ঢাকা, শুক্রবার, ৯ আশ্বিন ১৪২৭, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৬ সফর ১৪৪২

বইমেলা

স্বপন চক্রবর্ত্তীর কাব্যগ্রন্থ একুশে বইমেলায়  

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২৩১০ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ১৪, ২০১৯
স্বপন চক্রবর্ত্তীর কাব্যগ্রন্থ একুশে বইমেলায়   যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী কবি স্বপন চক্রবর্ত্তীর দুইটি কাব্যগ্রন্থ ‘মগ্ন জলে’ ও ‘মেঘ অতলে’

চট্টগ্রাম: যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী কবি স্বপন চক্রবর্ত্তীর দুইটি কাব্যগ্রন্থ এসেছে চট্টগ্রামের অমর একুশে বইমেলায়। ‘মগ্ন জলে’ ও ‘মেঘ অতলে’ বইগুলো পাওয়া যাচ্ছে এমএ আজিজ স্টেডিয়ামের জিমনেসিয়াম মাঠের শৈলী প্রকাশন, বলাকা প্রকাশন ও আবির প্রকাশনের স্টলে।

চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন ও সৃজনশীল প্রকাশক পরিষদ ১৯ দিন ব্যাপী এ বইমেলার আয়োজন করেছে।

ঢাকার প্রচলন প্রকাশন থেকে প্রকাশিত ‘মগ্ন জলে’ স্থান পেয়েছে ৭৯টি কবিতা।

বইটি সম্পর্কে কবি মুহম্মদ নূরুল হুদা বলেছেন, ‘স্বপ্নাতুর পরিচিতির অধিকারী স্বপন চক্রবর্ত্তী। প্রেম-ভালোবাসার পাশাপাশি দেশও তাকে আকৃষ্ট করে। হারানো স্বদেশের আত্মা তাকে ডাকে। সত্যের প্রতি সহজাত আকর্ষণ তাকে সাহসী করে তোলে। গীতল উচ্চারণে সেই আত্মজৈবনিক অনুসন্ধিৎসা তার কবিতাকে অনায়াসে সমৃদ্ধ করে তোলে। পাখি, প্রকৃতি, আকাশ, অনন্ত, মূর্ত আর বিমূর্ত চিত্রকল্পের এক অপরূপ আত্মকথন গ্রথিত তার কবিতা-শরীর। ’

১১০ পৃষ্ঠার সুদৃশ্য কাব্যগ্রন্থটির প্রচ্ছদ করেছেন অনন্ত আকাশ। দাম রাখা হয়েছে ১৮০ টাকা।

কাব্যচর্চাই আরাধ্য সাধনা কবি স্বপন চক্রবর্ত্তীর। কবিতায় জীবনের কথা বলতে ভালোবাসেন তিনি। চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সমাজবিজ্ঞান এবং বাংলা ভাষা ও সাহিত্যে ডবল মাস্টার্স ডিগ্রি, আইনে স্নাতক ডিগ্রিধারী আইন পেশা ও আইন কলেজে অধ্যাপনা করেছেন। সংস্কৃতিকর্মী হিসেবে যুক্ত ছিলেন স্বৈরাচারবিরোধী আন্দোলনের সঙ্গে। ১৯৯৫ সাল থেকে উত্তর আমেরিকার নিউইয়র্কে সপরিবারে বসবাস শুরু করেন। ২০০২ সালে সিটি ইউনিভার্সিটি অব নিউইয়র্কের বারউখ কলেজ থেকে পাবলিক অ্যাডমিনেস্ট্রেশন বিভাগ থেকে তৃতীয় মাস্টার্স ডিগ্রি লাভ করেন। বর্তমানে তিনি নিউইয়র্ক রাজ্যের সরকারি এজেন্সিতে সিনিয়র ম্যানেজার পদে কর্মরত। তার প্রথম কাব্যগ্রন্থ ‘পরশ’। এরপর প্রকাশিত হয় ‘ক্ষরণ’।

ঢাকার মাটিয়া মিডিয়া অ্যান্ড পাবলিকেশন থেকে প্রকাশিত ‘মেঘ অতলে’ স্থান পেয়েছে ৪০টি কবিতা। চিরায়ত বাংলা কবিতার প্রতি নিবিষ্ট অনুরাগী স্বপন চক্রবর্ত্তীর কবিতাগুলোতে বহুরৈখিক ভাবনা আঁকড়ে ধরেই পঙক্তিগুলো সাজিয়েছেন। কবি নিংড়ে দিতে চেয়েছেন সহজাত বাংলা কবিতার গীতল উৎসারণ। শুভবোধ, মঙ্গলাকাঙ্ক্ষা, প্রেম, বিভ্রম ও স্মৃতিকাতরতা জড়িয়ে আছে প্রবলভাবে। প্রকৃতির ক্ষুদ্র কিন্তু প্রাসঙ্গিক অনুষঙ্গগুলো তুলে এনেছেন দক্ষ কারিগরের মতো। স্বদেশ বাংলার প্রকৃতি ও পরিপার্শ্ব ছড়িয়ে আছে কবিতাগুলোতে। বইটির প্রচ্ছদ করেছেন মাসুক হেলাল। দাম রাখা হয়েছে ২০০ টাকা।

বলাকা প্রকাশনের জামাল উদ্দিন বলেন, বইমেলা হচ্ছে বাঙালির প্রাণের মেলা। প্রবাসী কবি-সাহিত্যিকরাও বই পাঠিয়ে এ মেলায় নিজেদের উপস্থিতি জানান দেন। এতে লেখক-পাঠকের মধ্যে সেতুবন্ধন রচিত হয়। মাঝখানে থাকেন প্রকাশক ও মেলার আয়োজকরা। এবার প্রবাসী কবি স্বপন চক্রবর্ত্তীর দুইটি কাব্যগ্রন্থ মেলায় এসেছে।

আবির প্রকাশনের মুহম্মদ নুরুল আবসার বলেন, স্বপন চক্রবর্ত্তী এ নগরেরই কবি। যুগ যুগ ধরে প্রবাসে থাকলেও এখানে তার ভক্তপাঠক, শুভানুধ্যায়ী ও স্বজনদের কমতি নেই। স্বাভাবিকভাবেই তার কাব্যগ্রন্থগুলো নিয়ে কৌতূহল রয়েছে বইমেলায়।   

শৈলী প্রকাশনে কথা হয় লেখক-সাংবাদিক আরিফ রায়হানের সঙ্গে। তিনি বাংলানিউজকে বলেন, প্রবাসী হৃদয়ে যে ব্যাকুলতা সারাক্ষণ খুঁজে-ফেরে তা-ই মূর্ত হয়েছে স্বপন চক্রবর্ত্তীর কবিতায়। আমাদের চেনা জগতই তার কাছে অন্যরূপে ধরা দিয়েছে। ফলে তার কবিতায় যে আবেগ, অনুরাগ আর ভালোবাসা ধরা দেয় তা পাঠককে অন্যরকম আন্দোলিত করে।

বাংলাদেশ সময়: ১৭৫৬ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ১৪, ২০১৯
এআর/টিসি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa