ঢাকা, সোমবার, ৯ কার্তিক ১৪২৮, ২৫ অক্টোবর ২০২১, ১৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

বাণিজ্যমেলা

মেলায় দেশীয় ফ্রিজেই ক্রেতাদের আস্থা বেশি

তামিম মজিদ, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২৩৫৪ ঘণ্টা, জানুয়ারি ৩০, ২০১৯
মেলায় দেশীয় ফ্রিজেই ক্রেতাদের আস্থা বেশি বাণিজ্যমেলায় ফ্রিজের দোকানে ক্রেতা-দর্শনার্থীর ভিড়, ছবি: জিএম মুজিবুর

ঢাকা: সময়ের ব্যবধানে দেশীয় পণ্যের ওপর বেড়েছে মানুষের আস্থা। তেমনি বাড়ছে দেশীয় পণ্য কেনার প্রবণতা। বিশেষ করে গত এক দশকে ফ্রিজ উৎপাদনে বৈপ্লবিক পরিবর্তন হয়েছে। এখন মানুষের দেশীয় ফ্রিজই ভরসা বেশি। কমেছে বিদেশি ফ্রিজ কেনার প্রবণতা।

বুধবার (৩০ জানুয়ারি) সরেজমিনে ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্যমেলায় দেশীয় ফ্রিজের দোকানগুলো ঘুরে দেখা যায় ক্রেতা-দর্শনার্থীদের উপচেপড়া ভিড়। মেলা থেকে অনলাইনেও অনেকে ফ্রিজ কিনছেন বলে জানিয়েছেন বিক্রেতারা।

প্রযুক্তি সংশ্লিষ্টরা বলছেন, একসময় ফ্রিজ ছিল সাধারণ মানুষের কাছে স্বপ্ন। সমাজের উচ্চবিত্ত শ্রেণির লোকজনই সৌখিন পণ্য হিসেবে ফ্রিজ ব্যবহার করতেন। কিন্তু প্রযুক্তির সঙ্গে পাল্লা দিয়ে গত দেড়দশক ধরে বাংলাদেশেই উৎপাদন হচ্ছে ফ্রিজ। শুধু দেশের মানুষের মন জয়ই নয়, দেশীয় কোম্পানির এসব ফ্রিজ এখন বিদেশেও রফতানি করা হচ্ছে।

তথ্য মতে, মানুষের অর্থনৈতিক সক্ষমতা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে চাহিদাও বাড়ছে। এখন ফ্রিজ শুধু সৌখিন পণ্য হিসেবে নয়, গৃহস্থালি পণ্য হিসেবে ব্যবহত হচ্ছে। এ চাহিদার জোগান দিতে সাশ্রয়ী মূল্যে উচ্চ গুণগতমানের পণ্য, মনমুগ্ধকর ডিজাইন, কালার ও বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী ফ্রিজ তৈরি করছে ওয়ালটন, যমুনা, মার্সেল ও ভিশনসহ দেশীয় বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান।

মেলায় দেশীয় এসব ফ্রিজের দোকান ঘুরে দেখা যায়, মেলার শেষ সময় ঘনিয়ে আসায় নানা অফারও দিচ্ছে কোম্পানিগুলো। ওয়ালটন, যমুনা, মার্সেল ও ভিশনের ফ্রিজ কিনলেই থাকছে নানা পুরস্কার।

ওয়ালটন প্যাভিলিয়নে দেখা যায়, নানা ডিজাইনের ফ্রিজ। কেউ দেখছেন, কেউ কিনছেন। মেলা থেকে এসব ফ্রিজ কিনলে গ্রাহকরা পাচ্ছেন ১২ বছরের ওয়ারেন্টি। মেয়ায় ওয়ালটনের ফ্রিজের দাম ১৭ হাজার ৯৯০ থেকে ৬০ হাজার ৯৯০ পর্যন্ত।

ওয়ালটনের বিক্রয়কর্মী শাহজাদী ইফফাত আরা বাংলানিউজকে জানান, ওয়ালটন পণ্য কিনলেই গ্রাহকরা পাবেন সর্বোচ্চ ১২ শতাংশ ছাড়। এছাড়া ডিজিটাল ক্যাম্পেইনের অফারে গ্রাহকরা  নির্দিষ্ট পণ্য কিনেলই জিতে নিতে পারবেন নগদ টাকা, মোটরসাইকেল, ফ্রিজ, টিভি ও এসিসহ কোটি টাকার পুরস্কার।

প্রাণ-আরএফল গ্রুপের পণ্য ভিশন ফ্রিজের স্টলেও মানুষের ভিড় দেখা গেছে। গ্রাহকদের আকৃষ্ট করতে ভিশন ফ্রিজও নানা অফার দিচ্ছে। ভিশনের ব্যবস্থাপক আসাদ জানান, মেলায় ভিশনের ফ্রিজ কিনেলই গ্রাহকরা পাবেন ১৫ শতাংশ ছাড়। এছাড়া ভিশন ফ্রিজ কিনলেই বিদেশ ট্যুরসহ নানা আকর্ষণীয় অফার পাওয়া যাবে।

মেলায় মার্সেলের ফ্রিজ ভালোই বিক্রি হচ্ছে বলে জানান বিক্রয় কর্মী হাবিুল্লাহ। তিনি জানান, মার্সেল ফ্রিজ কিনলেই নানা অফার থাকছে। এছাড়া ৮ থেকে ১২ শতাংশ ছাড় থাকছে।

মেলায় ফ্রিজ কিনতে এসেছেন আদাবরের আরিফুর হক ও ইফফাত আরা দম্পতি। আরিফ বলেন, বাংলাদেশি পণ্য এখন অনেক কোয়ালিটি সম্পন্ন। দেশি ফ্রিজ এখন আন্তর্জাতিক মানসম্পন্ন। কোয়ালিটি ও ডিজাইনের কারণে দেশীয় ফ্রিজেই কিনেছি।

বাংলাদেশ সময়: ১৮২৫ ঘণ্টা, জানুয়ারি ৩০, ২০১৯
টিএম/ওএইচ/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa