ঢাকা, সোমবার, ১১ ভাদ্র ১৪২৬, ২৬ আগস্ট ২০১৯
bangla news

ত্রিপুরাকে গণতন্ত্র হত্যার ল্যাবরেটরি বানানো হচ্ছে

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৭-১৮ ৮:০১:২৫ পিএম

আগরতলা (ত্রিপুরা): ত্রিপুরাকে গণতন্ত্র হত্যার ল্যাবরেটরিতে পরিণত করার চেষ্টা করা হচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন রাজ্যের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী এবং বর্তমান বিরোধী দলীয় নেতা মানিক সরকার।

বৃহস্পতিবার (১৮ জুলাই) আগরতলার অরিয়েন্ট চৌমুহনীতে আয়োজিত গণধরনায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ মন্তব্য করেন মানিক সরকার। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী ও বিজেপির স্বৈরাচারী দৃষ্টিভঙ্গির প্রতিবাদে এবং রাজ্যে পঞ্চায়েত নির্বাচন শান্তিপূর্ণভাবে সম্পন্ন করার দাবিতে এ গণধরনার আয়োজন করা হয়। 

মানিক সরকার বলেন, বর্তমানের সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ হচ্ছে আগামী দিনে নির্বাচন থাকবে কি থাকবে না? নির্বাচন কমিশনকে বন্ধক নিয়ে রেখেছে। নির্বাচন কমিশনের চোখের সামনে কি চলছে? তিনি দেখেও দেখছেন না। অথচ গণতন্ত্র রক্ষার সর্বশেষ প্রহরী হচ্ছে নির্বাচন কমিশন। এখনও দেশে থেকে সরকার উৎখাতের মতো পরিস্থিতি তৈরি হয়নি। তবে আগামী দিনে হয়তো এমন পরিস্থিতি তৈরি হতে পারে। তখন আমরা এ বিষয়ে চিন্তা করবো।

তিনি আরও বলেন, ত্রিপুরাকে গণতন্ত্র হত্যার ল্যাবরেটরিতে পরিণত করার চেষ্টা করছে শাসক দল। তা না হলে ১৫ থেকে ১৬ মাসের মধ্যে উপ-নির্বাচন, লোকসভা নির্বাচন এবং আসন্ন পঞ্চায়েত নির্বাচনকে প্রহসনে পরিণত করার চেষ্টা করতো? পঞ্চায়েত নির্বাচনে বলছে ৮৬ শতাংশ আসনে জয়ী হয়েছে? এটা কিসের জয়? জোর করে দখল করে নিয়েছে বলেও তার অভিযোগ।

এসময় গণধরনায় অন্যাদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- সাবেক মন্ত্রী বর্তমান বিধায়ক বিজিতা নাথ, সাবেক দুই সংসদ সদস্য শঙ্কর প্রাসাদ দত্ত ও জীতেন্দ্র চৌধুরীসহ অন্যান্য নেতারা।

বাংলাদেশ সময়: ১৯৫০ ঘণ্টা, জুলাই ১৮, ২০১৯
এসসিএন/ওএইচ/

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-07-18 20:01:25