ঢাকা, রবিবার, ৮ কার্তিক ১৪২৮, ২৪ অক্টোবর ২০২১, ১৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

স্বাস্থ্য

টাঙ্গাইলে চিকিৎসকসহ মৃত্যু ৭, আক্রান্ত ১০ হাজার

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫৫৬ ঘণ্টা, জুলাই ১০, ২০২১
টাঙ্গাইলে চিকিৎসকসহ মৃত্যু ৭, আক্রান্ত ১০ হাজার

টাঙ্গাইল: টাঙ্গাইলে করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা শনিবার ১০ হাজার অতিক্রম করেছে। প্রায় অর্ধেক আক্রান্ত হয়েছে পহেলা জুন থেকে শনিবার পর্যন্ত ৪০ দিনে।

এদিকে শনিবার (১০ জুলাই) সকাল পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে করোনা আক্রান্ত হয়ে একজন চিকিৎসকসহ ছয় জন এবং উপসর্গ নিয়ে এক জনের মৃত্যু হয়েছে।

সিভিল সার্জন অফিস সূত্র জানায়, শনিবার সকাল ৬টা পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় ৪৩৮ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ১৮৬ জনের দেহে করোনা শনাক্ত হয়। আক্রান্তের হার ৪২ দশমিক ৪৬ শতাংশ। এর মধ্য দিয়ে জেলায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা ১০ হাজার ৫১ জন হলো। মোট আক্রান্তের প্রায় অর্ধেক পাঁচ হাজার ১৫ জন আক্রান্ত হয়েছে গত পহেলা জুন থেকে ১০ জুলাই পর্যন্ত ৪০ দিনে। আর জুলাই মাসের ১ থেকে ১০ তারিখ পর্যন্ত ১০ দিনে ২ হাজার ৩৪৪ জন আক্রান্ত হয়েছে।

এদিকে শনিবার সকাল ৬টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় যে ছয়জনের মৃত্যু হয় তার মধ্যে একজন চিকিৎসকও রয়েছেন। ওই চিকিৎসকের নাম মাজেদ আলী মিয়া (৫৮)। তিনি মধুপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কর্মরত ছিলেন। তার পারিবারিক সূত্র জানায়, গত ১ জুলাই মাজেদ আলী তার স্ত্রী ও মেয়ে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হন। অবস্থার অবনতি হলে মাজেদ আলী ও তার স্ত্রীকে ৬ জুলাই টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালের নিবীড় পরিচর্যা কেন্দ্রে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শুক্রবার বিকেলে তার মৃত্যু হয়।

হাসপাতাল সূত্র জানায়, চলতি জুলাই মাসের ১০ দিনে (১ থেকে ১০ জুলাই) করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ৪১ জন, উপসর্গ নিয়ে ৩৮ জন মোট ৭৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। বর্তমানে হাসপাতালে করোনা আক্রান্ত ৫৬ জন ও উপসর্গ নিয়ে ৮৮ জন রোগী চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

গত বছর ৮ এপ্রিল জেলায় প্রথম করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়। গত বছর জুলাই পর্যন্ত আক্রান্তের সংখ্যা বাড়তে থাকে। আগস্ট থেকে আক্রান্তের হার কমতে শুরু করে। এ বছর জুন থেকে আবার সংক্রমণ বাড়তে থাকে। গত ১২ জুন থেকে আক্রান্তের হার ৩০ শতাংশের উপরে রয়েছে।

টাঙ্গাইলের সিভিল সার্জন আবুল ফজল মো. সাহাবুদ্দিন খান জানান, গত এক মাস ধরে জেলায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বাড়ছেই। সবাইকে সচেতন হতে হবে এবং স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে।

বাংলাদেশ সময়: ১৫৫৬ ঘণ্টা, জুলাই ১০, ২০২১
আরএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa