ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১২ কার্তিক ১৪২৮, ২৮ অক্টোবর ২০২১, ২০ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

স্বাস্থ্য

খুলনায় ৩ হাসপাতালে আরও ১৪ জনের মৃত্যু

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১০৩৯ ঘণ্টা, জুলাই ১১, ২০২১
খুলনায় ৩ হাসপাতালে আরও ১৪ জনের মৃত্যু

খুলনা: খুলনার পৃথক তিনটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় করোনা আক্রান্ত ও উপসর্গে ১৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। রোববার (১১ জুলাই) সকাল ৮টা পর্যন্ত আগের ২৪ ঘণ্টায় তাদের মৃত্যু হয়।



শনিবার (১০ জুলাই) খুলনায় ১০ জনের মৃত্যু হয়। একদিন পর আবারও বেড়েছে করোনায় মৃত্যুর সংখ্যা।  

শুক্রবার ২৭ জনের মৃত্যু হয়। যা ছিলো এ পর্যন্ত খুলনার হাসপাতোলে সর্বোচ্চ মৃত্যুর রেকর্ড। মারা যাওয়া ১৪ জনের মধ্যে খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের করোনা। ডেডিকেটেড হাসপাতালে ৮ জন, খুলনা জেনারেল হাসপাতালের করোনা ইউনিটে ৪ ও বেসরকারি গাজী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ২ জনের মৃত্যু হয়েছে।

করোনা হাসপাতালের ফোকালপার্সন ডা. সুহাস রঞ্জন হালদার জানান, হাসপাতালে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় ৬ ও উপসর্গ নিয়ে ২ জন মিলে মোট ৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। করোনায় মৃত ব্যক্তিরা হলেন-খুলনার রূপসা উপজেলার সুফিয়া (৫৫), আফিল গেটের নজির আহমেদ (৭০), খুলনার রাজিয়া (৫০),যশোরের এম এ খলিল (৮০), সোনাডাঙ্গার আসাদুল হক (৭৫) ও খালিশপুরের সাহারা বেগম (৬৫)।  

জেনারেল হাসপাতালের করোনা ইউনিটের মুখপাত্র ডা. কাজী আবু রাশেদ জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় হাসপাতালে ৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। মৃত ব্যক্তি হলেন- খুলনার রূপসা উপজেলার জীবন কৃঞ্চ পাল (৬৭), মহানগরীর ডাল মিল মোড়ের গোলাম কিবরিয়া (৬৮), অভয়নগরের জেসমিন বেগম  (৪৫) ও তেরখাদার মফিজুল ইসলাম (৫৫)।

বেসরকারি গাজী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের স্বত্বাধিকারী ডা. গাজী মিজানুর রহমান জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় হাসপাতালের করোনা ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ২ জনের মৃত্যু হয়েছে। মৃত ব্যক্তিরা হলেন, যশোরের কেশবপুরের মঞ্জুয়ারা বেগম (৫০) ও খুলনার সোনাডাঙ্গার আরোয়া ফকরুদ্দীন (৪৪)।

শহীদ শেখ আবু নাসের বিশেষায়িত হাসপাতালে ফোকাল পারসন ডা. প্রকাশ দেবনাথ জানান, হাসপাতালের করোনা ইউনিটে গত ২৪ ঘণ্টায় কোনো রোগী মারা যাননি।

বাংলাদেশ সময়: ১০৩৫ ঘণ্টা, জুলাই ১১, ২০২১
এমআরএম/এএটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa