ঢাকা, শনিবার, ৯ চৈত্র ১৪২৫, ২৩ মার্চ ২০১৯
bangla news

বড়দিনের উচ্ছ্বাসে মেতেছে গোটা ত্রিপুরা রাজ্যবাসী

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৬-১২-২৪ ৮:০২:৪৯ পিএম
বড়দিনের উচ্ছ্বাসে মেতেছে গোটা ত্রিপুরা রাজ্যবাসী-ছবি: বাংলানিউজ

বড়দিনের উচ্ছ্বাসে মেতেছে গোটা ত্রিপুরা রাজ্যবাসী-ছবি: বাংলানিউজ

ত্রিপুরা রাজ্যের শহর থেকে গ্রাম, সমতল থেকে পাহাড়, সব জায়গাতেই এখন বড়দিনের উন্মাদনা।

আগরতলা: ত্রিপুরা রাজ্যের শহর থেকে গ্রাম, সমতল থেকে পাহাড়, সব জায়গাতেই এখন বড়দিনের উন্মাদনা।

 

শনিবার (২৪ ডিসেম্বর) সন্ধ্যা থেকেই আগরতলাসহ রাজ্যের বিভিন্ন এলাকার গির্জায় শুরু হয়েছে প্রার্থনা, আবার কোথাও বা পাঠ করে শোনানো হচ্ছে প্রভু যিশুর বাণী।

 

গির্জার বাইরে জ্বালিয়ে দেওয়া হয়েছে মোমবাতি। আবার কেউ কেউ মেতেছেন ক্রিসমাস পার্টিতে।
   
এদিকে, সন্ধ্যায় আগরতলার বিভিন্ন এলাকায় নানা বয়সী ছেলে-মেয়ে সান্তাক্লজ সেজে রাস্তায় বের হয়। তারা তাদের হাতের ঝুলি থেকে চকলেট তুলে দেয় পথ চলতি ছেলে-মেয়েদের হাতে। বড়দিনের আগ মুহূর্তে সান্তাক্লজের হাত থেকে চকলেট পেয়ে খুশি ছেলে-মেয়েরাও।
বড়দিনের উচ্ছ্বাসে মেতেছে গোটা ত্রিপুরা রাজ্যবাসী-ছবি: বাংলানিউজবিভিন্ন স্কুল প্রতিষ্ঠানের উদ্যোগে সন্ধ্যা থেকেই শুরু হয়েছে কেরলসহ অন্যান্য সঙ্গীতের আসর। চলছে রাত গড়িয়ে রোববার (২৫ ডিসেম্বর) সকাল পর্যন্ত। ঘড়ির কাঁটা রাত ১২টায় পৌঁছালেই অনেক জায়গায় কাটা হয় কেক।

বড়দিনকে কেন্দ্র করে আগরতলার সবচেয়ে বড় অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে রাজধানীর পার্শ্ববর্তী খয়েরপুরের মরিয়ম নগর গির্জায়। এখানে বড়দিনের আগে থেকেই খ্রিস্টান ধর্মের মানুষের পাশাপাশি অন্যান্য ধর্মের মানুষও ভিড় জমাতে শুরু করেছেন। গির্জার সামনে যীশুর জন্মের সময় ও বেড়ে ওঠার প্রেক্ষাপট তোলে ধরা হয়েছে।

এ উপলক্ষে রোববার থেকে দুই দিনব্যাপী মেলার আয়োজন করা হবে। এ মেলা উদ্বোধন করবেন ত্রিপুরা বিধানসভার ডেপুটি স্পিকার পবিত্র কর।
 
সব মিলিয়ে বড়দিনকে কেন্দ্র করে এরই মধ্যে বাঁধন হারা উচ্ছ্বাসে মেতেছেন ত্রিপুরা রাজ্যের নানা ধর্ম-বর্ণের মানুষ।
 
বাংলাদেশ সময়: ০৬৫৯ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২৫, ২০১৬
এসসিএন/আরবি/আরআই

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14