bangla news
ইতিহাসের এই দিনে 

ঋতুপর্ণ ঘোষের জন্ম

ফিচার ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-০৮-৩০ ২:১৫:৪৮ পিএম
ঋতুিপর্ণ ঘোষ

ঋতুিপর্ণ ঘোষ

ঢাকা: ইতিহাস আজীবন কথা বলে। ইতিহাস মানুষকে ভাবায়, তাড়িত করে। প্রতিদিনের উল্লেখযোগ্য ঘটনা কালক্রমে রূপ নেয় ইতিহাসে। সেসব ঘটনাই ইতিহাসে স্থান পায়, যা কিছু ভাল, যা কিছু প্রথম, যা কিছু মানবসভ্যতার অভিশাপ-আশীর্বাদ।

তাই ইতিহাসের দিনপঞ্জি মানুষের কাছে সবসময় গুরুত্ব বহন করে। এই গুরুত্বের কথা মাথায় রেখে বাংলা নিউজের পাঠকদের জন্য নিয়মিত আয়োজন ‘ইতিহাসের এই দিনে’।

৩১ আগস্ট, ২০১৭, শুক্রবার। ১৬ ভাদ্র, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ। একনজরে দেখে নিন ইতিহাসের এই দিনে ঘটে যাওয়া উল্লেখযোগ্য ঘটনা, বিশিষ্টজনের জন্ম-মৃত্যু দিনসহ গুরুত্বপূর্ণ আরও কিছু বিষয়।  

ঘটনা
১৮৪৮ - সংবাদপত্রে প্রথমবারের মতো আবাহাওয়া বার্তা ছাপা হয়।
১৮৫৮ - ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানির হাত থেকে ব্রিটিশ সরকার ভারতের শাসনভার গ্রহণ করে।
১৯৫৭ - মালয়েশিয়া স্বাধীনতা লাভ করে। ১৬ শতকের প্রথম দিক থেকে ইউরোপিয়ানরা মালয়েশিয়ায় প্রভাব বিস্তার শুরু করে। প্রথমে পর্তুগিজদের আগমন ঘটে এবং ১৭ শতকে দেশটির উপর নেদারল্যান্ডের কর্তৃত্ব প্রতিষ্ঠিত হয়। ১৮২৪ সালে নেদারল্যান্ড ও ব্রিটিশ সরকারের মধ্যে একটি চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। ওই চুক্তি অনুযায়ী মালয়েশিয়া ব্রিটিশদের অধীনে এবং ইন্দোনেশিয়া নেদারল্যান্ডের অধীনে চলে যায়। ১৯৫৭ সালে মালয়েশিয়া স্বাধীনতা লাভের আগ পর্যন্ত ব্রিটিশ উপনিবেশবাদীদের কবলে ছিল।
১৯৬২ - ল্যাটিন আমেরিকার দেশ ত্রিনিদাদ ও টোব্যাকো ব্রিটিশ উপনিবেশবাদীদের কবল থেকে মুক্ত হয়ে স্বাধীনতা লাভ করে।
১৯৬৮ - ভারতের তৈরি উপগ্রহ রোহিনী আকাশপথে যাত্রা করে।
১৯৭৫ - বাংলাদেশকে স্বীকৃতি দেয় চীন।
১৯৯১ - সাবেক সোভিয়েত ইউনিয়ন থেকে আলাদা হয়ে মধ্য এশিয়ার দেশ উজবেকিস্তান ও কিরগিজিস্তান স্বাধীনতা লাভ করে।

জন্ম
১৯৬৩ - ঋতুপর্ণ ঘোষ, বিখ্যাত চলচ্চিত্র নির্মাতা। একটি বিজ্ঞাপন সংস্থার ক্রিয়েটিভ আর্টিস্ট হিসেবে কর্মজীবন শুরু। ১৯৯২ সালে মুক্তি পায় প্রথম ছবি হীরের আংটি। দ্বিতীয় ছবি উনিশে এপ্রিলের জন্য শ্রেষ্ঠ কাহিনীচিত্র বিভাগে জাতীয় পুরস্কার পান। সত্যজিৎ রায়ের অনুরাগী ছিলেন। কর্মজীবনে তিনি বারোটি জাতীয় পুরস্কারের পাশাপাশি কয়েকটি আন্তর্জাতিক পুরস্কারও পেয়েছিলেন। ২০১৩ সালের ৩০ মে কলকাতায় হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেন।
১৯৮২ - পেপে রায়না, স্প্যানিশ গোলকিপার।

মৃত্যু
১৯৯৭ - প্রিন্সেস ডায়ানা, যুবরাজ চার্লসের প্রথম স্ত্রী এবং ১৯৮১ থেকে ১৯৯৭ পর্যন্ত যুক্তরাজ্যের যুবরাজ্ঞী। চার্লসের সঙ্গে ১৯৮১ সালে বাগদানের পর থেকে ১৯৯৭ সালে মৃত্যুর আগ পর্যন্ত ডায়ানাকে বলা হতো পৃথিবীর সবচেয়ে খ্যাতিমান নারী। ফ্যাশন, সৌন্দর্য, এইডস রোগ বিষয়ে সচেতনতা সৃষ্টিতে তার অবদান এবং ভূমি মাইনের বিরুদ্ধে তার আন্দোলন তাকে বিখ্যাত করে।

জীবদ্দশায় ডায়ানাকে বলা হতো বিশ্বের সর্বাধিক আলোকচিত্রিত নারী। অবশ্য সমালোচকদের মতে এই খ্যাতি ও খ্যাতির জন্য প্রচেষ্টাই ডায়ানার জীবনে কাল হয়ে দাঁড়িয়েছিল। ১৯৯৭ সালে ফ্রান্সের প্যারিস শহরে এক মর্মান্তিক গাড়ি দুর্ঘটনায় নিহত হন ডায়ানা

বাংলাদেশ সময়: ০০১০ ঘণ্টা, আগস্ট ৩১, ২০১৮
এনএইচটি/এএ

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   ফিচার
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

ফিচার বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত

Alexa
cache_14 2018-08-30 14:15:48