ঢাকা, সোমবার, ৫ আশ্বিন ১৪২৭, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০২ সফর ১৪৪২

আগরতলা

চোর সন্দেহে ত্রিপুরায় ‘বাংলাদেশিকে’ গণপিটুনি

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২৩ ঘণ্টা, মে ২৪, ২০২০
চোর সন্দেহে ত্রিপুরায় ‘বাংলাদেশিকে’ গণপিটুনি

আগরতলা (ত্রিপুরা): ত্রিপুরার পশ্চিম জেলার অন্তর্গত সিধাই থানাধীন ফকিরমুড়া গ্রামে চোর সন্দেহে এক বাংলাদেশি যুবককে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে।

রোববার (২৪ মে) এই ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় কয়েকজন জানান, শনিবার (২৩ মে) দিনগত রাতে সিধাই থানাধীন ফকিরমুড়া ও পার্শ্ববর্তী বোয়ালিয়া গ্রামে একাধিক বাড়ি থেকে গরু এমনকি দুটি মন্দিরের সামগ্রীসহ দান বাক্স চুরি যায়।

এর জেরে এদিন তীব্র উত্তেজনা ছড়ায় গ্রাম দুটিতে। এদিন গ্রামের পার্শ্ববর্তী সীমান্তের কাঁটাতারের বেড়ার কাছে জঙ্গলের মধ্যে অপরিচিত এক ব্যক্তিকে লুকিয়ে থাকতে দেখে স্থানীয় লোকজন। সঙ্গে সঙ্গে তাকে ধরে এনে ক্ষুব্ধ জনতা গণপিটুনি দেয়। খবর পেয়ে সিধাই থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে ছুটে যায় এবং আহত অবস্থায় ব্যক্তিটিকে উদ্ধার করে মোহনপুর হাসপাতলে ভর্তি করে। বর্তমানে সে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রয়েছে।

জানা যায়, আহত ব্যক্তি জানিয়েছে, তার নাম লোকমান মিঞা। বাড়ি বাংলাদেশের মালঞ্চপুর গ্রামে। তার দাবি সে চোর নয়।

মোহনপুর মহকুমা পুলিশ কর্মকর্তা (এসডিপিও) ড. কমল মজুমদার জানান, তারা একটি মামলা নিয়ে তদন্ত শুরু করেছেন। তবে আটক ব্যক্তি বাংলাদেশি না ভারতীয় নাগরিক এ বিষয়ে তারা এখনো নিশ্চিত হতে পারেননি। আটক ব্যক্তি বর্তমানে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। তার শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল হলে তবে তারা জিজ্ঞাসাবাদ করে পরিচয় ও নাগরিকত্বের বিষয়ে নিশ্চিত হতে পারবেন।  

বাংলাদেশ সময়: ২০২৩ ঘণ্টা, মে ২৪, ২০২০
এসসিএন/এইচএডি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa