ঢাকা, সোমবার, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮, ১৪ জুন ২০২১, ০৩ জিলকদ ১৪৪২

আগরতলা

করোনা আক্রান্তদের চিকিৎসায় ত্রিপুরায় ৩শ বেডের কেয়ার সেন্টার

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮২৩ ঘণ্টা, মে ৭, ২০২১
করোনা আক্রান্তদের চিকিৎসায় ত্রিপুরায় ৩শ বেডের কেয়ার সেন্টার ...

আগরতলা(ত্রিপুরা): করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে টালমাটাল ভারত। প্রতিদিনেই সংক্রমণ-মৃত্যু আগের দিনের রেকর্ড ছাড়িয়ে যাচ্ছে।

এরমধ্যে ত্রিপুরা রাজ্যের পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। তবে ত্রিপুরা সরকার বসে নেই, যদি রাজ্যে করোনা ভয়াবহ আকার ধারণ করে তার জন্য সরকার আগে থেকেই প্রস্তুতি নিচ্ছে। রাজ্যের রাজধানী আগরতলার পার্শ্ববর্তী হাঁপানিয়ায় ৩০০ বেডের কোভিড কেয়ার সেন্টার গড়ে তোলা হচ্ছে। ইতোমধ্যেই এখানে ২০০ বেডের ব্যবস্থা হয়েছে। যার মধ্যে অক্সিজেন সাপোর্টের ব্যবস্থা রয়েছে এক শতাধিক বেডে, তা দ্রুত চালু করা হবে।  

এই কোভিড কেয়ার সেন্টার চালু করার আগে মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব শুক্রবার (৭ মে) সেন্টারটি ঘুরে দেখেন।

পরিদর্শন শেষে মুখ্যমন্ত্রী জানান, রাজ্য সরকার পরিকল্পনা করেছে জেলাগুলোতে আক্রান্তদের চিকিৎসা করার বিষয়টি ওই জেলাতেই সুনিশ্চিত করা জন্য। তার জন্য প্রতিটি জেলায় কোভিড চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হয়েছে। আগেরবার জিবি হাসপাতালের ওপিডি বন্ধ করতে হয়েছিল করোনা চিকিৎসার জন্য। পরবর্তী সময়ে কোভিড সংক্রমণ কমে গেলে জিবি হাসপাতালের জয়ন্তী ব্লকে পৃথকভাবে কোভিড চিকিৎসার পরিকাঠামো গড়ে তোলা হয়েছে।

কোভিড সংক্রমণ মোকাবিলায় টিকাকরণে আরও গতি সঞ্চারিত করাই রাজ্য সরকারের বর্তমান লক্ষ্য বলেও জানান মুখ্যমন্ত্রী।

আগরতলার অটলবিহারী বাজপেয়ী রিজিওনাল ক্যানসার হাসপাতালেও কোভিড চিকিৎসার জন্য ১০০ বেডের পরিকাঠামো প্রস্তুত রাখা হচ্ছে। তবে ক্যানসারের চিকিৎসা করাতে যারা আসবেন তাদের উদ্বিগ্ন হওয়ার কিছু নেই।

স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ দপ্তরের কর্মকর্তাদের পাশাপাশি অন্যান্য দপ্তরের অধিকারিকরাও মুখ্যমন্ত্রীর পরিদর্শন কালে সঙ্গে ছিলেন।

এদিকে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এদিন ফোনে মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেবের সঙ্গে কথা বলে ত্রিপুরা রাজ্যের করোনা পরিস্থিতি এবং রাজ্য সরকারের প্রস্তুতি সম্পর্কে খোঁজখবর নিয়েছেন। মুখ্যমন্ত্রী নিজে এক টুইট বার্তায় এ তথ্য জানিয়েছেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৮২৩ ঘণ্টা, মে ০৭, ২০২১
এসসিএন/এইচএডি/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa