bangla news

সপ্তম দোস্তি-ওয়েটেক্স বাণিজ্যমেলা

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১০-০৮-২৪ ১:৩০:৪৫ এএম

বাংলাদেশে প্রতি বছর ‘দোস্তি-ওয়েটেক্স’ (উইমেন এন্টারপ্রিনিয়ার ট্রেড এক্সপো) নামে একটি বাণিজ্যমেলার আয়োজন করা হয়। এ আয়োজন চলছে ৭ বছর ধরে। উদ্দেশ্য বাংলাদেশী নারী উদ্যোক্তাদের রপ্তানি সম্পর্কে পর্যাপ্ত জ্ঞান দেওয়া এবং এশিয়ার অন্যান্য নারী উদ্যোক্তাদের সঙ্গে পারস্পরিক নেটওয়ার্ক তৈরিতে সাহায্য করা।

বাংলাদেশে প্রতি বছর ‘দোস্তি-ওয়েটেক্স’ (উইমেন এন্টারপ্রিনিয়ার ট্রেড এক্সপো) নামে একটি বাণিজ্যমেলার আয়োজন করা হয়। এ আয়োজন চলছে ৭ বছর ধরে। উদ্দেশ্য বাংলাদেশী নারী উদ্যোক্তাদের রপ্তানি সম্পর্কে পর্যাপ্ত জ্ঞান দেওয়া এবং এশিয়ার অন্যান্য নারী উদ্যোক্তাদের সঙ্গে পারস্পরিক নেটওয়ার্ক তৈরিতে সাহায্য করা। এ আয়োজন বাংলাদেশের নারী উদ্যোক্তাদের ব্যবসায়-বাণিজ্যর ক্ষেত্রে অন্যান্য দেশের নারী উদ্যোক্তাদের কাছে পরিচিত করে তোলে। বিভিন্ন মহলে তাদের পণ্য সম্পর্কে ব্যবসায়িক লক্ষ্য ঠিক করতেও এ মেলা সহায়তা করে।

এবারের সপ্তম দোস্তি-ওয়েটেক্স ২০১০ বাণিজ্যমেলার আয়োজন করা হয় পাকিস্তান হাইকমিশন ও ওয়েটেক্স ব্যবস্থাপনা কমিটির যৌথ উদ্যোগে। ২৪ আগস্ট মঙ্গলবার সকালে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে মহিলা ও শিশুবিষয়ক প্রতিমন্ত্রী ড. শিরিন শারমিন চৌধুরী উদ্বোধন করেছেন এ মেলার। এছাড়া প্রতিদিন বাংলাদেশের স্বনামধন্য প্রায় ৫০ জন ব্যক্তিত্বকে এ মেলায় অংশগ্রহণকারীদের উৎসাহ দেওয়ার জন্য আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে।

মেলায় অংশ নিয়েছেন বাংলাদেশ, পাকিস্তান, ভারত, চীন ও থাইল্যান্ডের  ১২০ জন নারী উদ্যোক্তা।  আশা করা যাচ্ছে ক্রেতাদের ঈদ কেনাকাটায় বৈচিত্র্য আনবে এ মেলা। এখানে পাওয়া যাবে এশিয়ার বিভিন্ন নারী উদ্যোক্তাদের তৈরি পণ্য। এর মধ্যে আছে বিভিন্ন রকমের নকশা করা কাপড়, পুরুষ-মহিলা ও শিশুদের জন্য জামা কাপড়, জুতা, স্যান্ডেল, চুড়ি, ব্যাগ, কুশন, হারবাল, কসমেটিক্স, গৃহস্থালি সামগ্রী, বিছানার চাদরসহ নানা রকমের পণ্য। এছাড়া ফুড কোর্টে থাকবে ইফতারের ব্যবস্থা।

এ মেলায় বাংলাদেশের নারী উদ্যোক্তাদের জন্য নেওয়া হয়েছে বিশেষ উদ্যোগ। নির্বাচিত বাংলাদেশী নারী উদ্যোক্তাদের পাকিস্তানের ‘মাই করাচি’ অথবা লাহোরে অনুষ্ঠিতব্য ‘ওয়েক্সনেট’ বাণিজ্যমেলাতে বিনা খরচে অংশগ্রহণের সুযোগ করে দেওয়া হবে, যা দুই দেশের নারী উদ্যোক্তাদের মধ্যে ব্যবসায়িক সেতুবন্ধন সৃষ্টিতে সাহায্য করবে বলে মনে করেন আয়োজকরা।

মেলা চলবে প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত। শেষ হবে ২৯ আগস্ট।

বাংলাদেশ স্থানীয় সময় ২২১৫, আগস্ট ২৪, ২০১০

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

ফিচার বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত

Alexa
db 2010-08-24 01:30:45