[x]
[x]
ঢাকা, বুধবার, ১২ বৈশাখ ১৪২৫, ২৫ এপ্রিল ২০১৮

bangla news

বিধ্বস্ত প্লেনে পাইলটসহ ২৬ বাংলাদেশি নিহত

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-০৩-১৩ ৪:০৭:৫৮ পিএম
ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের জিএম (জনসংযোগ) কামরুল ইসলাম-ছবি-বাংলানিউজ

ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের জিএম (জনসংযোগ) কামরুল ইসলাম-ছবি-বাংলানিউজ

ঢাকা: নেপালের ত্রিভুবন বিমানবন্দরে বিধ্বস্ত ইউএস-বাংলার বিএস২১১ ফ্লাইটের ৩৬ বাংলাদেশি আরোহীর মধ্যে ২৬ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছে ইউএস-বাংলা কর্তৃপক্ষ।

মঙ্গলবার (১৩ মার্চ) ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের জিএম (জনসংযোগ) কামরুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

তিনি বলেন, পাইলট, কো-পাইলট, কেবিন ক্রুসহ মোট ২৬ জন বাংলাদেশি নিহত হয়েছেন। সেখানকার তিনটি হাসপাতালে জীবিত ১০ জনের চিকিৎসা চলছে। এদের মধ্যে কেউ গুরুতর আহত আছেন, কেউ হালকা আঘাত পেয়েছেন।

কামরুল ইসলাম আরও বলেন, আনুষ্ঠানিকতা শেষে যত দ্রুত সম্ভব মরদেহ দেশে আনা হবে।

জীবিতদের চিকিৎসার যাবতীয় ব্যয় বহন করবে ইউএস-বাংলা। ক্ষতিগ্রস্তরা ইন্স্যুরেন্স সুবিধা ছাড়াও ক্ষতিপূরণ পাবেন। বর্তমানে পরিস্থিতি মোকাবিলার পরেই ক্ষতিপূরণের বিষয়টি ঠিক হবে।

প্লেন বিধ্বস্ত হওয়ার কারণ জানতে ব্ল্যাক বক্সের তথ্য নিয়ে আন্তর্জাতিক বেসামরিক বিমান চলাচল সংস্থাকে (আইসিএও) দিয়ে তদন্ত করা হবে বলেও জানান তিনি।

সোমবার (১২ মার্চ) দুপুর ২টা ২০ মিনিটে পার্বত্য শহর কাঠমান্ডুর ত্রিভুবন আর্ন্তজাতিক বিমানবন্দরে অবতরণের সময় ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের বিএস২১১ ফ্লাইটটি বিধ্বস্ত হয়। 

ঢাকা থেকে যাওয়া ৭৮ আসনের উড়োজাহাজটিতে চার ক্রুসহ মোট ৭১ আরোহী ছিলেন। এতে ৪৯ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে জানায় নেপাল পুলিশ। মঙ্গলবার সকালে ফ্লাইটটির পাইলট আবিদ সুলতান চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। এ নিয়ে নিহতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৫০ এ।

স্বজনরা নেপালে, চিহ্নিতের পর মরদেহ হস্তান্তর

বাংলাদেশ সময়: ১৬০৭ ঘণ্টা, মার্চ ১৩, ২০১৮
ইইউডি/আরআর

অন্তর্ভুক্ত বিষয়ঃ বিএস২১১

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa