[x]
[x]
ঢাকা, শনিবার, ৬ মাঘ ১৪২৫, ১৯ জানুয়ারি ২০১৯
bangla news

এমবিবিএস প্রফেশনাল পরীক্ষায় এগিয়ে আদ্-দ্বীন মেডিকেল

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-০৯-২০ ২:০৩:৪৭ পিএম
আদ্-দ্বীন মেডিকেল কলেজ। ছবি: বাংলানিউজ

আদ্-দ্বীন মেডিকেল কলেজ। ছবি: বাংলানিউজ

ঢাকা: এবারও এমবিবিএস প্রফেশনাল পরীক্ষায় ভালো ফলাফল করেছে আদ্-দ্বীন ফাউন্ডেশন পরিচালিত মেডিকেল কলেজসমূহ। পরীক্ষায় বেশ কয়েকজন শিক্ষার্থী অনার্স মার্ক পাওয়াসহ শীর্ষে অবস্থান করছে।

এমবিবিএস প্রথম প্রফেশনাল পরীক্ষায় এবার শীর্ষস্থান দখল করেছে খুলনা আদ্-দ্বীন আকিজ মেডিকেল কলেজ। গতবছর রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে প্রথম প্রফেশনাল পরীক্ষায় অংশ নিয়ে প্রথম বছরেই র্শীষস্থান দখল করেছিল কলেজটি।

এবারও পাসের হারের দিক থেকে ২৩টি মেডিকেল কলেজের মধ্যে পাসের হার ৯১ শতাংশ নিয়ে শীর্ষস্থান দখল করেছে আদ্-দ্বীন আকিজ মেডিকেল কলেজ। এই পরীক্ষায় অংশ নিয়ে দ্বিতীয় ব্যাচ (২০১৫-২০১৬ শিক্ষাবর্ষ) শিক্ষার্থীদের মধ্যে এনাটমি বিষয়ে অনার্স মার্ক (৮৫ শতাংশ) পেয়েছেন পিয়াল কুমার সাহা ও শান্তা ইসলাম আন্নি।আদ্-দ্বীন মেডিকেল কলেজ প্রাঙ্গণ। ছবি: বাংলানিউজআদ্-দ্বীন উইমেন্স মেডিকেল এই কলেজ থেকে প্রথম প্রফেশনাল পরীক্ষায় (২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষ) অংশ নিয়েছিল ৯৮ জন ছাত্রী। পাসের হার ৮৮ দশমিক ৭৭ শতাংশ। এনাটমি বিষয়ে অনার্স মার্ক পেয়েছেন ফারাহ ইমতিয়াজ সৃষ্টি।

দ্বিতীয় প্রফেশনাল পরীক্ষায় (২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষ) অংশ নেয় ৮২ জন। পাসের হার ৮৬ দশমিকক ৫৮ শতাংশ। দ্বিতীয় প্রফেশনাল পরীক্ষায় ফরেনসিক মেডিসিন বিভাগ থেকে অনার্স মার্ক পেয়েছেন তিনজন।

এরা হলেন- ফাহমিদা মজুমদার, সাদিয়া আফরিন সূচনা ও সাদা হাসান। এই কলেজ থেকে তৃতীয় প্রফেশনাল পরীক্ষায় (২০১৪-১৫ শিক্ষাবর্ষ) অংশ নেয় ৮৪ জন। পাসের হার ৭৮ দশমিক ৫৭।

বসুন্ধরা-আদ্-দ্বীন মেডিকেল কলেজ প্রথম প্রফেশনাল পরীক্ষায় (২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষ) অংশ নেয় ৪২ জন। পাসের হার ৮৮.৬৩ শতাংশ। দ্বিতীয় প্রফেশনাল পরীক্ষায় (২০১৫-২০১৬) অংশ নেয় ৩২ জন। পাসের হার ৮৭ দশমিক ৫ শতাংশ।

আদ্-দ্বীন সকিনা মেডিকেল কলেজ প্রথম প্রফেশনাল পরীক্ষায় (২০১৬-২০১৭) অংশ নেয় ৪৮ জন। পাসের হার ৭৯. ১৮ শতাংশ। দ্বিতীয় প্রফেশনাল পরীক্ষায় (২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষ) অংশ নেয় ৫৪ জন। পাসের হার ৮৭.০৪ শতাংশ। এই পরীক্ষায় ফরেনসিক মেডিসিন বিভাগ থেকে অনার্স মার্ক (৮৫ শতাংশ) পেয়েছেন তিনজন। এরা হলেন- মাসফিকা তাবাসসুম, খাদিজা রহমান ও জেবা রাইসা।

চলতি বছরের মে মাসে পরীক্ষাগুলো অনুষ্ঠিত হয়।

পরীক্ষার্থীদের ভালো ফলাফল করা নিয়ে আদ্-দ্বীন ফাউন্ডেশনের পরিচালক (রেগুলেটরি অ্যাফেয়ার্স অ্যান্ড মেডিকেল অ্যাডুকেশন) ডা. মো. আনোয়ার হোসেন মুন্সি বাংলানিউজকে বলেন, আমাদের কলেজগুলো মানসম্মত শিক্ষক দ্বারা পরিচালিত হচ্ছে। এখানে শৃঙ্খলা-নিয়মানুবর্তিতা, রুটিন ও সময়সূচি মেনে চলা হয়। এছাড়া ‘স্মল গ্রুপ অ্যাডুকেশন’ পদ্ধতিতে পড়াশুনা পরিচালিত হয়ে থাকে। শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা ক্লোজ মনিটরিঙের মধ্যে থাকেন। এ কারণে কলেজের শিক্ষার্থীরা প্রফেশনাল পরীক্ষায় ভালো ফলাফল করেছেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৪০১ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২০, ২০১৮
এসআই/এএটি

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14