ঢাকা, সোমবার, ৫ আশ্বিন ১৪২৭, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০২ সফর ১৪৪২

আগরতলা

আগরতলা ফিরলেন বাংলাদেশে আটকে পড়া ভারতীয় শিক্ষার্থীরা

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫৩৮ ঘণ্টা, মে ২৮, ২০২০
আগরতলা ফিরলেন বাংলাদেশে আটকে পড়া ভারতীয় শিক্ষার্থীরা রীভা গাঙ্গুলি দাশ এবং প্রতিমা ভৌমিক আখাউড়া ইন্টিগ্রেটেড চেকপোস্টের বিশ্রামাগারে কিছুক্ষণ কথা বলেন।

আগরতলা (ত্রিপুরা): আখাউড়া সীমান্ত দিয়ে আগরতলা এলেন বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকায় অবস্থিত ভারতীয় হাই কমিশনের হাইকমিশনার রীভা গাঙ্গুলি দাশ।

বৃহস্পতিবার (২৮ মে) তার এ ত্রিপুরা সফরের মূল কারণ হচ্ছে করোনাভাইরাসের জেরে বাংলাদেশে আটকে পড়া ভারতীয় শিক্ষার্থীদের ফিরিয়ে দেওয়ার ব্যবস্থা করা। উভয় দেশের আলোচনা ভিত্তিতে এদিন এসব শিক্ষার্থীরা বাংলাদেশ থেকে ত্রিপুরা রাজ্যে আসেন।

তিনি তাদের ঢাকা থেকে আখাউড়া সীমান্তে পৌঁছে দেন।

এদিকে এসব শিক্ষার্থীদের গ্রহণ করতে আখাউড়া সীমান্তে উপস্থিত ছিলেন ত্রিপুরার পশ্চিম আসনের সংসদ সদস্য প্রতিমা ভৌমিক। রীভা গাঙ্গুলি দাশ এবং প্রতিমা ভৌমিক আখাউড়া ইন্টিগ্রেটেড চেকপোস্টের বিশ্রামাগারে কিছুক্ষণ কথা বলেন।

রীভা গাঙ্গুলি দাশ জানান, বাংলাদেশে যেসব ভারতীয় শিক্ষার্থী পড়াশোনা করছেন, তাদের নিরাপদে ভারতীয় সীমান্ত পর্যন্ত পৌঁছে দেওয়ার জন্য তিনিও সঙ্গে এসেছে। বাংলাদেশ থেকে আসা ভারতীয় শিক্ষার্থীদের স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য সীমান্তে ত্রিপুরা সরকার কী ব্যবস্থা করে রেখেছে, তা ঘুরে দেখেছেন। এদিন শিক্ষার্থীদের সঙ্গে বাংলাদেশে আটকে থাকা কয়েকজন ভারতীয় নাগরিক এসেছেন। এদিনই তিনি ঢাকা ফিরে যাবেন বলে জানান।

অপরদিকে আখাউড়া সীমান্তে ইন্টিগ্রেটেড চেকপোস্ট এ দাঁড়িয়ে পশ্চিম আসনের সংসদ সদস্য প্রতিমা ভৌমিক জানান, বাংলাদেশ থেকে যারা ত্রিপুরা রাজ্যে এসেছে, তাদের সবার নমুনা পরীক্ষা করা হবে। নমুনা পরীক্ষার রিপোর্ট আসার আগ পর্যন্ত তাদের সবাইকে আগরতলায় প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে রাখা হবে।

শিক্ষার্থীসহ মোট ১২৯ জন ত্রিপুরায় এসেছেন বলে জানান তিনি।

যেসব শিক্ষার্থী বাংলাদেশ থেকে এদিন আগরতলা এসেছেন তাদের বেশিরভাগই মেডিক্যাল কলেজে পড়াশোনা করছেন। কেউ কেউ এক বছর পর দেশে ফিরেছেন, আবার কেউ প্রায় ছয় মাস পর এসেছেন। লকডাউনের কারণে তাদের বাড়ি ফিরতে দেরি হলেও এসময় বাংলাদেশে তাদের কোনো সমস্যা হয়নি বলে জানান তারা।

লকডাউন পরিস্থিতিতে আলোচনার মাধ্যমে সুষ্ঠু ও সুন্দরভাবে তাদের নিজ বাড়িতে ফিরিয়ে আনার ব্যবস্থা করার জন্য তারা উভয় দেশের সরকারকে ধন্যবাদ জানান।

বাংলাদেশ সময়: ১৫৩৮ ঘণ্টা, মে ২৮, ২০২০
এসসিএন/এফএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa