ঢাকা, সোমবার, ১৩ ফাল্গুন ১৪৩০, ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৫ শাবান ১৪৪৫

অর্থনীতি-ব্যবসা

‘ঝুঁকি এড়াতে ডিজিটাল ব্যাংক নীতিমালা করতে হবে’

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮৫০ ঘণ্টা, নভেম্বর ১৯, ২০২৩
‘ঝুঁকি এড়াতে ডিজিটাল ব্যাংক নীতিমালা করতে হবে’

ঢাকা: নীতিমালা ছাড়াই দুটি ডিজিটাল ব্যাংকের লাইসেন্স দেওয়া হয়েছে। এর ফলে নতুন আর্থিক ব্যবস্থায় গ্রাহকরা ঝুঁকিতে পড়তে পারে বলে মনে করছেন পলিসি রিসার্স ইনিস্টিটিউটের (পিআরআই) নির্বাহী পরিচালক ড. আহসান এইচ মনসুর।

তিনি বলেন, এ মুহূর্তে দ্রুততার সাথে ডিজিটাল ব্যাংকিংকে নীতি কাঠামোর মধ্যে এনে নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থা শক্তিশালী করতে হবে।

রোববার (১৯ নভেম্বর) বনানীর পিআরআই আয়োজিত ‘নিউ ডায়মেনশন অব ডিজিটাল সার্ভিস ইন বাংলাদেশ’ শীর্ষক সেমিনারে বিশেষ বক্তার বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

আহসান এইচ মনসুর বলেন, ডিজিটাল ব্যাংকিং প্রযুক্তিনির্ভর তরুণদের চাহিদা পূরণ করবে। যারা ঘরে বসে দিন রাত ২৪ ঘণ্টা এ সুবিধা নিতে পারবে। পাশাপাশি শহর-পল্লি নির্বিশেষে বিপুলসংখ্যক মানুষ আছে, যারা মূলধারা ব্যাংকিং সুবিধার আওতার বাইরে। ডিজিটাল ব্যাংকিং তাদের সুবিধা দেবে। এ জন্য সুচিন্তিভাবে, দ্রুততার সাথে ডিজিটাল ব্যাংকিংয়ের নীতিকাঠামো তৈরি ও সাইবার নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করার মধ্য সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থা প্রতিষ্ঠা করতে হবে। তা না্ হলে হাওয়ার টাকা হাওয়ায় চলে যাবে।

দেশে মোবাইল ব্যাংকিং ভালো করছে। মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে পাওয়া সেবার মাধ্যমে অর্জিত প্রযুক্তি জ্ঞান ডিজিটাল ব্যাংকিংয়ের লেনদেন সহায়ক হবে। এক্ষেত্রে মোবাইল ব্যাংকিংয়ে ভালো করছে এমন প্রতিষ্ঠানকে ডিজিটাল ব্যাংকিংয়ের লাইসেন্স দিলে আরও ভালো ফল পাওয়া যেত, মত দেন এই গবেষক।

গবেষণা পরিচালক ড. আব্দুর রাজ্জাক বলেন, তৈরি পোশাক শিল্পের শ্রমিকদের মজুরি বৃদ্ধি করলেও তৈরি পোশাক শিল্প ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার সম্ভাবনা নেই। কারণ ইতোমধ্যে বাংলাদেশ তৈরি পোশাক শিল্পে জন্য দক্ষতা অর্জন করেছে; তৈরি পোশাকের বাজার বাড়িয়েছে এবং উৎপাদনশীলতা বৃদ্ধি করেছে। এর ফলে ইচ্ছা করলেও কেউ বাংলাদেশের তৈরি পোশাক বাদ দিয়ে অন্য দেশের তৈরি পোশাক আমদানি করে সুবিধা করতে পারবে না।

তিনি বলেন, যুক্তরাষ্ট্র তৈরি পোশাক আমদানির ক্ষেত্রে চীনের বিকল্প হিসাবে চীন-প্লাস নীতি গ্রহণ করার ফলে বাংলাদেশই যুক্তরাষ্ট্রের প্রধান বিকল্প। এ ছাড়াও চীনও উৎপাদন বহুমুখী করার ফলে মৌলিক তৈরি পোশাক থেকে বের হয়ে উচ্চমূল্যের পোশাকের দিকে অগ্রসর হচ্ছে। এর ফলে ছেড়ে দেওয়া বাজার ধরার সম্ভবনা আছে। এছাড়া বাংলাদেশের তৈরি পোশাক খাতের সুবিধা হলো, শুরু থেকেই বাংলাদেশের তৈরি পোশাক শিল্পের শ্রমিকদের মজুরি কম। এর ফলে যতই মজুরি বাড়ুক শিল্পকে সক্ষমতাকে ঝুঁকিতে ফেলবে না।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে পিআরআই-এর চেয়ারম্যান জায়েদি সাত্তার, পরিচালক বজলুল হক খন্দকার প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৮৪৮ ঘণ্টা, নভেম্বর ১৯, ২০২৩
জেডএ/এমজেএফ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।