[x]
[x]
ঢাকা, শুক্রবার, ৬ আশ্বিন ১৪২৫, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮
bangla news

ত্রিপুরায় বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত কৃষক, সহায়তার দাবি

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-০৭-১০ ৫:৫৩:০০ এএম
ত্রিপুরাজুড়ে ভয়াবহ বন্যা

ত্রিপুরাজুড়ে ভয়াবহ বন্যা

আগরতলা: সম্প্রতি ত্রিপুরাজুড়ে ভয়াবহ বন্যায় রাজ্যের প্রায় প্রতিটি জেলার চাষিরা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন। এবারের বন্যায় চাষিদের ক্ষতির পরিমাণ জানতে কাজ শুরু করেছে রাজ্য সরকারের কৃষি দফতর। 

ইতোমধ্যে কিছু জেলার ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ জানা গেছে।  

বন্যায় সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে ঊনকোটি জেলার চাষিরা। এই জেলার মোট ১৩ হাজার ৫০ জন চাষি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন।

মঙ্গলবার (১০ জুলাই) ঊনকোটি জেলা কৃষি দফতরের উপ-অধিকর্তা রতীশ মালাকার বাংলানিউজকে জানান, মোট ৯ হাজার ১১০ হেক্টর জমির ফসল ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে ৭ হাজার ১১৫ হেক্টর আউস ধান, ৬২৫ হেক্টর খারিফ ডাল শস্য, ৬১০ হেক্টর জমির ভুট্টা, ৭৬০ হেক্টর জমির তৈলবীজ ও তিল শস্য'র ক্ষতি হয়েছে।
 
তিনি আরও জানান, গ্রাম পঞ্চায়েত (জিপি) ও গ্রামস্তরের কর্মীদের দেওয়া রিপোর্টের ভিত্তিতে প্রাথমিকভাবে দফতর এই রিপোর্ট তৈরি করেছে।

ঊনকোটি জেলার কৈলাসহ এলাকার চাষি প্রিয়তোষ দাস বাংলানিউজকে জানান, এবার বন্যা নিঃস্ব করে দিয়েছে। মনু নদীর বাঁধ ভেঙে পানি ঢুকে পড়েছে জমিতে। পানির সঙ্গে জমিতে ঢুকে পড়া বালির তলায় তলিয়ে গেছে একাধিক ধানক্ষেত। এখন জমির কোনো চিহ্ন নেই, শুধু বালি আর বালি। জমির বালি না সরিয়ে পরবর্তীতে চাষ করা সম্ভব নয়। 

চাষিরা জানান, সরকার থেকে যদি তাদের আর্থিক সহায়তা না দেওয়া হয় তবে পরিবার নিয়ে বেঁচে থাকা কঠিন হবে। 

তবে পঞ্চায়েত থেকে তাদের আশ্বাস দেওয়া হয়েছে, দ্রুত বালি সরিয়ে জমিকে চাষযোগ্য করে দেওয়া হবে। 

বাংলাদেশ সময়: ১৫৫১ ঘণ্টা, ১০ জুলাই, ২০১৮
এসসিএন/আরআর

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

আগরতলা বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত

Alexa