[x]
[x]
ঢাকা, সোমবার, ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ১৯ নভেম্বর ২০১৮
bangla news

সুন্দরের আহ্বানে পর্দা নামলো লিট ফেস্টের

ফিচার রিপোর্টার | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-১১-১১ ১:০২:০৪ এএম
উৎসবের সমাপ্তি ঘোষণা করেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত, ছবি: জিএম মুজিবুর

উৎসবের সমাপ্তি ঘোষণা করেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত, ছবি: জিএম মুজিবুর

ঢাকা: সুন্দরের আহ্বান ও শীর্ষেন্দু মুগ্ধতায় পর্দা নামলো ঢাকা আন্তর্জাতিক সাহিত্য উৎসব বা ঢাকা লিট ফেস্ট ২০১৮ এর। আগামী বছর আরও নতুন আলোচনার দিগন্ত নিয়ে উপস্থিত হওয়ার আশাবাদ জানিয়ে পৃথিবীকে সুন্দর করে গড়ে তোলার প্রত্যাশায় শেষ হয় তিন দিনের এ আয়োজন। সঙ্গে বিকেল থেকেই আয়োজনে ছিল শীর্ষেন্দু মুখোপাধ্যায়ের মুগ্ধতা।

শনিবার (‌১০ নভেম্বর) রাতে উৎসবের সমাপ্তি ঘোষণা করেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত। এসময় মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন উৎসব পরিচালক সাদাফ সাজ। এর আগে মনীষা কৈরালার ক্যান্সার জয়ের গল্প, কথাসাহিত্যিক শীর্ষেন্দু মুখোপাধ্যায়ের কথোপকথন, কবিতা আবৃত্তি, লেখকের স্বাধীনতা, বাংলা সাহিত্য: নারী ও পুরুষ শীর্ষক নানা অধিবেশনে মুখরিত ছিল শেষ দিনটি।

উৎসবের সমাপনী বক্তব্যে অর্থমন্ত্রী দেশের সাহিত্য ও সংস্কৃতির বিকাশে অবদান রাখার জন্য আয়োজকদের ধন্যবাদ জানান। এছাড়া এদেশের সাহিত্য-সংস্কৃতি ও রাজনীতি নিজ গতিতে এগিয়ে চলেছে বলে উল্লেখ করেন তিনি।

অর্থমন্ত্রী বলেন, রাজনৈতিক পরিবর্তনের বাতাস আমরা সংস্কৃতি এবং সাহিত্যের পালে লাগাতে দিই না। নির্বাচন আমাদের খুব সন্নিকটে, পরিবেশ খুব ভালো এবং শান্ত। এখানে বিদেশি অতিথিরা এসেছেন, তাদের কাছে আমার প্রশ্ন, আপনারা কি বুঝতে পেরেছেন যে দেশে ইলেকশন সামনে? আশা করি বুঝতে পারেননি। এর মানে হলো আমরা ভালো আচরণ করছি এবং ডিসেম্বরেই নির্বাচন হবে।

সমাপনী দিনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭১তম জন্মদিন উপলক্ষে গল্পকার থেকে প্রকাশিত বাংলা ও ইংরেজি ভাষায় লেখা কবিতার সংকলন ‘পিস অ্যান্ড হারমনি: সেভেন্টিওয়ান পোয়েমস ডেডিকেটেড টু শেখ হাসিনা’ কাব্যগ্রন্থের আলোচনা, সাহিত্যে হ্যাশট্যাগ মি-টু’ আন্দোলনের প্রভাব নিয়ে ‘নো নোবেল: মি-টু ইন লিটারেচার’ শীর্ষক আলোচনা, পুলিৎজারজয়ী সাহিত্যিক অ্যাডাম জনসনের প্রথম উপন্যাস ‘প্যারাসাইটস লাইক আস’ শিরোনামে লেখকের কথোপকথন, ভাষার বৈচিত্র্য নিয়ে কথা, কবিতা কী, কেনো এবং কীভাবে তার আলোচনাসহ বিভিন্ন দর্শক নন্দিত সেশন অনুষ্ঠিত হয়।

এছাড়া সকাল ১০টায় উন্মুক্ত প্রাঙ্গণে ছিল আসলাম সানীর সঞ্চালনায় ‘কিশোর মনন ও আবৃত্তি’। নভেরা প্রদর্শনালয়ে ছিল সম্পাদনা নিয়ে রিচার্ড বেয়ার্ডের পরিচালনায় কর্মশালা। কসমিক টেন্টে ‘মুভিং পিকচারস অ্যান্ড বর্ডার’ শিরোনামের অধিবেশন। আর নজরুল মঞ্চে বিভা সিদ্দিকী শিশুদের শোনান বাংলার ঐতিহ্যবাহী লোকজ গল্প।

বেলা সাড়ে ১২টায় ছিল কবি শামসুর রাহমান সেমিনার কক্ষে ‘ডেডলি লিগাসি অব ইন্ডিয়াস পার্টিসন’ শিরোনামের অধিবেশন। উন্মুক্ত প্রাঙ্গণে ছিল ‘বাংলা সাহিত্য: নারী ও পুরুষ’ শিরোনামের আয়োজন। নভেরা প্রদর্শনালয়ে ছিল স্যালি পমির শিশুতোষ পরিবেশনা ‘দ্যা কিং উইথ ডার্টি ফিট’। কসমিক টেন্টে ছিল এ কে রহিমের গবেষণামূলক পরিবেশনা ‘দ্য রোহিঙ্গা: এ লিঙ্গুস্টিক হিস্টোরি’।

দুপুর পৌনে ২টায় কবি শামসুর রাহমান সেমিনার কক্ষে ছিল ‘টেকনোলজি অ্যান্ড দ্য ফিউচার’ শিরোনামের অধিবেশন। উন্মুক্ত প্রাঙ্গণে ‘রিবেল, রোল মডেল’ এবং নভেরা প্রদর্শনালয়ে ছিল ‘টেলস অব এন আর্ট লাভার’ আয়োজন।

বিকেল সোয়া ৩টায় আবদুল করিম সাহিত্যবিশারদ মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয় অস্কারজয়ী অভিনেত্রী ও লেখিকা টিল্ডা সুইন্টনের ‘অন ড্রামদোয়ান হিল’ শিরোনামে কথোপকথন। এসময় উন্মুক্ত প্রাঙ্গণে বসে কবিতা পাঠের আসর ‘বাংলার মুখ আমি দেখিয়াছি’ এবং নভেরা প্রদর্শনালয়ে অনুষ্ঠিত হয় ‘পেন: লেখকের মুক্তি, লেখার স্বাধীনতা’ শীর্ষক সেশন।

বিকেল সাড়ে ৪টায় আবদুল করিম সাহিত্যবিশারদ মিলনায়তনে ছিল ‘রাইটস ইন দ্য এজ অব ফেক নিউজ’ শিরোনামের অধিবেশন। কবি শামসুর রাহমান সেমিনার কক্ষে ছিল ‘আফটার দ্য ফল’। উন্মুক্ত প্রাঙ্গণে ‘ছয় নারী’ শিরোনামের আয়োজন এবং নভেরা প্রদর্শনালয়ে ছিল পাঠের আসর। এরপর কসমিক টেন্টের আয়োজন ‘রোহিঙ্গা: সেক্সুয়াল ভায়োলেন্স টেস্টিমোনিস’ এবং নজরুল মঞ্চে তিনি নারী বাউল ফকির আকলিমা, কোহিনূর আক্তার গোলাপি ও সূচনা শেলীর পরিবেশনার মাধ্যমে শেষ হয় ঢাকা লিট ফেস্টের অষ্টম আসর।

বাংলাদেশ সময়: ০০৫৮ ঘণ্টা: নভেম্বর ১১, ২০১৮
এইচএমএস/টিএ

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

শিল্প-সাহিত্য বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত

Alexa
cache