bangla news

সিএবি চালু করলে ত্রিপুরায় জঙ্গিবাদ মাথা চাড়া দেবে

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-১২-০৮ ৭:১৮:৫৬ পিএম
সংবাদ সম্মেলনে রঞ্জিত দেববর্মা। ছবি: বাংলানিউজ

সংবাদ সম্মেলনে রঞ্জিত দেববর্মা। ছবি: বাংলানিউজ

আগরতলা (ত্রিপুরা): উত্তরপূর্ব ভারতকে নাগরিকত্ব (সংশোধনী) বিল সিটিজেনশিপ অ্যামান্ডমেন্ট বিলের (সিএবি) আওতায় আনলে দেশের এ অঞ্চলে আবার জঙ্গিবাদ মাথা চাড়া দেবে এবং এ অঞ্চল অশান্ত হয়ে পড়বে।

রোববার (০৮ ডিসেম্বর) আগরতলা প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে এমন কথাই জানান অল ত্রিপুরা টাইগার ফোর্সের (এটিটিএফ) সাবেক সভাপতি ও বর্তমান ত্রিপুরা ইউনাইটেড ইন্ডিজেনাস পিপলস কাউন্সিলের (টিইউআইসিপি) উপদেষ্টা রঞ্জিৎ দেববর্মা।

তিনি জানান, প্রথম থেকেই তারা সিএবির বিরোধীতা করে আসছেন। এটি যাতে ত্রিপুরাসহ উত্তর-পূর্ব ভারতে চালু না হয়, সেজন্য তারা কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে চিঠি লিখে ও তার সঙ্গে সাক্ষাৎ করে আহ্বান করেছেন। তাদের মতো উত্তর পূর্ব ভারতের প্রতিটি জনজাতি ভিত্তিক দল, সংগঠন এবং এনজিও এ বিলের বিরোধিতা করছে। 

১৯৯৩ সালে এটিটিএফ জঙ্গি গোষ্ঠি, ভারত সরকার ও ত্রিপুরা সরকারের মধ্যে যে চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়, এ চুক্তির শর্তগুলোর মধ্যে অন্যতম এক শর্ত ছিলো ত্রিপুরা রাজ্য থেকে অবৈধ অনুপ্রবেশকারীদের বের করে দেওয়া হবে। যদি ত্রিপুরাসহ উত্তর-পূর্ব ভারতে সিএবি পাশ হয় তবে এই চুক্তির লঙ্ঘন করা হবে বলে জানান রঞ্জিত দেববর্মা। 

তাছাড়া এ বিলটি বিশেষ এক ধর্মীয় গোষ্ঠীকে সুবিধা দিয়ে তৈরি হওয়ায় এটি সংবিধান বিরোধী বলে জানান তিনি। 

সংবাদ সম্মেলনে রঞ্জিৎ দেববর্মা বলেন, উত্তরপূর্ব ভারতে সিএবি আইন পাশ করা হলে এ অঞ্চলে রাজনৈতিক হিংসার আগুন জ্বলে উঠবে। কেননা এ বিল পাশ হলে জনজাতি অংশের মানুষ আরও সংখ্যালঘুতে পরিণত হবেন। ফলে জনজাতি যুব সমাজের মধ্যে হতাশার সৃষ্টি হবে এবং তারা আবার উগ্রবাদে ঝুঁকে পড়তে পারেন।

সংবাদ সম্মেলনে সাবেক এ এটিটিএফ নেতা জানান, তারা কোনো জাতি বা গোষ্ঠীর বিরোধী নন, নিজেদের অস্থিত্ব বজায় রাখার জন্যই তারা সিএবি বিরোধী এ আন্দোলন করছেন।
  
সিএবি বিলের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন থেকে সোমবার (৯ ডিসেম্বর) থেকে টানা ৯০ঘন্টার জন্য  টানা হরতালের ডাক দেওয়া হয়। স্থানীয় সময় সকাল ৬টা থেকে এ হরতাল শুরু হবে। 

হরতালে সড়ক, রেল যোগাযোগ, দোকানপাঠ, অফিস আদালতসহ কিছু বন্ধ থাকবে। তবে জরুরি পরিষেবা  হরতালের বাইরে থাকবে বলে সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়।

বাংলাদেশ সময়: ১৯১৮ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ০৮, ২০১৯
এসসিএন/এবি

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-12-08 19:18:56