bangla news

অবৈধ ই-রিকশা বন্ধের প্রতিবাদে বিক্ষোভ ত্রিপুরায়

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৮-০২ ৭:৩৪:০৩ পিএম
সড়ক অবরোধ করেছে রাজ্যের ই-রিকশা চালকরা। ছবি: বাংলানিউজ

সড়ক অবরোধ করেছে রাজ্যের ই-রিকশা চালকরা। ছবি: বাংলানিউজ

আগরতলা: ত্রিপুরা সরকার অবৈধ ই-রিকশা রাস্তায় চলাচল বন্ধের যে নির্দেশ দিয়েছে তা বাস্তবায়নে অভিযান চালালে বিক্ষোভ করে এ সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ জানিয়েছেন চালকরা।

শুক্রবার (২ আগস্ট) বিক্ষোভের পাশাপাশি সড়ক অবরোধও করেছেন তারা।

অবরোধের ফলে ঊনকোটি জেলা থেকে রাজ্য ও অন্য রাজ্যে যাতায়াত বন্ধ হয়ে গেছে। দেখা দিয়েছে তীব্র যানজট। ঘটনাস্থলে পুলিশ থাকলেও তারা রয়েছেন নিরব দর্শকের ভূমিকায়। 

আন্দোলনে নামা ঊনকোটি জেলার কৈলাসহরের চালকদের দাবি, নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করতে হবে। অন্যথায় শহরে ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগের হুমকি দেন তারা।

এদিন চালকরা ঊনকোটি জেলার প্রশাসকের সঙ্গে দেখা করেন। বৈঠকে কোনো ধরনের সমাধান না আসায় তারা রাস্তায় নেমেছেন বলে জানান কয়েকজন চালক।

এদিকে ই-রিকশার বিরুদ্ধে অভিযান নিয়ে সৃষ্ট সমস্যার সমাধানে মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করার চেষ্টা করেও ব্যর্থ হন চালকরা। আগাম অনুমতি না থাকায় তাদের দেখা করতে দেওয়া হয়নি।

সংবাদমাধ্যমের কাছে ই-রিকশা চালকরা জানান, মুখ্যমন্ত্রীর অপেক্ষায় গতকাল রাতভর মোটরস্ট্যান্ড এলাকাতেই ছিলেন তারা। দেখা হলে সমস্যার সমাধান হবে এ আশা ছিল তাদের। কিন্তু তাদের আশা পূরণ হয়নি।

আগরতলা প্রেসক্লাবে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে ব্যাটারি রিকশা ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশনে ই-রিকশা সংক্রান্ত বিভিন্ন তথ্য তুলে ধরে।

সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, রাজ্যে বাম্যফ্রন্ট সরকার থাকাকালীন সময়ে ই-রিকশার বৈধতা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছিল। বিক্রেতারা সাবেক সরকারের সঙ্গে বারবার আলোচনা করেও কোনো সমাধান বের করতে পারেননি। ফলে এখন ঝামেলায় পড়েছেন ক্রেতা-বিক্রেতা উভয়েই।

রাজ্যে ৩ হাজারেরও বেশি ই-রিকশা রয়েছে বলে জানানো হয় সংবাদ সম্মেলনে। 

বাংলাদেশ সময়: ১৯৩৪ ঘণ্টা, আগস্ট ০২, ২০১৯
এসসিএন/এইচএডি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   সড়ক অবরোধ
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

আগরতলা বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত

Alexa
cache_14 2019-08-02 19:34:03