ঢাকা, রবিবার, ১৬ আশ্বিন ১৪২৯, ০২ অক্টোবর ২০২২, ০৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

পরিবেশ ও জীববৈচিত্র্য

ডুলাহাজারা সাফারি পার্কে অসুস্থ সিংহীর মৃত্যু 

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫৫১ ঘণ্টা, এপ্রিল ২২, ২০২২
ডুলাহাজারা সাফারি পার্কে অসুস্থ সিংহীর মৃত্যু 

কক্সবাজার: কক্সবাজারের চকরিয়ার ডুলাহাজারা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারি পার্কে অসুস্থ সিংহী নদী মারা গেছে। শুক্রবার (২২ এপ্রিল) সকালে পার্কের বেষ্টনীতে তার মৃত্যু হয়।

 

এর আগে গত ১৯ ফেব্রুয়ারি মারামারিকালে পুরুষ সিংহ ‘সম্রাট’ কামড় দেয় ‘নদী’কে। এতে নদীর গলায় বড় চোট লাগে। এরপর থেকে নদীর গলার ক্ষতস্থান থেকে অনবরত পানি ঝরছিল। এ অবস্থায় নদীর চিকিৎসায় দুটি মেডিক্যাল বোর্ড গঠনসহ বিশেষজ্ঞ একাধিক ডাক্তারের তত্ত্বাবধানে চিকিৎসাসেবা দেওয়া হলেও বাঁচানো যায়নি নদীকে।

বঙ্গবন্ধু সাফারি পার্কের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তত্ত্বাবধায়ক) মো. মাজহারুল ইসলাম জানান, সিংহী নদী সকাল ৭টার দিকে মারা যায় বেষ্টনীতে। এ ঘটনায় থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করা হয়েছে।

তিনি বলেন, নদীর চিকিৎসায় আমরা সর্বোচ্চ চেষ্টা করেছি। কিন্তু শেষ পর্যন্ত বাঁচানো যায়নি।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারি পার্কের ভেটেরিনারি সার্জন হাতেম সাজ্জাত মো. জুলকার নাইম বলেন, নদীর চিকিৎসায় দুটি মেডিক্যাল বোর্ড গঠন করা হয়েছে। তার রক্তের নমুনা পরীক্ষায় এক ধরনের ভাইরাসের উপস্থিতি ধরা পড়েছিল। এতে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমে গিয়েছিল। যে কারণে শত চেষ্টা করেও তাকে বাঁচানো যায়নি।

চকরিয়া উপজেলার ডুলহাজারায় ২ হাজার ২৫০ একর বনে গড়ে তোলা হয় দেশের প্রথম বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারি পার্ক। ২০০১ সালের ১৯ জানুয়ারি এ পার্কের যাত্রা শুরু করা হয়। এর আগে ১৯৮০ সালে এটি ছিল হরিণ প্রজনন কেন্দ্র। বর্তমানে পার্কে জেব্রা, ওয়াইল্ড বিস্ট, জলহস্তী, ময়ূর, অজগর, কুমির, হাতি, বাঘ, ভাল্লুক, সিংহ, হরিণ, লামচিতা, শকুন, কচ্ছপ, রাজধনেশ, কাকধনেশ, ঈগল, সাদা বক, রঙিলা বক, সারস, কাস্তেচরা, মথুরা, নিশিবক, কানিবক, বনগরুসহ ৫২ প্রজাতির ৩৪১টি প্রাণী রয়েছে।

এগুলো আবদ্ধ অবস্থায় আছে। উন্মুক্তভাবে আছে ১২৩ প্রজাতির ১ হাজার ৬৫টি প্রাণী। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো- গুইসাপ, সজারু, বাগডাশ, মার্বেল ক্যাট, গোল্ডেন ক্যাট, ফিশিং ক্যাট, খ্যাঁকশিয়াল ও বনরুই।

বাংলাদেশ সময়: ১৫৫০ ঘণ্টা, এপ্রিল ২২, ২০২২
এসবি/আরবি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa