ঢাকা, সোমবার, ১৮ শ্রাবণ ১৪২৮, ০২ আগস্ট ২০২১, ২২ জিলহজ ১৪৪২

চট্টগ্রাম প্রতিদিন

এএসপি যখন ঈদ জামাতের খতিব

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯৩৯ ঘণ্টা, জুলাই ২১, ২০২১
এএসপি যখন ঈদ জামাতের খতিব ছবি: সংগৃহীত

চট্টগ্রাম: রাউজানে ঈদ জামাতে মুসল্লিদের সরকারি স্বাস্থ্যবিধি সম্পর্কে সচেতন করার পাশাপাশি নিজেকে এবং পাড়াপড়শিদের নিরাপদ রাখার আবশ্যকতা সংক্রান্ত ধর্মীয় বয়ান করেছেন চট্টগ্রামের সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি-রাউজান রাঙ্গুনিয়া সার্কেল) মো. আনোয়ার হোসেন শামীম।  

বুধবার (২১ জুলাই) সকালে উপজেলার বিভিন্ন ঈদগাহে উপস্থিত হয়ে তিনি এ কার্যক্রমে অংশ নেন।

জানা যায়, রাউজানের বিভিন্ন এলাকায় সকাল ৭টা থেকে শুরু করে ৯টা পর্যন্ত মোট ১৪৫টি ঈদ জামাত অনুষ্ঠিত হয়। ঈদগাহসমূহে সরকারি বিধিবিধান প্রতিপালন নিশ্চিতে দৃশ্যমান ভূমিকায় ছিল পুলিশ প্রশাসন। এ লক্ষ্যে আগে জুমার দিন পুলিশ কর্মকর্তারা উপজেলার মসজিদে মসজিদে গিয়ে করোনাকালীন ঈদ জামাতে করণীয় ও বর্জনীয় বিষয়াদি সম্পর্কে সবাইকে সতর্ক করেন। এরই ধারাবাহিকতায় ঈদের দিন সকাল থেকে এএসপি বিভিন্ন ঈদগাহে উপস্থিত হয়ে মুসল্লিদের সচেতন করেন।

করোনার সংক্রমণ এড়াতে এএসপির এই উদ্যোগ প্রশংসা কুড়িয়েছে স্থানীয়দের কাছে। রাউজানের পাহাড়তলী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান রোকন উদ্দিন বলেন, গ্রামের মানুষ এমনিতেই স্বাস্থ্যবিধি সম্পর্কে বেশি কিছু জানেন না। এএসপি’র কথায় সবাই এ ব্যাপারে সচেতন হয়েছেন। কষ্ট স্বীকার করে ঈদের দিন এমন সুন্দর একটি পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য এএসপিকে এলাকাবাসীর পক্ষ থেকে ধন্যবাদ জানাই।

এ প্রসঙ্গে এএসপি মো. আনোয়ার হোসেন শামীম বাংলানিউজকে বলেন, ঈদ জামাতে সরকার ঘোষিত স্বাস্থ্যবিধি প্রতিপালন নিশ্চিত করতে আমরা গত কয়েকদিন ধরেই ধারাবাহিক উদ্যোগ গ্রহণ করেছি। ঈদের দিনের কার্যক্রম এরই অংশবিশেষ। আমাদের অনুরোধে ইতিবাচক সাড়া দেওয়ার জন্য আমি সংশ্লিষ্ট সকলকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি।  

উল্লেখ্য, এ বছর করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের মধ্যেই দেশব্যাপী উদযাপিত হয়েছে পবিত্র ঈদুল আজহা। ঈদের আনুষ্ঠানিকতা যেন করোনার সংক্রমণ বাড়িয়ে না দেয়, সেজন্য ধর্ম মন্ত্রণালয় থেকে হ্যান্ডশেক-কোলাকুলি না করা, মাস্ক পরিধান করা, একটি কাতার ফাঁকা রেখে দাঁড়ানো ইত্যাদি বিধিনিষেধ জারি করা হয়।

বাংলাদেশ সময়: ১৯৩২ ঘণ্টা, জুলাই ২১, ২০২১
এমএম/এসি/টিসি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa