ঢাকা, শনিবার, ৭ বৈশাখ ১৪২৬, ২০ এপ্রিল ২০১৯
bangla news

বাংলা নববর্ষে দারাজে অনলাইন বৈশাখী মেলা

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৩-২৪ ৩:০১:৪২ পিএম
সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত অতিথিরা/ছবি- শাকিল

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত অতিথিরা/ছবি- শাকিল

ঢাকা: বাংলা নববর্ষ ১৪২৬ উপলক্ষে অনলাইনে বৈশাখী মেলার আয়োজন করেছে দেশের অন্যতম বৃহৎ ই-কমার্স সাইট দারাজ। আগামী ২৮ মার্চ থেকে শুরু হয়ে ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত ১৭ দিনব্যাপী চলবে এ বৈশাখী মেলা।

রোববার (২৪ মার্চ) রাজধানীর একটি হোটেলে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে এ ক্যাম্পেইনের ঘোষণা দেয় দারাজ। এসময় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন দারাজের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সৈয়দ মোস্তাহিদল হক। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন প্রতিষ্ঠানটির চিফ কমার্শিয়াল অফিসার ফুয়াদ আরেফিন তন্ময়, ই-কমার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ’র (ই-ক্যাব) সাধারণ সম্পাদক আবদুল ওয়াহিদ তমাল, একসেস টু ইনফরমেশন (এটুআই) এর হেড অব কমার্শিয়ালাইজেশন রেজওয়ানুল হক জামিসহ অন্যরা। 

সংবাদ সম্মেলনে বৈশাখী মেলার বিভিন্ন দিক তুলে ধরে সৈয়দ মোস্তাহিদল হক বলেন, প্রায় ১৯ লাখ পণ্যের সমাহার নিয়ে আমাদের এ ক্যাম্পেইন সাজানো হয়েছে। আশা করছি এই সময়ের মধ্যে আমরা প্রায় ৩ লাখ অর্ডার পাবো, যা থেকে রাজস্ব আসবে প্রায় ৭০ কোটি টাকা। গ্রাহকদের অর্ডার করা পণ্য দ্রুততম সময়ে তাদের কাছে পৌঁছানো হবে। আমরা টার্গেট করেছি সর্বোচ্চ তিনদিনের মধ্যে পণ্য পৌঁছানোর। প্রতিদিন প্রায় ৪০ হাজার পণ্য সরবরাহ করা হবে। এজন্য আমরা ঢাকার বাইরে ১৩টি হাব করেছি। 

দারাজকে শহরের বাইরে ছড়িয়ে দেওয়া হবে জানিয়ে প্রতিষ্ঠানটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক আরও বলেন, অনলাইনের বাইরে অফলাইনেও গ্রাহকদের কাছে ই-কমার্স পৌঁছে দিতে কাজ করছে দারাজ। এজন্য আমরা প্রোডাক্ট হাব, রিজিওনাল হাবের মাধ্যমে কাজ করছি। গ্রামাঞ্চলের জন্য ‘দারাজ ভিলেজ’ নামক একটি প্রকল্প হাতে নেওয়া হয়েছে। এছাড়া  ‘দারাজ শপ’ নামে আরেকটি প্রকল্প নিয়েছি আমরা। পাশাপাশি ই-কমার্সে নারীদের অংশগ্রহণ বাড়াতে ‘নন্দিনী’ নামের আরেকটি প্রকল্প আছে আমাদের। আমরা এতোকিছু করছি বাংলাদেশের ই-কমার্স খাতের ইকো-সিস্টেমকে সমৃদ্ধ করার জন্য। 

সংবাদ সম্মেলনে আরো জানানো হয়, চতুর্থবারের মতো দারাজ আয়োজিত অনলাইন বৈশাখী মেলায় গ্রাহকদের জন্য মূল্য ছাড় ছাড়াও থাকছে আই লাভ ভাউচার, মেগা ভাউচার, মিস্ট্রি বক্স, দৈনিক ফ্ল্যাশ সেল এবং গ্লোবাল কালেকশন।

গ্রাহকদের কেনাকাটার জন্য পেমেন্ট পার্টনার হিসেবে থাকছে ব্যাংক ডিসকাউন্ট এবং বিকাশ ক্যাশ ব্যাক অফার। লঙ্কাবাংলা ভিসা কার্ড, সাউথইস্ট ব্যাংক, ব্র্যাক ব্যাংক এবং সিটি ব্যাংকের ডেবিট ও ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমে মূল্য পরিশোধ করলে পাওয়া যাবে ১০ শতাংশ মূল্য ছাড়। আর দারাজ অ্যাপ থেকে পণ্য ক্রয় করে বিকাশে পেমেন্ট করলে পাওয়া যাবে সর্বোচ্চ ২০ শতাংশ পর্যন্ত ক্যাশব্যাক সুবিধা। 

দারাজ আয়োজিত অনলাইন এ বৈশাখী মেলার মিডিয়া পার্টনার হিসেবে থাকছে বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম।

বাংলাদেশ সময়: ১৫০০ ঘণ্টা, মার্চ ২৪,২০১৯
এসএইচএস/জেডএস

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14