ঢাকা, সোমবার, ১১ শ্রাবণ ১৪২৮, ২৬ জুলাই ২০২১, ১৫ জিলহজ ১৪৪২

আগরতলা

ত্রিপুরায় উদযাপিত হচ্ছে আন্তর্জাতিক যোগ দিবস

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৪৫৭ ঘণ্টা, জুন ২১, ২০২১
ত্রিপুরায় উদযাপিত হচ্ছে আন্তর্জাতিক যোগ দিবস

আগরতলা, (ত্রিপুরা): সারা বিশ্বের সঙ্গে মিল রেখে ত্রিপুরায় সোমবার (২১ জুন) উদযাপিত হচ্ছে আন্তর্জাতিক যোগ দিবস। রাজ্যের মূল অনুষ্ঠানটি হয় ক্রীড়া ও যুব বিষয়ক দপ্তরের উদ্যোগে আগরতলার নেতাজী সুভাষ রিজিয়ন্যাল কোচিং সেন্টারের (এনএস আরসিসি) হলে।

 

মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব এ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া আরও উপস্থিত ছিলেন ত্রিপুরা সরকারের যুব ও ক্রীড়া বিষয় দপ্তরের মন্ত্রী মনোজ কান্তি দেবসহ অন্যান্যা কর্মকর্তা ও ক্রীড়াপ্রেমী মানুষ।  

অন্যান্য বছর খোলা মাঠে এই দিবসটি উদযাপিত হলেও করোনা মহামারির কারণে এবার কিছুটা ছোট পরিসরে কর্মসূচি করা হচ্ছে। যাবতীয় কোভিড বিধি মেনে এই দিনটি উদযাপন করা হয় অনুষ্ঠানটি। মুখ্যমন্ত্রীসহ উপস্থিত সবাই যোগ ব্যায়াম করেন।  

এর আগে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখতে গিয়ে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, যোগা আমাদের প্রাচীন পরম্পরা। কোভিডের এ সময়ে যোগাভ্যাস অত্যন্ত প্রয়োজনীয়। করোনা সংক্রমণের প্রথম পর্বে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী আয়ুষের গাইডলাইন জারি করেছিলেন। সুস্থতার ক্ষেত্রে তা আমাদের সবার অনুসরণীয় হওয়া উচিত। মহামারির এই সঙ্কটের মধ্যেও প্রধানমন্ত্রীর মার্কস দর্শনে অর্থনীতিতে স্থিতি বজায় রয়েছে এবং তা প্রবাহমান। সবার সহযোগিতায় আমরা কোভিডের প্রথম ঢেউকে মোকাবিলা করতে সক্ষম হয়েছি। দ্বিতীয় ঢেউও অনেকটাই সামলে উঠতে পেরেছি।  

তিনি আরও বলেন, আজ রাজ্য সরকারের উদ্যোগে সমগ্র ত্রিপুরায় জেলা ও মহকুমা স্তরে কোভিড বিধি মেনে যোগ দিবস উদযাপিত হচ্ছে। তাতে সামাজিক সংস্থা, ক্লাবগুলোরও স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণ রয়েছে।  

সবার প্রতি আহ্বান করে তিনি বলেন, আমি সবার কাছে অনুরোধ করব, আপনারা নিজেদের সুস্থ রাখতে কোভিড বিধি মেনে চলুন এবং নিয়মিত যোগাভ্যাস করুন। আগরতলার পাশাপাশি প্রতিবছরের মত রাজ্যের অন্যান্য জেলা এবং মহকুমা স্তরেও এই দিনটি পালন করা হচ্ছে।

প্রতি বছর ২১ জুন আন্তর্জাতিক যোগ দিবস হিসেবে উদযাপন করা হয়। যোগ হলো প্রাচীন ভারতের উদ্ভূত এক বিশেষ ধরনের শারীরিক ও মানসিক ব্যায়াম এবং আধ্যাত্মিক অনুশীলন প্রথা। এর উদ্দেশ্য মানুষের শারীরিক ও মানসিক সুস্থ ও সতেজ রাখা। প্রাচীনকাল থেকে চলে আসা এই প্রথা ভারতে আজও প্রচলিত আছে। ভারতের পাশাপাশি এখন বিশ্বের অন্যান্য দেশেও জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে যোগা। তাই ২০১৪ সালের ২৭ সেপ্টেম্বর রাষ্ট্রসংঘে ভাষণ দেওয়ার সময় ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ২১ জুন দিনটিকে আন্তর্জাতিক যোগ দিবস বলে ঘোষণা করার প্রস্তাব দেন। সেই বছরই ১১ ডিসেম্বর রাষ্ট্র সংঘের সাধারণ পরিষদ ২১ জুন দিনটিকে আন্তর্জাতিক যোগ দিবস বলে ঘোষণা করেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৪৫৪ ঘণ্টা, জুন, ২০২১
এসসিএন/এএটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa