ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৯ মাঘ ১৪২৯, ০২ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১০ রজব ১৪৪৪

ফুটবল

উড়ন্ত আর্জেন্টিনাকে মাটিতে নামিয়ে বিশ্বকাপ শুরু সৌদির

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮০৭ ঘণ্টা, নভেম্বর ২২, ২০২২
উড়ন্ত আর্জেন্টিনাকে মাটিতে নামিয়ে বিশ্বকাপ শুরু সৌদির

বিশ্বকাপে মাঠে নেমেই গোল করলেন মেসি, গড়লেন রেকর্ডও। এরপর আরও তিনবার বল জালে পাঠায় তার দল।

অফসাইডের কারণে একটিও গোল হিসেবে ধরা হয়নি। বিরতির পর বাজিমাত করলো সৌদি আরব। পাঁচ মিনিটের মধ্যেই দুই গোল দিয়ে বিস্ময়ের জন্ম দেয় দলটি। একইসঙ্গে জয় নিয়ে রেকর্ডও গড়ে তারা।

মঙ্গলবার কাতার বিশ্বকাপের ‘সি’ গ্রুপের ম্যাচে লুসাইল স্টেডিয়ামে র‌্যাংকিংয়ের তিনে থাকা আর্জেন্টিনাকে ২-১ ব্যবধানে হারিয়েছে ৫১তম স্থানে থাকা সৌদি আরব। আলবেসিলেস্তেদের বিপক্ষে এটিই প্রথম জয় দলটির। একইসঙ্গে আর্জেন্টিনার টানা ৩৬ ম্যাচের অপরাজিত দৌড় থামিয়ে দেয় তারা। এর আগে চারবারের দেখায় ২ ম্যাচ হার ও ২ ম্যাচে ড্র করে সৌদি আরব।

ম্যাচজুড়ে একের পর এক আক্রমণ করে সৌদির রক্ষণভাগের পরীক্ষা নেয় আর্জেন্টিনা। তবে গোলপোস্টে দেয়াল হয়ে দাঁড়িয়ে থাকা মোহামেদ আল ওয়াইসকে ফাঁকি দিতে পারেনি তারা। প্রথমার্ধে পেনাল্টি থেকে গোল করে যদিও দলকে এগিয়ে নেন মেসি। তবে দ্বিতীয়ার্ধে মাঠে নেমে সৌদির সালেহ আল সেহরি সমতা টানার পাঁচ মিনিট পর দলকে এগিয়ে নেন সালেম আল-দাওয়াসরি।

শুরু থেকেই দাপট দেখিয়ে গিয়েছিল আর্জেন্টিনা। তবে থেমে ছিল না সৌদি আরবও। সুযোগ পেলেই আক্রমণ সাজাতে ভুল করতো না দলটি। গোল পেতে অবশ্য বেশিক্ষণ অপেক্ষা করতে হয়নি আলবেসিলেস্তাদের। দশম মিনিটে পেনাল্টি পেয়ে সফল স্পট কিকে বল জালে জড়ান লিওনেল মেসি। এর আগে অষ্টম মিনিটে কর্ণার কিকের সময় বক্সে থাকা পারেদেসকে ফাউল করেন আল-বুলায়াহি।

গোল করেও থেমে ছিল না আর্জেন্টিনার আক্রমণ। ২২তম মিনিটে বল আবারও জালে পাঠান মেসি। তবে অফসাইডের কারণে গোলটি বাতিল হয়। দুই মিনিট পর দারুণ আক্রমণ সাজিয়েও অফসাইডের কারণে ব্যর্থ হন দি মারিয়া। ২৮তম মিনিটে সতীর্থের পাস পেয়ে বল টেনে নিয়ে জাল খুঁজে নেন লাওতারো মার্তিনেস। তবে ভিএআর পরক্ষণেই অফসাইডের কারনে গোলটি বাতিল করে।

৩৪তম মিনিটে চতুর্থবারের মতো বল জালে বেড়ায় আর্জেন্টিনা। অফসাইডের কারণে এই গোলটিও বাতিল হয়। প্রথমার্ধেই ৭টি অফসাইড করে বসে মেসিরা। ২০১৮ সালে পুরো আসরজুড়েও এত অফসাইড করেনি তারা। সেবার মোট ৬টি অফসাইড করে আলবেসিলেস্তারা। অফসাইডের সেই হতাশা নিয়ে এক গোলে এগিয়ে থেকেই বিরতিতে যায় লিওনেল স্কালোনির শিষ্যরা।

দ্বিতীয়ার্ধে খেলতে নেমে আর্জেন্টিনাকে পাত্তা না দিয়ে আধিপত্য বিস্তার করে সৌদি আরব। এরই ধারাবাহিকতায় মাঠে নামার তিন মিনিটের মাথায়ই সমতায় ফেরে দলটি। সতীর্থের পাস থেকে বল নিয়ে বক্স থেকে দারুণ শটে জাল খুঁজে নেন আলসেহরি। ঠেকাতে গিয়েও পাত্তা পাননি আর্জেন্টাইন দুই ডিফেন্ডার রোমেরো ও মার্তিনেস।  

৫৩তম মিনিটে গোল করে বিস্ময় জাগিয়ে সৌদিকে এগিয়ে নেন আল-দাওয়াসরি। দারুণ এক বাঁকানো শটে আর্জেন্টিনার জালে বল পাঠান এই মিডফিল্ডার। লাফিয়েও বলের নাগাল পাননি এমিলিয়ানো মার্তিনেস। শেষদিকে বেশ কয়েকটি আক্রমণ করে আর্জেন্টিনা। কিন্তু সৌদি গোলরক্ষক আল ওয়াইস দেয়াল হয়ে দাঁড়িয়ে থাকেন গোলপোস্টের সামনে। একের পর এক দুর্দান্ত সেভ দিয়ে দলের জয় নিশ্চিত করে মাঠ ছাড়েন তিনি।

বাংলাদেশ সময়: ১৮০৭ ঘণ্টা, নভেম্বর ২২, ২০২২
আরইউ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa