ঢাকা, বুধবার, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ০৭ ডিসেম্বর ২০২২, ১২ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

নির্বাচন

ভোট পড়েছে ৭৩.৯১ শতাংশ

ইকরাম-উদ দৌলা, সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৪২৩ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৩১, ২০১৫
ভোট পড়েছে ৭৩.৯১ শতাংশ

ঢাকা: নবম পৌরসভা নির্বাচনে ভোট পড়েছে ৭৩ দশমিক ৯১ শতাংশ। মাঠ পর্যায় থেকে প্রাপ্ত ফলাফলের ভিত্তিতে নির্বাচন কমিশনের তৈরি প্রতিবেদন থেকে এ তথ্য জানা যায়।


 
ইসির যুগ্ম সচিব জেসমিন টুলী বাংলানিউজকে জানান, স্থগিত ১৯ পৌরসভার ৫০টি ভোটকেন্দ্রের ফলাফল বাদ দিয়ে এ হিসাব করা হয়েছে।
 
প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, ৬০ লাখ ৬৩ হাজার ৭২৯জন ভোটারের মধ্যে ৪৪ লাখ ৮১ হাজার ৭৬০ জন ভোটার পৌর নির্বাচনে ভোট দিয়েছেন। যা মোট ভোটারের ৭৩ দশমিক ৯১ শতাংশ।
 
ইসির জনসংযোগ পরিচালক এসএম আসাদুজ্জামান বাংলানিউজকে জানান, সাতজন প্রার্থী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন। আর কেন্দ্র স্থগিত হওয়ার কারণে ১৯ পৌরসভার হিসাব করা হয়নি। এক্ষেত্রে মোট ২০৮টি পৌরসভার প্রতিবেদন তৈরি করা হয়েছে।
 
এদিক স্থগিত কেন্দ্রের ভোট বাদ দিয়ে হিসাব করে সংশ্লিষ্ট ১৮ রিটার্নিং কর্মকর্তাকে ফলাফল পাঠাতে বলেছে নির্বাচন কমিশন। বৃহস্পতিবার (৩১ ডিসেম্বর) সকালে এ সংক্রান্ত নির্দেশনা ওই ১৮ জন রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে পাঠিয়েছে ইসির সহকারী সচিব রাজীব আহসান।

এক্ষেত্রে স্থগিত কেন্দ্রের ভোট বাদ দিয়ে কাউকে বিজয়ী ঘোষণা করা গেলে বিজয়ী ঘোষণা করার ব্যবস্থাও নিতে বলা হয়েছে ওই নির্দেশনায়।
 
ইসির যুগ্ম সচিব জেসমিন টুলী বলেন, ১৯ পৌরসভার ভোটের হিসাব এলে নির্বাচনে ভোট পড়ার হারও আরেকটু বাড়তে পারে।
 
ইসির প্রতিবেদনে দেখা যায়, ২০৮ পৌরসভায় প্রদত্ত ভোটের মধ্যে ৭৮ হাজার ৯২৫টি ভোট বাতিল হয়েছে। এ নির্বাচনে বৈধ ভোটের সংখ্যা ৪৪ লাখ ২ হাজার ৮৩৫টি।
 
২০১১ সালে অনুষ্ঠিত অষ্টম পৌরসভা নির্বাচনে ৮০ শতাংশের বেশি ভোট পড়েছিলো।

বুধবার (৩০ ডিসেম্বর) দেশের ২৩৪ পৌরসভায় একযোগে ভোটগ্রহণ করে নির্বাচন কমিশন। এতে অনিয়মের কারণে ১৮ পৌরসভায় ৩৮ ভোটকেন্দ্র এবং নরসিংদীর মাধবদী পৌরসভার ভোট স্থগিত করা হয়।

বাংলাদেশ সময়: ১৪২৪ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৩১, ২০১৫
ইইউডি/এএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa