bangla news

জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব রুখতে ব্র্যাকের ট্রাস্ট

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-১০-৩১ ১১:৪৬:০২ পিএম
ছবি:সংগৃহীত

ছবি:সংগৃহীত

ঢাকা: জলবায়ু পরিবর্তনজনিত নেতিবাচক প্রভাব মোকাবেলায় একটি ট্রাস্ট গঠনের লক্ষ্যে চুক্তি স্বাক্ষর করেছে ব্র্যাক এবং জার্মান ডেভেলাপমেন্ট ব্যাংক (কেএফডব্লিউ)।

ট্রাস্টটি জলবায়ু পরিবর্তনের সঙ্গে অভিযোজন ও জলবায়ু পরিবর্তনজনিত স্থানান্তর মোকাবেলায় টেকসই সমাধান উদ্ভাবন ও প্রসারে কাজ করবে। জার্মান ডেভেলাপমেন্ট ব্যাংক এক্ষেত্রে জার্মান সরকারের পক্ষে চুক্তিতে স্বাক্ষর করে।

বৃহস্পতিবার (৩১ অক্টোবর) রাজধানীর ব্র্যাক সেন্টারে এ চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠিত হয়। চুক্তিটি প্রাথমিকভাবে ২০১৭ সালে স্বাক্ষরিত হয়েছিল। কিছু প্রয়োজনীয় সংশোধনীসহ চুক্তিটি আজ আবার স্বাক্ষরিত হয়েছে।

‘ক্লাইমেট ব্রিজ ফান্ড’ শীর্ষক এই ট্রাস্ট প্রতিষ্ঠান দুটির আলোচনা ও পর্যালোচনার মধ্য দিয়ে গঠন করা হয়েছে। এটি বাংলাদেশের জলবায়ু পরিবর্তনজনিত নেতিবাচক প্রভাবের ঝুঁকিতে বসবাসকারী জনগোষ্ঠীর সহায়তা ও উন্নয়নে কাজ করবে।

ব্র্যাক বাংলাদেশের নির্বাহী পরিচালক আসিফ সালেহ এবং জার্মান ডেভেলাপমেন্ট ব্যাংকের পরিচালক অনির্বাণ কুন্ডু চুক্তিটি স্বাক্ষর করেন।

চুক্তি স্বাক্ষর শেষে আসিফ সালেহ্ তার বক্তব্যে বলেন, জলবায়ু পরিবর্তনের নেতিবাচক প্রভাব সারা বিশ্বের জন্যই আজ বিরাট চ্যালেঞ্জ। এ কারণে ব্র্যাকের আগামী পাঁচ বছরব্যাপী কার্যক্রমে অন্যতম প্রধান বিবেচ্য হবে জলবায়ু পরিবর্তনজনিত প্রভাব মোকাবেলা। এই ট্রাস্ট এক্ষেত্রে একটি অনন্য উদ্যোগ। এটি বাংলাদেশে টেকসই সমাধান উদ্ভাবন ও তার প্রসারে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। যা গতানুগতিক উন্নয়ন প্রকল্পগুলোর ক্ষেত্রে পাওয়া সম্ভব হয় না।
 
উদ্যোগটি জলবায়ু পরিবর্তনের শিকার হয়ে গ্রাম থেকে শহরে চলে আসা জনগোষ্ঠী এবং এ ধরনের ঝুঁকিতে থাকা নগরবাসী জনগোষ্ঠীর বহুমাত্রিক সক্ষমতা বাড়ানো ও টেকসই উন্নয়নের লক্ষ্যে ধারাবাহিকভাবে কাজ করে যাবে। এলক্ষ্যে উদ্যোগটির মাধ্যমে স্থানীয় বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা, সামাজিক বিভিন্ন উদ্যোগ ও ব্যক্তিমালিকানা খাতকে তহবিল সহায়তা প্রদান করা হবে।

বাংলাদেশ সময়: ২৩৪৩ ঘণ্টা, অক্টোবর ৩১, ২০১৯
এমএএম/এমএমএস

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

জলবায়ু ও পরিবেশ বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত

Alexa
db 2019-10-31 23:46:02