bangla news

বাংলাদেশ হয়ে ত্রিপুরা-পশ্চিমবঙ্গে বিদ্যুৎ সরবরাহ

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৭-০৫-০৫ ৯:০২:০৬ পিএম
ত্রিপুরা সরকারের বিদ্যুৎ দফতরের মন্ত্রী মানিক দে

ত্রিপুরা সরকারের বিদ্যুৎ দফতরের মন্ত্রী মানিক দে

আগরতলা: ত্রিপুরার পশ্চিম জেলার সূর্যমনিনগর থেকে বাংলাদেশের মধ্য দিয়ে পশ্চিমবঙ্গ পর্যন্ত বিকল্প বিদ্যুৎ পরিবাহী লাইন স্থাপন করার প্রস্তাব দেয়া হয়েছে ভারত সরকারকে।

৩ ও ৪ মে দিল্লীতে ভারতের সব রাজ্যের বিদ্যুৎ দফতরের মন্ত্রীদের নিয়ে এক বৈঠক হয়। এই বৈঠকের পৌরহিত্য করেন ভারত সরকারের বিদ্যুৎ মন্ত্রকের রাজ্যমন্ত্রী পিযুষ গোয়েল। ত্রিপুরা সরকারের বিদ্যুৎ দফতরের মন্ত্রী মানিক দে এ বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন।

বৈঠক শেষে রাজ্যে ফিরে শুক্রবার (৫ মে) সন্ধ্যায় মহাকরণে এক সংবাদ সম্মেলনে এই বিষয়ে বিস্তারিত জানান তিনি। 

মন্ত্রী মানিক দে এসময় জানান, ত্রিপুরা পশ্চিম জেলার সূর্যমনিনগর থেকে আসাম রাজ্যের বঙ্গাইগাও'র জাতীয় গ্রিড পর্যন্ত বিদ্যুৎ পরিবাহী লাইনের দূরত্ব ৬শ' কিলোমিটারেরও বেশি। এই এলাকার বেশির ভাগ অংশ পাহাড় হওয়ায় অনেক সমস্যা হয়। অথচ ত্রিপুরা থেকে বাংলাদেশের ওপর দিয়ে বিদ্যুৎ পরিবাহী লাইন স্থাপন করা হলে মাত্র সাড়ে ৩শ' কিলোমিটার দূরত্বে পশ্চিমবঙ্গে বিদ্যুৎ পৌঁছে দেয়া সম্ভব। 

ভারতের উত্তরপূর্বাঞ্চল ছাড়া প্রতিটি রাজ্যেই বিকল্প লাইন রয়েছে। তাই বাংলাদেশের ওপর দিয়ে পরিবাহী লাইন স্থাপন করলে এটিকে বিকল্প লাইন হিসেবে ব্যবহার করা যাবে। এর বেশির ভাগ অঞ্চল সমতল হওয়ায় সমস্যা অনেক কম হবে। এই সব বিষয় মাথায় রেখে উত্তরপূর্ব ভারতের রাজ্যগুলোর বিদ্যুৎ মন্ত্রীদের পক্ষ থেকে ভারত সরকারের বিদ্যুৎ মন্ত্রী এ প্রস্তাব দেন। 

মানিক দে আরো জানান, এই বিষয়ে কথা বলতে প্রতিনিধি দল ঠিক করা হবে বলেও জানান কেন্দ্রীয় মন্ত্রী। 

এই বিষয়ে আগে ভারত সরকারের কাছে প্রস্তাব দেয়া হয়েছিল বলেও জানান তিনি।

বাংলাদেশ সময়: ০৬৫৭ ঘণ্টা, মে ০৬, ২০১৭
এসসিএন/এসআই 

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2017-05-05 21:02:06