ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৬ ভাদ্র ১৪২৬, ২২ আগস্ট ২০১৯
bangla news

মোদীর সফরকে ঘিরে ত্রিপুরায় চলছে ব্যাপক প্রস্তুতি

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০২-০৮ ৭:৪০:৫৮ পিএম
প্রয়াত মহারাজা বীরবিক্রম কিশোর মানিক্য বাহাদুর’র মূর্তি, ছবি: বাংলানিউজ

প্রয়াত মহারাজা বীরবিক্রম কিশোর মানিক্য বাহাদুর’র মূর্তি, ছবি: বাংলানিউজ

আগরতলা (ত্রিপুরা): শনিবার (০৯ ফেব্রুয়ারি) একদিনের আগরতলা সফরে আসছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

তিনি এই অঞ্চলের অন্যান্য রাজ্য সফরের শেষ লগ্নে ত্রিপুরা রাজ্যে আসবেন। এদিন তিনি স্থানীয় সময় বিকেল তিনটা নাগাদ বিশেষ প্লেনে আগরতলা বিমানবন্দরে এসে পৌঁছবেন।

বিমানবন্দরের সামনে ত্রিপুরা রাজ্যের সাবেক এবং প্রয়াত মহারাজা বীরবিক্রম কিশোর মানিক্য বাহাদুর’র মূর্তির আবরণ উন্মোচন করবেন।

এরপর তিনি চলে আসবেন আগরতলার আস্তাবল ময়দানে, সেখান থেকে ভিডিও কনভারেন্স'র মাধ্যমে দু’টি প্রকল্পের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করবেন। এগুলো- পশ্চিম জেলার নরসিংগড় এলাকার ট্রিপল আই টি এবং গোমতী জেলার গর্জি এলাকা থেকে দক্ষিণ জেলার সাব্রুম এলাকা পর্যন্ত নতুন করে নির্মিত ট্রেনলাইনের আনুষ্ঠানিক সূচনা করবেন।

পাশাপাশি তিনি আস্তাবল ময়দানে জনসভায় প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখবেন বলে ত্রিপুরা প্রদেশ বি জে পি’র সাধারণ সম্পাদক রাজীব ভট্টাচার্য্য এদিন বিকেলে বাংলানিউজকে জানান। কর্মসূচি শেষে তিনি আবার দিল্লি ফিরে যাবেন।

তিনি আরো আরো জানান, এদিন রাজ্যের বিভিন্ন এলাকা থেকে প্রায় ১ লাখের বেশি মানুষের সমাগম হবে। এর জন্য উত্তর জেলার ধর্মনগর থেকে আগরতলা পর্যন্ত এক জোড়া বিশেষ ট্রেন চালানো হবে।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী’র সফরকে ঘিরে এখন জোর প্রস্তুতি চলছে। বিমানবন্দর থেকে আস্তাবল ময়দান পর্যন্ত রাস্তা মোদীসহ ত্রিপুরা রাজ্যের মন্ত্রীদের ছবি দিয়ে সাজানো হচ্ছে। সবমিলিয়ে প্রধানমন্ত্রীর সফরকে সাফল্য মণ্ডিত করতে ব্যাপক প্রস্তুতি চলছে। এ উপলক্ষে এরই মধ্যে নিরাপত্তাসহ প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে শুরু করে দিয়েছে স্থানীয় প্রশাসন।

বাংলাদেশ সময় ১৯৩২ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ০৮, ২০১৯
এসসিএন/এএটি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   আগরতলা
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-02-08 19:40:58