পে রূপদান করে তিনি এদেশের সংস্কৃতির সঙ্গে এ শিল্পকে সংযুক্ত করেছেন।

এসময় শিল্পী তাজুল ইসলামকে শিল্পী রশিদ ইসলামের যোগ্য শিষ্য উল্লেখ করে তিনি বলেন, শিল্পী তাজুল ইসলাম একাই নন, আরো অনেককে এ শিল্পে সংযুক্ত করেন।  

অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে আরো উপস্থিত ছিলেন ইউনিভার্সিটি অব ডেভেলপমেন্ট অল্টারনেটিভের চারুকলা অনুষদের অধ্যাপক শিল্পী আলাউদ্দিন আহমেদ। সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ জাতীয় জাদুঘরের মহাপরিচালক ফয়জুল লতিফ চৌধুরী।

স্বাগত বক্তব্য দেন বাংলাদেশ জাতীয় জাদুঘরের জনশিক্ষা বিভাগের কিপার ড. শিহাব শাহরিয়ার। সঞ্চালনা করেন জাতীয় জাদুঘরের শিক্ষা কর্মকর্তা সাইদ সামসুল করীম। ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন শিল্পী মো. তাজুল ইসলাম।

বাংলাদেশ সময়: ১৯০৩ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১৯, ২০১৭
এইচএমএস/এএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa