ঢাকা, বুধবার, ৪ কার্তিক ১৪২৮, ২০ অক্টোবর ২০২১, ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

বাণিজ্যমেলা

ক্রেতা-দর্শনার্থীতে মুখরিত বাণিজ্যমেলা

ফিচার রিপোর্টার | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০১৫৪ ঘণ্টা, জানুয়ারি ৬, ২০২০
ক্রেতা-দর্শনার্থীতে মুখরিত বাণিজ্যমেলা গহনার স্টলে ক্রেতারা। ছবি: শাকিল আহমেদ

ঢাকা: তৃষা ফারহান আরিয়া পরিবার নিয়ে তিনি এসেছেন ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্যমেলায়। বিভিন্ন স্টল ঘুরে কিনে নিয়েছেন তিনটি থ্রি-পিস। আবার কেনাকাটা করেছেন পরিবারের অন্য সদস্যদের জন্যও। তবে শুধু আরিয়া নয়, তার মতো অনেকেই পরিবার নিয়ে মেলায় এসেছেন নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যটি কিনতে। দিনের বেলায় শুরু হলেও সন্ধ্যার দিকে জমে মেলা। মুখরিত হয় বিভিন্ন বয়সী মানুষের পদচারণায়।

রোববার (৫ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় মেলা ঘুরে দেখা গেছে যায়, নান্দনিক স্টলগুলোতে দর্শনার্থীরা ঢুঁ মারছেন একটু বেশি। কেনাকাটার পাশাপাশি অনেকে আসছেন স্টল ঘুরে দেখার জন্যও।

এসময় মেলার দর্শনার্থীদের বেশি দেখা গেছে ফরেন জোনে। এসব স্টলে রয়েছে মেয়েদের আকর্ষণীয় বিভিন্ন পোশাক। এর মধ্যে নারী দর্শনার্থীরা ভিড় করছেন বিদেশি থ্রি-পিস, প্রসাধনী ও জুতার দোকানগুলোতে। মেলা প্রাঙ্গণে দর্শনার্থীরা।  ছবি: শাকিল আহমেদমেলায় থাই জোনের বিভিন্ন স্টলের দোকানিদের সঙ্গে কথা হলে তারা জানান, মাত্র শুরু হওয়ায় মেলায় এখনো সেভাবে ক্রেতারা আসছে না। তবে, মেলায় প্রতিদিন সন্ধ্যায় দর্শনার্থীর সংখ্যা বেড়ে যায়। স্টলে এসে তারা বিভিন্ন আইটেমের পণ্য দেখেন এবং পছন্দ হলেই কিনে নেন।

কেনাকাটা নিয়ে তৃষা ফারহান আরিয়া বলেন, মেলায় প্রতিবারই আসা হয় এবং আমি প্রতিবার মেলা থেকে বিদেশি থ্রি-পিস নিই। এবারও তিনটি নিলাম। মেলার প্রথম ভাগ হওয়ায় এখন ভিড়টা অনেক কম। সঙ্গে সাশ্রয়ী মূল্যে ডিজাইনের মধ্যেও রয়েছে বৈচিত্র্য।

নগরীর তেজগাঁও থেকে পরিবার নিয়ে মেলায় ঘুরতে আসা সোহেল রানা বলেন, মেলা থেকে কেনার জন্য অনেক কিছুরই প্ল্যান আছে। তবে এখন প্রথম দিকে মেলায় পরিবার নিয়ে ঘুরতে এসেছি। পাশাপাশি কেনাকাটার জিনিসগুলোর খোঁজ-খবর করেছি। মেলা প্রাঙ্গণে দর্শনার্থীরা।  ছবি: শাকিল আহমেদসারাদিন ব্যস্ত থাকায় এই সন্ধ্যায়ই যা একটু সময়! তবে মেলায় এসে দেখলাম সকলেরই প্রায় একই অবস্থা। দিনের বেলার চেয়ে বিকেলে ও সন্ধ্যায় সবার আগমন বেশি হচ্ছে।

এদিকে ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্যমেলার ৫ম দিন পার হলেও সম্পন্ন হয়নি অনেক স্টলের কাজ। অনেকেই এখনো স্টল সাজাতে ব্যস্ত রয়েছেন। তবে অন্য সব স্টলে পণ্যের পসরা সাজানো থাকলেও খুব একটা চোখে পড়েনি বিকিকিনির চিত্র। স্টল ঘুরেই সময় পার করছেন মেলায় আগতদের অনেকে। ক্রোকারিজ পণ্য দেখছেন ক্রেতারা।  ছবি: শাকিল আহমেদএবারের মেলায় বাংলাদেশসহ ২১টি দেশের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের ৪৮৩টি প্যাভিলিয়ন ও স্টল রয়েছে। মেলায় আগতদের জন্য নেওয়া হয়েছে বাড়তি নিরাপত্তা। মেলায় নিরাপত্তাকর্মীদের অস্থায়ী ক্যাম্পের পাশাপাশি মেলার বাইরেও রয়েছেনপর্যাপ্ত সংখ্যক আইনশৃংখলা বাহিনীর সদস্যরা।

বাংলাদেশ সময়: ২০৪৯ ঘণ্টা, জানুয়ারি ০৫, ২০২০
এইচএমএস/এএটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa