ঢাকা, রবিবার, ৮ বৈশাখ ১৪৩১, ২১ এপ্রিল ২০২৪, ১১ শাওয়াল ১৪৪৫

ক্রিকেট

গাঙ্গুলির দুর্দান্ত রেকর্ডে ভাগ বসালেন কোহলি

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২৭ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৩০, ২০১৮
গাঙ্গুলির দুর্দান্ত রেকর্ডে ভাগ বসালেন কোহলি জয়ের পর সতীর্থ আজিঙ্কা রাহানের সঙ্গে কোহলি-ছবি: সংগৃহীত

মেলবোর্ন টেস্টে অস্ট্রেলিয়াকে ১৩৭ রানের বড় ব্যবধানে হারিয়ে চার ম্যাচ সিরিজে ২-১ ব্যবধানে এগিয়ে গেল ভারত। ফলে বিরাট কোহলির নেতৃত্বে প্রথমবারের মতো অজিদের মাটিতে সিরিজ জয়ের সুযোগ থাকছে টিম ইন্ডিয়ার সামনে।

এ ম্যাচ শেষে সংখ্যায় সংখ্যায় কিছু পরিসংখ্যান পাঠকদের জন্য তুলে ধরা হলো:

৭- অস্ট্রেলিয়া মাটিতে নিজেদের ইতিহাসে এ নিয়ে মোট ৭টি টেস্ট জয় হলো ভারতের। এছাড়া মেলবোর্নের মাঠটি ভারতের সবচেয়ে পয়া ভেন্যু হয়ে থাকলো।

এ স্টেডিয়ামে সর্বোচ্চ ৩টি টেস্ট জিতেছে তারা। আর এ নিয়ে দ্বিতীয়বার অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে এক সিরিজে একটির বেশি টেস্ট জিতলো ভারত। এর আগে ১৯৭৭-৭৮ মৌসুমে দুটি টেস্ট জিতেছিল। তবে সেবার ৫ ম্যাচ সিরিজে ৩-২ ব্যবধানে হেরেছিল তারা। এছাড়া ১৯৮৬ সালের পর এবারই প্রথম এসইএনএ’র (দক্ষিণ আফ্রিকা, ইংল্যান্ড, নিউজিল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়া) মাটিতে একটির বেশি টেস্ট জিতিয়ে দেখালো দলটি।

১১- বিরাট কোহলির নেতৃত্বে দেশের বাইরে ১১টি টেস্ট জিতলো ভারত। ফলে তিনি সাবেক অধিনায়ক সৌরভ গাঙ্গুলির রেকর্ডে ভাগ বসালেন। ২৪ টেস্টে কোহলি এমন কৃতিত্ব দেখালেন। যা গাঙ্গুলির লেগেছিল ২৮টি টেস্টে। কোহলি এসইএনএ’র দেশগুলোতে চারটি টেস্ট জেতানো অধিনায়ক। ভারতীয় অধিনায়ক হিসেবে যা সর্বোচ্চ। তিনি পেছনে ফেললেন মাহেন্দ্র সিং ধোনি ও মনসুর আলী খান পোতৌদিকে। তাদের অধীনে ভারত ৩টি করে টেস্ট জিতেছিল।

০- টস জিতে এখন পর্যন্ত কোনো টেস্ট হারেননি কোহলি। এই দলনেতার অধীনে ভারত টসে জিতে ১৮টি জয় ও ৩টি টেস্ট ড্র দেখেছে। ইংল্যান্ডের মাটিতে ভারত তার অধীনে ৫টি টস হেরেছে। আর দক্ষিণ অাফ্রিকায় ৩টির মধ্যে একটি ম্যাচে টসে জিতেছে। উল্লাসে মেতেছেন কোহলি-ছবি: সংগৃহীত২০- ভারতীয় উইকেটরক্ষক ঋশভ প্যান্ত এই সিরিজে এখন পর্যন্ত ২০টি ডিসমিসাল করেছেন। যা একটি নির্দিষ্ট সিরিজে ভারতীয় হিসেবে রেকর্ড। তিনি পেছনে ফেলেছেন ১৯৫৪-৫৫ সালে নারেন তামহানে ও ১৯৭৯-৮০ সালের সৈয়দ কিরমানির রেকর্ড। মজার ব্যাপার প্যান্তের করা ২০টি ডিসমিলাসের সবকটিই ছিল ক্যাচ। এটিও ভারতীয় হিসেবে রেকর্ড।

৪৭- ভারতীয় পেসাররা এই সিরিজে এখন পর্যন্ত ৪৭টি উইকেট নিয়েছেন। অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে এটি দ্বিতীয় সেরা। এর আগে ১৯৯১-৯২ মৌসুমে ৫ ম্যাচ সিরিজে সর্বোচ্চ ৫৭টি উইকেট নিয়েছিলেন। এছাড়া ২০১৮ সালে ভারতীয় ফাস্ট বোলাররা ২৩.৭০ গড়ে ১৭৯টি উইকেট নিয়েছেন।

৮- মোট ৮বার ভারতীয় ফাস্ট বোলাররা এ বছর ইনিংসে ৫ বা তার বেশি উইকেট নিয়েছেন। যা যৌথভাবে দক্ষিণ আফ্রিকা ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের সমান। আর ভারতের যেকোনো বছরের সেরা। এর আগে ১৯৮১ সালে ৬বার এমন কীর্তি গড়েছিল ভারতীয় পেসাররা।

৮৬ রানে ৯- এটি মেলবোর্নে জসপ্রিত বুমরাহ’র বোলিং ফিগার। অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে যা সেরা। বুমরাহ’রও এটি ক্যারিয়ার সেরা। এর আগে কপিল দেব ও অজিত আগারকার অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে ম্যাচে ৮টি উইকেট পেয়েছিলেন। অন্যদিকে মেলবোর্নে অস্ট্রেলিয়ার পেসার প্যাট কামিন্সও ইনিংস ও ম্যাচে সেরা ফিগার গড়েছেন। তিনি ৯৯ রানে ৯টি উইকেট নিয়েছিলেন।

৪- ২০১৮ সালে ১০টি টেস্টে অস্ট্রেলিয়ানরা মাত্র ৪টি ব্যক্তিগত সেঞ্চুরির দেখা পেয়েছে। ১৯৯৬ সালের পর যা সর্বনিম্ন। সেবার অবশ্য তারা মাত্র ৫টি টেস্ট খেলেছিল। মজার ব্যাপার অজিদের এই ৪ সেঞ্চুরির ৩টি এসেছিল ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সিডনি টেস্টে। যেটিতে তারা জয় পেয়েছিল।

বাংলাদেশ সময়: ১৫২১ ঘণ্টা, ৩০ ডিসেম্বর, ২০১৮
এমএমএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।