ঢাকা, মঙ্গলবার, ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮, ১৮ মে ২০২১, ০৫ শাওয়াল ১৪৪২

আগরতলা

মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে মমতাকে শপথ না নেওয়ার আহ্বান বিপ্লব দেবের

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১৪৮ ঘণ্টা, মে ৪, ২০২১
মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে মমতাকে শপথ না নেওয়ার আহ্বান বিপ্লব দেবের

আগরতলা: নন্দীগ্রামের মানুষ ভোট দিয়ে প্রমাণ করে দিয়েছে যে তারা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে চান না। এরপরও তিনি পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব নিতে যাচ্ছেন।

আমার দলের পক্ষ থেকে দায়িত্ব দেওয়ার কথা হলে ব্যক্তিগতভাবে আমি তা নিতে অস্বীকার করতাম। কারণ মানুষ আমাকে চাইছে না।  

মঙ্গলবার (৪ মে) আগরতলার কৃষ্ণনগর এলাকার ত্রিপুরা প্রদেশ বিজেপির কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে একথা জানান ত্রিপুরা রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব।

তিনি বলেন, আসাম ও পুদুচেরি রাজ্যে বিধানসভা নির্বাচনের পর বিজেপি ক্ষমতায় এসেছে কিন্তু কোনো ধরনের হিংসাত্মক ঘটনা ঘটেনি। কিন্তু নির্বাচনের পর পশ্চিমবাংলায় এখন পর্যন্ত বিজেপির পাঁচজন কর্মকর্তা খুন হয়েছেন তৃণমূল কংগ্রেস আশ্রিত দুষ্কৃতদের হাতে। বিজেপি কোনোভাবেই পশ্চিমবাংলায় দলের কর্মীদের উপর এমন নির্মম হত্যা ও আক্রমণ মেনে নেবে না।  

তিনি ব্যক্তিগতভাবে এ ঘটনার তীব্র নিন্দা জানান। তৃণমূল সুপ্রিমো মমতার এ ঘটনার নিন্দা করা উচিত। কিন্তু এখন পর্যন্ত মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘটনার নিন্দা জানাননি বলেও অভিযোগ করেন।  

বিপ্লব বলেন, সব জায়গাতেই বিজেপি আগের তুলনায় সংখ্যাগরিষ্ঠ হয়েছে। পশ্চিমবাংলাতেও বিজেপি ১০ শতাংশ থেকে ৩৪ শতাংশে উঠে এসেছে। সবচেয়ে কম সময়ের মধ্যে বিজেপি বিশ্বের বৃহত্তম দলে পরিণত হয়েছে। আর এই নির্বাচন প্রমাণ করেছে বামফ্রন্ট শূন্য হয়েছে।
 
সাংবাদিকদের তরফে এদিন তাকে প্রশ্ন করা হয় পশ্চিমবঙ্গের নির্বাচনের প্রভাব কি ত্রিপুরা রাজ্যে পড়তে পারে? এর উত্তরে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ২০২৩ সালে ত্রিপুরা বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপি অনেক বেশি শক্তি নিয়ে ক্ষমতায় আসবে।  

বাংলাদেশ সময়: ২১৪৬ ঘণ্টা, মে ০৪, ২০২১
এসসিএন/এএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa